ঢাকা ০১:১৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঢাকার বাতাসের মান গতকালের চেয়ে খারাপ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:১১:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৭৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঢাকার বাতাসের মান আজ মঙ্গলবার গতকালের চেয়ে খারাপ হয়েছে। আইকিউ এয়ারের সূচকে আজ ঢাকার স্কোর ১৯১ যা সোমবার ছিল ১৫৬। বিশ্বজুড়ে আবহাওয়ার মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা আইকিউ এয়ারের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় দেখা গেছে, ওই তালিকায় ২৫২ স্কোর নিয়ে শীর্ষে রয়েছে চীনের বেইজিং। পাকিস্তানের করাচি ২৩৪ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় ও লাহোর ২০৫ স্কোর নিয়ে রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে। এর পরের অবস্থানেই রয়েছে ঢাকা।

তালিকায় দেখা গেছে, ঢাকার পরের স্থানগুলোতে রয়েছে যথাক্রমে থাইল্যান্ডের চিয়াংমাই, ভারতের কলকাতা, দিল্লি ও মুম্বাই; চীনের উহান ও থাইল্যান্ডের ব্যাংকক। এরপর রয়েছে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই।

আইকিউ এয়ারের ওই তালিকায় মোট ৬টি শ্রেণিতে রাখা হয়েছে বিশ্বের ৯৯টি শহরকে। ওই তালিকায় সবচেয়ে খারাপ অবস্থান হলো ‘বিপজ্জনক’। কোনো শহরের স্কোর ৩০১-এর বেশি হলে তাকে ‘বিপজ্জনক’ স্থানে রাখা হয়।

এর পরের স্থানগুলো যথাক্রমে খুবই অস্বাস্থ্যকর (২০১-৩০০), অস্বাস্থ্যকর (১৫১-২০০), বিশেষ ব্যক্তিদের জন্য অস্বাস্থ্যকর (১০০-১৫০), সহনীয় (৫১-১০০) এবং ভালো বায়ু (০-৫০)।

তালিকা অনুযায়ী, ভালো বায়ুর তালিকায় শূন্য স্কোর নিয়ে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরাসহ দুইটি শহর।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ঢাকার বায়ু দূষণের ৩টি প্রধান উৎস হলো, ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, বিশ্বব্যাপী প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৯ জন দূষিত বাতাসে শ্বাস নেন এবং বায়ু দূষণের কারণে প্রতি বছর প্রধানত নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশে আনুমানিক ৭০ লাখ মানুষের অকাল মৃত্যু ঘটে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ঢাকার বাতাসের মান গতকালের চেয়ে খারাপ

আপডেট সময় : ০২:১১:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩

ঢাকার বাতাসের মান আজ মঙ্গলবার গতকালের চেয়ে খারাপ হয়েছে। আইকিউ এয়ারের সূচকে আজ ঢাকার স্কোর ১৯১ যা সোমবার ছিল ১৫৬। বিশ্বজুড়ে আবহাওয়ার মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা আইকিউ এয়ারের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় দেখা গেছে, ওই তালিকায় ২৫২ স্কোর নিয়ে শীর্ষে রয়েছে চীনের বেইজিং। পাকিস্তানের করাচি ২৩৪ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় ও লাহোর ২০৫ স্কোর নিয়ে রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে। এর পরের অবস্থানেই রয়েছে ঢাকা।

তালিকায় দেখা গেছে, ঢাকার পরের স্থানগুলোতে রয়েছে যথাক্রমে থাইল্যান্ডের চিয়াংমাই, ভারতের কলকাতা, দিল্লি ও মুম্বাই; চীনের উহান ও থাইল্যান্ডের ব্যাংকক। এরপর রয়েছে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই।

আইকিউ এয়ারের ওই তালিকায় মোট ৬টি শ্রেণিতে রাখা হয়েছে বিশ্বের ৯৯টি শহরকে। ওই তালিকায় সবচেয়ে খারাপ অবস্থান হলো ‘বিপজ্জনক’। কোনো শহরের স্কোর ৩০১-এর বেশি হলে তাকে ‘বিপজ্জনক’ স্থানে রাখা হয়।

এর পরের স্থানগুলো যথাক্রমে খুবই অস্বাস্থ্যকর (২০১-৩০০), অস্বাস্থ্যকর (১৫১-২০০), বিশেষ ব্যক্তিদের জন্য অস্বাস্থ্যকর (১০০-১৫০), সহনীয় (৫১-১০০) এবং ভালো বায়ু (০-৫০)।

তালিকা অনুযায়ী, ভালো বায়ুর তালিকায় শূন্য স্কোর নিয়ে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরাসহ দুইটি শহর।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ঢাকার বায়ু দূষণের ৩টি প্রধান উৎস হলো, ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, বিশ্বব্যাপী প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৯ জন দূষিত বাতাসে শ্বাস নেন এবং বায়ু দূষণের কারণে প্রতি বছর প্রধানত নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশে আনুমানিক ৭০ লাখ মানুষের অকাল মৃত্যু ঘটে।