ঢাকা ০৯:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

তাহিরপুরে চার গ্রামে ঈদ উদযাপন

রাজু আহমেদ রমজান, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১২:৩২:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৬৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করেছেন সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের আমতৈল, রজনীলাইন, পুরানঘাট ও লাউড়েরগড় গ্রামের শতাধিক পরিবার। এছাড়া জেলার মধ্যনগর উপজেলা সদরের বেশ কয়েকটি পরিবার এবার তাদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ঈদ উৎসবের মিলিত হন। বুধবার (১০ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় আমতৈল মধ্যপাড়া পুরাতন জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
ঈদ উদযাপনকারী আমতৈল গ্রামের বাসিন্দা আমিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার ‘মির্জা কিল দরবার শরীফ’ এর অনুসারী তারা। তাদের পূর্ব পুরুষরা ওই দরবার শরীফের মুরিদ। সেখানকার দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী তারা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখেই রোজা ও পবিত্র ঈদুল ফিতর পালন করেন। তবে ঈদুল আযহা সারাদেশের ন্যায় উদযাপন করেন। আমতৈল গ্রামের অধিকাংশ পরিবারে রোজা ও ঈদ উদযাপনে ভিন্নতা হলেও আমাদের মধ্যে হিংসা-বিদ্বেষ কিংবা হানাহানি নেই বলে তিনি জানিয়েছেন।
তথ্যসূত্র জানায়, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামেও তাদের অনুসারী রয়েছেন। ওই গ্রামেও অন্তত ১০টি পরিবার আজ ঈদ উদযাপন করছেন।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

তাহিরপুরে চার গ্রামে ঈদ উদযাপন

আপডেট সময় : ১২:৩২:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪
মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করেছেন সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের আমতৈল, রজনীলাইন, পুরানঘাট ও লাউড়েরগড় গ্রামের শতাধিক পরিবার। এছাড়া জেলার মধ্যনগর উপজেলা সদরের বেশ কয়েকটি পরিবার এবার তাদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ঈদ উৎসবের মিলিত হন। বুধবার (১০ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় আমতৈল মধ্যপাড়া পুরাতন জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
ঈদ উদযাপনকারী আমতৈল গ্রামের বাসিন্দা আমিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার ‘মির্জা কিল দরবার শরীফ’ এর অনুসারী তারা। তাদের পূর্ব পুরুষরা ওই দরবার শরীফের মুরিদ। সেখানকার দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী তারা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখেই রোজা ও পবিত্র ঈদুল ফিতর পালন করেন। তবে ঈদুল আযহা সারাদেশের ন্যায় উদযাপন করেন। আমতৈল গ্রামের অধিকাংশ পরিবারে রোজা ও ঈদ উদযাপনে ভিন্নতা হলেও আমাদের মধ্যে হিংসা-বিদ্বেষ কিংবা হানাহানি নেই বলে তিনি জানিয়েছেন।
তথ্যসূত্র জানায়, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামেও তাদের অনুসারী রয়েছেন। ওই গ্রামেও অন্তত ১০টি পরিবার আজ ঈদ উদযাপন করছেন।
বাখ//আর