ঢাকা ১১:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

তিস্তা মহাপরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২০:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৫৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি : 

ভারতের সঙ্গে আলো করে দ্রুত তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে লালমনিরহাটের মোস্তফীহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে রজতজয়ন্তী উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তিস্তা একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। ভারতের সঙ্গে যেকোনো বিষয়ে আলোচনা হলে তিস্তা ইস্যু আসবেই। নদী, পানি ও মাটি নিয়ে সরকারের অনেক মহাপরিকল্পনা রয়েছে। তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সরকার কয়েকটি খসড়াও ইতোমধ্যে তৈরি করেছে। ভারতের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে দ্রুত তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। বর্তমান সরকার মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সকল প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, দেশের টাকায় আমরা পদ্মা সেতু করেছি। কর্ণফুলি টানেলের কাজ চলছে। আজ মেট্রোরেল চালু হলো। দেশের এমন কোনো বাড়ি নেই, যেখানে বিদ্যুৎ পৌঁছায়নি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। দেশের উন্নয়ন দেখে কিছু মানুষ হিংসায় জ্বলে যাচ্ছে। তারা অহেতুক ঢাকায় বসে আন্দোলনের নামে প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। কিছু মানুষ নামাজ না পড়েও জায়নামাজ নিয়ে ঝগড়া করে। এরাও সেই রকম মানুষ। শহরের মতো সারা দেশের প্রতিটি গ্রামে সুপেয় পানি সরবরাহ করা হবে। এরই মধ্যে পাইলট প্রকল্পের কাজ শুরু করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়নে বিশ্বাস করে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, আমি নিজেই কাদা পানি সাঁতরে স্কুলে গিয়েছি। ইউনিফরম ছিল না, লুঙ্গি পড়ে যাইতাম। পাড়ার বড় ভাইদের পুরোনো বই কিনে কিনে পড়তাম। এখন সেই দেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তি পেয়েছে। তারই কন্যার হাত ধরে অর্থনৈতিকসহ সব মুক্তি মিলেছে। তাই তো বছরের প্রথম দিনই সব শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই বিনামূল্যে পৌঁছে যাচ্ছে, ইউনিফরম কেনার টাকাও দিচ্ছে সরকার।

বিএনপিকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। সেই ভয়ে বিএনপি ভোটে আসতে ভয় পায়। তাই উল্টাপাল্টা বলে ভয় দেখাচ্ছে। আপনারা ভোটে আসুন। সেখানেই নির্ধারণ হবে কার কত জনপ্রিয়তা।

মোস্তফীহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ উল্যাহ, পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম, গোকুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ সরকার টোটন প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

তিস্তা মহাপরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৮:২০:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি : 

ভারতের সঙ্গে আলো করে দ্রুত তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে লালমনিরহাটের মোস্তফীহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে রজতজয়ন্তী উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তিস্তা একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। ভারতের সঙ্গে যেকোনো বিষয়ে আলোচনা হলে তিস্তা ইস্যু আসবেই। নদী, পানি ও মাটি নিয়ে সরকারের অনেক মহাপরিকল্পনা রয়েছে। তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সরকার কয়েকটি খসড়াও ইতোমধ্যে তৈরি করেছে। ভারতের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে দ্রুত তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। বর্তমান সরকার মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সকল প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, দেশের টাকায় আমরা পদ্মা সেতু করেছি। কর্ণফুলি টানেলের কাজ চলছে। আজ মেট্রোরেল চালু হলো। দেশের এমন কোনো বাড়ি নেই, যেখানে বিদ্যুৎ পৌঁছায়নি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। দেশের উন্নয়ন দেখে কিছু মানুষ হিংসায় জ্বলে যাচ্ছে। তারা অহেতুক ঢাকায় বসে আন্দোলনের নামে প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। কিছু মানুষ নামাজ না পড়েও জায়নামাজ নিয়ে ঝগড়া করে। এরাও সেই রকম মানুষ। শহরের মতো সারা দেশের প্রতিটি গ্রামে সুপেয় পানি সরবরাহ করা হবে। এরই মধ্যে পাইলট প্রকল্পের কাজ শুরু করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়নে বিশ্বাস করে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, আমি নিজেই কাদা পানি সাঁতরে স্কুলে গিয়েছি। ইউনিফরম ছিল না, লুঙ্গি পড়ে যাইতাম। পাড়ার বড় ভাইদের পুরোনো বই কিনে কিনে পড়তাম। এখন সেই দেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তি পেয়েছে। তারই কন্যার হাত ধরে অর্থনৈতিকসহ সব মুক্তি মিলেছে। তাই তো বছরের প্রথম দিনই সব শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই বিনামূল্যে পৌঁছে যাচ্ছে, ইউনিফরম কেনার টাকাও দিচ্ছে সরকার।

বিএনপিকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। সেই ভয়ে বিএনপি ভোটে আসতে ভয় পায়। তাই উল্টাপাল্টা বলে ভয় দেখাচ্ছে। আপনারা ভোটে আসুন। সেখানেই নির্ধারণ হবে কার কত জনপ্রিয়তা।

মোস্তফীহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ উল্যাহ, পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম, গোকুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ সরকার টোটন প্রমুখ।