বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:০২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মির্জা ফখরুল হাজিরা দিলেন আদালতে করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী নয়াপল্টনেই বিএনপির গণসমাবেশ হবে : মির্জা আব্বাস এএসপি আনিস হত্যায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট রাজধানীসহ সারাদেশের কমছে তাপমাত্রা বিশ্বকাপে অশ্লীলতার শিকার নোরা! আইএসের শীর্ষ নেতা নিহত রসিক নির্বাচনে ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায় ১০ জঙ্গি ফের ৫ দিনের রিমান্ডে শিশু আয়াতের বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধার কাদের ঋণ দিচ্ছে ব্যাংক, জানাতে হবে ওয়েবসাইটে: হাইকোর্ট রাজধানীর মাদকবিরোধী অভিযান গ্রেফতার ২৫ ম্যারাডোনা খুব খুশি হবেন: মেসি সেরে উঠেছেন নেইমার, ফিরছেন শেষ ষোলোতেই! গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত : প্রতিমন্ত্রী

দেশকে গোরস্থানে পরিণত করেছে সরকার : ফখরুল

দেশকে গোরস্থানে পরিণত করেছে সরকার : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

দেশব্যাপী বিএনপি নেতা-কর্মীদের হত্যার মাধ্যমে হাত রক্তে রঞ্জিত করে বাংলাদেশকে এখন গোরস্থানে পরিণত করেছে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার (২ নভেম্বর) বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশে জনপদের পর জনপদে মানুষ হত্যার মহাযজ্ঞ যেন থামছেই না। সন্তানহারা পিতা-মাতা, স্বামী হারা স্ত্রী ও পিতাহারা সন্তানদের আহাজারিতে প্রতিদিনই আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠছে। দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল-বিএনপির নেতা-কর্মীদের হত্যা করে ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা কব্জায় রাখাই এখন আওয়ামী রাজনীতির প্রধান লক্ষ্যে পরিণত হয়েছে।

এই সরকার বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার মিশন নিয়ে কাজ করছে। বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদেরকে হত্যার উদ্দেশ্যই হলো মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করা; যাতে কেউ সরকারের বিরুদ্ধে টু শব্দ করার সাহস না পায়, যোগ করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, রক্তপাত ঘটিয়ে জীবন কেড়ে নিয়ে ভীতি সৃষ্টি করে আর ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না। জনগণ আর বসে থাকবে না, দুঃশাসন মোকাবিলায় সরকারের রক্তপাত কর্মসূচিকে সম্মিলিত শক্তি দিয়ে জনগণ প্রতিহত করবে।

আমি সলিমুল্লাহ লাভলুকে হত্যাকারী আওয়ামী দুষ্কৃতকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি করছি। নিহতের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকে কাতর পরিবারবর্গ ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল বিএনপির নেতাকর্মীদের হত্যা করে ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলে রাখা এখন আওয়ামী রাজনীতির প্রধান লক্ষ্যে পরিণত হয়েছে। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের হত্যার উদ্দেশ্যই হলো মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করা, যাতে কেউ সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বলার সাহস না পায়। তবে রক্তপাত ঘটিয়ে, জীবন কেড়ে নিয়ে, ভীতি সৃষ্টি করে আর ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না। জনগণ আর বসে থাকবে না। দুঃশাসন মোকাবিলায় সরকারের রক্তপাত কর্মসূচিকে সম্মিলিত শক্তি দিয়ে জনগণ প্রতিহত করবে।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) রাতে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ১১নং পশ্চিম ফতেপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য সলিমুল্লাহ লাভলুকে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা।

এ ছাড়া, বরিশাল দক্ষিণ জেলাধীন বানারীপাড়া থানা এলাকায় বিএনপির লিফলেট বিতরণকালে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মীকে গুরুতর আহত করে। এসব পৈশাচিক ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব।

মির্জা ফখরুল অবিলম্বে বানারীপাড়ায় বিএনপি’র লিফলেট বিতরণকালে বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলাকারী আওয়ামী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর আহ্বান জানান। তিনি আহত নেতা-কর্মীদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *