ঢাকা ০৬:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঢাকাসহ ৩৯ জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০১:২৫:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজধানী ঢাকাসহ আরো ২টি জেলা ও ৩টি বিভাগের ৩৯ জেলার ওপর দিয়ে বইছে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ। তাপমাত্রা বেড়ে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে। তবে এটি আরো বাড়বে এবং বিস্তার লাভ করবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) তিনি জানান, নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলাসহ রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তবে সহসাই এটি কমবে না। বরং তাপপ্রবাহ অব্যাহত থেকে আরো বিস্তার লাভ করতে পারে। একইসঙ্গে জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি আরো বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানান তিনি।

রাজধানীসহ দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলেই গরমে কষ্ট পাচ্ছে মানুষ। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় বাড়ছে অস্বস্তি। সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল ঈশ্বরদী ও মোংলায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, কোনো বিস্তৃত এলাকাজুড়ে নির্দিষ্ট সময় ধরে তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৭ দশমিক ৯ ডিগ্রি থাকলে মৃদু, ৩৮ থেকে ৩৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি থাকলে মাঝারি ও ৪০ থেকে ৪১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তীব্র এবং ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি থাকলে তাকে অতি-তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়।

নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলাসহ রাজশাহী (৮ জেলা), ঢাকা (১৩ জেলা), খুলনা (১০ জেলা) ও বরিশাল (৬ জেলা) বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত ও বিস্তার লাভ করতে পারে। জলীয়বাষ্পের আধিক্যে অস্বস্তি বাড়তে পারে বলেও জানান তিনি।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আজ চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা, ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি এবং কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টির আভাস দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

এছাড়া এসময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

এছাড়া, বুধবার (৩ এপ্রিল) এবং তারপর দিন বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) ও চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে এবং জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

একইসঙ্গে বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা পর্যালোচনায় দিন এবং রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে এমন আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অপরদিকে, আজ সকাল ৬টায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে খুলনা বিভাগের মোংলা এবং রাজশাহী বিভাগের ঈশ্বরদীতে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রংপুর বিভাগের ডিমলায় ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এইসময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতও হয়েছে সিলেটে ৮ মিলিমিটার।

নিউজটি শেয়ার করুন

ঢাকাসহ ৩৯ জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ

আপডেট সময় : ০১:২৫:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

রাজধানী ঢাকাসহ আরো ২টি জেলা ও ৩টি বিভাগের ৩৯ জেলার ওপর দিয়ে বইছে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ। তাপমাত্রা বেড়ে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে। তবে এটি আরো বাড়বে এবং বিস্তার লাভ করবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) তিনি জানান, নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলাসহ রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তবে সহসাই এটি কমবে না। বরং তাপপ্রবাহ অব্যাহত থেকে আরো বিস্তার লাভ করতে পারে। একইসঙ্গে জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি আরো বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানান তিনি।

রাজধানীসহ দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলেই গরমে কষ্ট পাচ্ছে মানুষ। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় বাড়ছে অস্বস্তি। সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল ঈশ্বরদী ও মোংলায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, কোনো বিস্তৃত এলাকাজুড়ে নির্দিষ্ট সময় ধরে তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৭ দশমিক ৯ ডিগ্রি থাকলে মৃদু, ৩৮ থেকে ৩৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি থাকলে মাঝারি ও ৪০ থেকে ৪১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তীব্র এবং ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি থাকলে তাকে অতি-তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়।

নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলাসহ রাজশাহী (৮ জেলা), ঢাকা (১৩ জেলা), খুলনা (১০ জেলা) ও বরিশাল (৬ জেলা) বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত ও বিস্তার লাভ করতে পারে। জলীয়বাষ্পের আধিক্যে অস্বস্তি বাড়তে পারে বলেও জানান তিনি।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আজ চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা, ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি এবং কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টির আভাস দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

এছাড়া এসময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

এছাড়া, বুধবার (৩ এপ্রিল) এবং তারপর দিন বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) ও চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে এবং জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

একইসঙ্গে বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা পর্যালোচনায় দিন এবং রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে এমন আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অপরদিকে, আজ সকাল ৬টায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে খুলনা বিভাগের মোংলা এবং রাজশাহী বিভাগের ঈশ্বরদীতে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রংপুর বিভাগের ডিমলায় ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এইসময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতও হয়েছে সিলেটে ৮ মিলিমিটার।