ঢাকা ০৬:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দুই গ্রুপ আলাদাভাবে ইজতেমা করছে, কোনো সমস্যা হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:০১:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৪৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গাজীপুর প্রতিনিধি

ইজতেমা সফলভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, বিদ্যমান দুই গ্রুপ আলাদাভাবে ইজতেমা করছে। আশা করি কোনো সমস্যা হবে না।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় গাজীপুরের টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে ইজতেমার প্রস্তুতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত ফলোআপ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইজতেমার আয়োজকদের মধ্যে দুই পক্ষই দুইবার ইজতেমা পরিচালনা করেছিল। তাদের মধ্যে কোনো ভুল বোঝাবুঝি হবে না। ইজতেমার প্রথম পর্ব পরিচালনা করবে জোবায়ের গ্রুপ আর দ্বিতীয় পর্ব করবে সা’দ গ্রুপ। দুই গ্রুপের মধ্যে নতুন করে ভুল বুঝাবুঝি হওয়ার কিছু নেই।

ইজতেমায় সবসময় যে ধরনের নিরাপত্তা থাকে সে ধরনের নিরাপত্তা থাকবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রতিবারই ইজতেমায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিই। এর ধারাবাহিকতার পাশাপাশি এবার সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। সাইবার নিরাপত্তা আমরা যেভাবে বলি সেভাবেই আমাদের পুলিশ বাহিনী কাজ করছে। পুলিশ, র‌্যাব, আনসার সবাই যুক্ত থাকবে প্রয়োজনে বিজিবিও প্রস্তুত থাকবে। সকল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সমন্বয় করেই আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত থাকবে। সামরিক বাহিনীও ব্রিজ নির্মাণে সহায়তা করছেন। প্রতিবারই তারা আমাদের সহযোগিতা করে থাকেন। এখন পর্যন্ত সুন্দরভাবেই প্রস্তুতির মূল কাজ এগিয়ে চলছে। এখন পর্যন্ত ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

ইজতেমায় এবার সাইবার নিরাপত্তা থাকবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিদেশি মেহমানদের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রতিবার তারা যেসব সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকে এবারও তা পাবে। পাশাপাশি এবার তাদের জন্য আরও সেবা বৃদ্ধির চেষ্টা করছি। বিদেশি মেহমানদের জন্য এবার আরও সুন্দর ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা হাজী ক্যাম্পে অবস্থান করবেন। দ্বিতীয় দফায় যারা আসবেন তারাও হাজী ক্যাম্পে অবস্থানের সুযোগ পাবেন।

তিনি বলেন, আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী অত্যন্ত চৌকস। সবগুলো বিষয় মাথায় নিয়েই আমরা কাজ করছি। ২০২৩ সালের বিশ্ব ইজতেমা সুন্দর ও সফল হবে। আমরা সবসময় প্রস্তুত রয়েছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রী সবসময় বিশ্ব ইজতেমার প্রতি খেয়াল রাখছেন। আরও কী ধরনের সহযোগিতা করা যায় তারও খোঁজখবর নিচ্ছেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল ইসলাম এমপি, জন নিরাপত্তা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান, গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, বিশ্ব ইজতেমার দুই পর্বের মুরুব্বীসহ সরকারের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও তাদের প্রতিনিধিরা বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতির তথ্য তুলে ধরেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৩ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। এতে মাওলানা যোবায়েরপন্থী মুসল্লিরা অংশ নেবেন। চারদিন বিরতির পর ২০ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। এতে অংশ নেবেন সাদপন্থী মুসল্লিরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

দুই গ্রুপ আলাদাভাবে ইজতেমা করছে, কোনো সমস্যা হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট সময় : ১০:০১:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৩

গাজীপুর প্রতিনিধি

ইজতেমা সফলভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, বিদ্যমান দুই গ্রুপ আলাদাভাবে ইজতেমা করছে। আশা করি কোনো সমস্যা হবে না।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় গাজীপুরের টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে ইজতেমার প্রস্তুতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত ফলোআপ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইজতেমার আয়োজকদের মধ্যে দুই পক্ষই দুইবার ইজতেমা পরিচালনা করেছিল। তাদের মধ্যে কোনো ভুল বোঝাবুঝি হবে না। ইজতেমার প্রথম পর্ব পরিচালনা করবে জোবায়ের গ্রুপ আর দ্বিতীয় পর্ব করবে সা’দ গ্রুপ। দুই গ্রুপের মধ্যে নতুন করে ভুল বুঝাবুঝি হওয়ার কিছু নেই।

ইজতেমায় সবসময় যে ধরনের নিরাপত্তা থাকে সে ধরনের নিরাপত্তা থাকবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রতিবারই ইজতেমায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিই। এর ধারাবাহিকতার পাশাপাশি এবার সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। সাইবার নিরাপত্তা আমরা যেভাবে বলি সেভাবেই আমাদের পুলিশ বাহিনী কাজ করছে। পুলিশ, র‌্যাব, আনসার সবাই যুক্ত থাকবে প্রয়োজনে বিজিবিও প্রস্তুত থাকবে। সকল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সমন্বয় করেই আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত থাকবে। সামরিক বাহিনীও ব্রিজ নির্মাণে সহায়তা করছেন। প্রতিবারই তারা আমাদের সহযোগিতা করে থাকেন। এখন পর্যন্ত সুন্দরভাবেই প্রস্তুতির মূল কাজ এগিয়ে চলছে। এখন পর্যন্ত ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

ইজতেমায় এবার সাইবার নিরাপত্তা থাকবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিদেশি মেহমানদের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রতিবার তারা যেসব সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকে এবারও তা পাবে। পাশাপাশি এবার তাদের জন্য আরও সেবা বৃদ্ধির চেষ্টা করছি। বিদেশি মেহমানদের জন্য এবার আরও সুন্দর ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা হাজী ক্যাম্পে অবস্থান করবেন। দ্বিতীয় দফায় যারা আসবেন তারাও হাজী ক্যাম্পে অবস্থানের সুযোগ পাবেন।

তিনি বলেন, আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী অত্যন্ত চৌকস। সবগুলো বিষয় মাথায় নিয়েই আমরা কাজ করছি। ২০২৩ সালের বিশ্ব ইজতেমা সুন্দর ও সফল হবে। আমরা সবসময় প্রস্তুত রয়েছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রী সবসময় বিশ্ব ইজতেমার প্রতি খেয়াল রাখছেন। আরও কী ধরনের সহযোগিতা করা যায় তারও খোঁজখবর নিচ্ছেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল ইসলাম এমপি, জন নিরাপত্তা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান, গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, বিশ্ব ইজতেমার দুই পর্বের মুরুব্বীসহ সরকারের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও তাদের প্রতিনিধিরা বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতির তথ্য তুলে ধরেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৩ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। এতে মাওলানা যোবায়েরপন্থী মুসল্লিরা অংশ নেবেন। চারদিন বিরতির পর ২০ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। এতে অংশ নেবেন সাদপন্থী মুসল্লিরা।