ঢাকা ০৬:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দেশের প্রতিটি জেলা রেলসংযোগের আওতায় আনা হবে : রেলপথমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০১:৩৩:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৫৪৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রেলপথমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, দেশের প্রতিটি জেলা রেলসংযোগের আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়ে আমরা কাজ করছি। এতে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে। দেশের সব রেলপথ ব্রডগ্রেজ ও ডাবল লাইন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) মাওয়ায় পদ্মা রেলসেতু সংযোগ প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রেলপথমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রেলপথমন্ত্রী বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেও রেলপথের আধুনিকায়নের কাজ এগিয়ে চলেছে। অর্থনৈতিক মন্দাও আমাদের প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করতে পারেনি। আমরা চাই দেশে একটি ভারসাম্যমূলক যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই আধুনিক, যুগোপযোগী ও টেকসই রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠুক। গত ১৫ বছরে বাংলাদেশ উন্নয়নের শিখরে পৌঁছে গেছে। আগামী দিনেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশা করছি।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সেনাবাহিনী প্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ ও বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

দেশের প্রতিটি জেলা রেলসংযোগের আওতায় আনা হবে : রেলপথমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০১:৩৩:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩

রেলপথমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, দেশের প্রতিটি জেলা রেলসংযোগের আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়ে আমরা কাজ করছি। এতে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে। দেশের সব রেলপথ ব্রডগ্রেজ ও ডাবল লাইন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) মাওয়ায় পদ্মা রেলসেতু সংযোগ প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রেলপথমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রেলপথমন্ত্রী বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেও রেলপথের আধুনিকায়নের কাজ এগিয়ে চলেছে। অর্থনৈতিক মন্দাও আমাদের প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করতে পারেনি। আমরা চাই দেশে একটি ভারসাম্যমূলক যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই আধুনিক, যুগোপযোগী ও টেকসই রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠুক। গত ১৫ বছরে বাংলাদেশ উন্নয়নের শিখরে পৌঁছে গেছে। আগামী দিনেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশা করছি।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সেনাবাহিনী প্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ ও বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানা উপস্থিত ছিলেন।