ঢাকা ১১:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দশ বছর ধরে দেড় হাজার মানুষ গ্রাম ছাড়া

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৭:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৫১ বার পড়া হয়েছে

দশ বছর ধরে দেড় হাজার মানুষ গ্রাম ছাড়া

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার সড়াতৈল গ্রামের ডোকলা গোষ্ঠির অত্যাচার নির্যাতনে দেড় হাজার মানুষকে গ্রাম ছাড়া করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার করতোয়া ডিগ্রী কলেজ মাঠে মোল্লা গোষ্ঠি আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সংবাদ সম্মেলনে মোল্লা গোষ্ঠির সাবেক মেম্বার আশরাফ সেখ লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, উক্ত গ্রামের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে ২০১২ সালের ১২ জুন ডোকলা ও মোল্লা গোষ্ঠির মধ্যে এক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও উভয়পক্ষের শতাধিক ব্যক্তি আহত হয় এবং ডোকলা গোষ্ঠির লাঠিয়াল বাহিনী মোল্লা গোষ্ঠির বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় উভয়পক্ষের একাধিক মামলা দায়ের করা হয়। হামলা মামলা ও গ্রেফতারের ভয়ে প্রায় ৩’শ পরিবার ভিটে মাটি দোকনপাট রেখে অন্যত্র বসবাস করছি। এ সুযোগে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন মোল্লা গোষ্ঠির বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ধান চাল গরু বাছুর নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ৬ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি ও ২’শ একর কৃষি জমি জোরপূর্বক ভোগ দখল করে আসছে। পরবর্তীতে তারা মামলা থেকে জামিনে মুক্তি লাভ করে। ২০১৭ সালের ৮ জানুয়ারী আমরা নিজ গ্রামে যাওয়ার চেষ্টা করলে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন হামলা চালিয়ে ১০ জনকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় ৪৪ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয় এবং এ মামলা পিবিআই’র তদন্তাধীন রয়েছে। এ মামলার কারণে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন আরো হিংস্র হয়ে ওঠে এবং জনসম্মূখে প্রাণনাশের হুমকিসহ নিয়মিত দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মহড়া দিয়ে আসছে। তারা সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত হওয়ায় এলাকায় কেউ আমাদের সাহায্য করতে সাহস পাচ্ছে না। তাদের হামলার ভয়ে মোল্লা গোষ্ঠির প্রায় দেড় হাজার মানুষ ১০ বছর ধরে অন্যত্র বসবাস এবং এখনও মানবেতর জীপনযাপন করছি। এমতাবস্থায় বারবার প্রশাসনের সাহায্য চেয়েও ব্যর্থ হচ্ছি। পরবর্তীতে স্থানীয় এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে স্থানীয়ভাবে সহযোগীতা চেয়েও পাইনি। আমাদের নিরাপত্তা ও সার্বিক সহযোগীতায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ সংবাদ সম্মেলনে আব্দুর রহিম মন্ডল, সালিম মোল্লা, ঠান্ডু সরদার, হায়দার ফকির, রফিকুল ইসলাম, জব্বার মোল্লা ও শতাধিক নারীসহ বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

বা/খ:জই

নিউজটি শেয়ার করুন

দশ বছর ধরে দেড় হাজার মানুষ গ্রাম ছাড়া

আপডেট সময় : ০৩:৩৭:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার সড়াতৈল গ্রামের ডোকলা গোষ্ঠির অত্যাচার নির্যাতনে দেড় হাজার মানুষকে গ্রাম ছাড়া করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার করতোয়া ডিগ্রী কলেজ মাঠে মোল্লা গোষ্ঠি আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সংবাদ সম্মেলনে মোল্লা গোষ্ঠির সাবেক মেম্বার আশরাফ সেখ লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, উক্ত গ্রামের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে ২০১২ সালের ১২ জুন ডোকলা ও মোল্লা গোষ্ঠির মধ্যে এক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও উভয়পক্ষের শতাধিক ব্যক্তি আহত হয় এবং ডোকলা গোষ্ঠির লাঠিয়াল বাহিনী মোল্লা গোষ্ঠির বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় উভয়পক্ষের একাধিক মামলা দায়ের করা হয়। হামলা মামলা ও গ্রেফতারের ভয়ে প্রায় ৩’শ পরিবার ভিটে মাটি দোকনপাট রেখে অন্যত্র বসবাস করছি। এ সুযোগে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন মোল্লা গোষ্ঠির বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ধান চাল গরু বাছুর নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ৬ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি ও ২’শ একর কৃষি জমি জোরপূর্বক ভোগ দখল করে আসছে। পরবর্তীতে তারা মামলা থেকে জামিনে মুক্তি লাভ করে। ২০১৭ সালের ৮ জানুয়ারী আমরা নিজ গ্রামে যাওয়ার চেষ্টা করলে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন হামলা চালিয়ে ১০ জনকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় ৪৪ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয় এবং এ মামলা পিবিআই’র তদন্তাধীন রয়েছে। এ মামলার কারণে ডোকলা গোষ্ঠির লোকজন আরো হিংস্র হয়ে ওঠে এবং জনসম্মূখে প্রাণনাশের হুমকিসহ নিয়মিত দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মহড়া দিয়ে আসছে। তারা সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত হওয়ায় এলাকায় কেউ আমাদের সাহায্য করতে সাহস পাচ্ছে না। তাদের হামলার ভয়ে মোল্লা গোষ্ঠির প্রায় দেড় হাজার মানুষ ১০ বছর ধরে অন্যত্র বসবাস এবং এখনও মানবেতর জীপনযাপন করছি। এমতাবস্থায় বারবার প্রশাসনের সাহায্য চেয়েও ব্যর্থ হচ্ছি। পরবর্তীতে স্থানীয় এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে স্থানীয়ভাবে সহযোগীতা চেয়েও পাইনি। আমাদের নিরাপত্তা ও সার্বিক সহযোগীতায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ সংবাদ সম্মেলনে আব্দুর রহিম মন্ডল, সালিম মোল্লা, ঠান্ডু সরদার, হায়দার ফকির, রফিকুল ইসলাম, জব্বার মোল্লা ও শতাধিক নারীসহ বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

বা/খ:জই