বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট ১৬ বছর পর ডেনমার্ককে হারিয়ে শেষ ষোলো’তে অস্ট্রেলিয়া চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়েও তিউনিসিয়ার কান্না রাউজানে ডাকাতির ঘটনায় র‌্যাবের হাতে আরো এক ডাকাত আটক রাউজানে স্কুল থেকে ফেরার পথে ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় যুবক কারাগারে রাউজানে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার ‘আওয়ামী লীগ গরীব দুখী মেহনতি মানুষের কল্যানে রাজনীতি করে’ -কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি মুহিব ডিমলায় বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা রিজার্ভ কমে ৩৩ বিলিয়নে নেমেছে নিউজিল্যান্ডদের কাছে সিরিজ হারল ভারত তিন নারী রেফারি, ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ কীর্তি সুরেশের বিয়ে প্রফেসর মযহারুল ইসলাম ॥ শ্রদ্ধাঞ্জলি সিটি করপোরেশনে মহামারি বিশেষজ্ঞ পদসৃষ্টির প্রস্তাব পেয়েছি : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সফরে আসছে ভারত

জ্বালানির দাম নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সুখবর

জ্বালানির দাম নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সুখবর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

চলতি বছর জ্বালানির দাম গত বছরের তুলনায় অনেকটাই বেড়েছে। তবে আগামী বছর দাম কিছুটা কমে আসবে। শুধু জ্বালানিই নয়, গমসহ আরও অনেক পণ্যের দামও কমবে। এমনটাই বলছে বিশ্বব্যাংক।

বুধবার (২৬ অক্টোবর) বাজার বিষয়ক সবশেষ মূল্যায়নে আন্তর্জাতিক ঋণদানকারী সংস্থাটি বলেছে, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের কারণে জ্বালানির বাজার অস্থির হয়ে ওঠে। ফলে চলতি বছর এখন পর্যন্ত জ্বালানির মূল্য ৬০ শতাংশ বেড়েছে।

বিশ্বব্যাংকের মতে, জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির এ প্রবণতায় আগামী কয়েক মাসের মধ্যে উল্টোস্রোত তৈরি হবে। ফলে ২০২৩ সালে জ্বালানির দাম ১১ শতাংশ হ্রাস পাবে। এরপর মন্থর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও চীনের করোনা বিধিনিষেধের কারণে জ্বালানির দাম আরও কমতে পারে।

বর্তমানে বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর পর্যন্ত) আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানির গড় দাম ৯৬.৬২ ডলার।

বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন মতে, ২০২৩ সালে এই দাম ৯২ ডলারে নেমে আসবে। পরের বছর অর্থাৎ ২০২৪ সালে তা আরও কমে ৮০ ডলারে দাঁড়াবে। তবে দাম কমলেও তা হবে গত পাঁচ বছরের গড় দাম থেকে ৭৫ শতাংশ বেশি।

এছাড়া আগামী বছর কৃষিপণ্যের দাম ৫ শতাংশ কমবে বলেও আশা করা হচ্ছে। ২০২২ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে গমের দাম প্রায় ২০ শতাংশ কমেছে। তবে এক বছর আগের তুলনায় তা ২৪ শতাংশ বেশিই।

২০২৩ সালে বিশ্বে গমের ভালো ফলন, চালের বাজারে স্থিতিশীল সরবরাহ এবং ইউক্রেন থেকে শস্য রফতানি পুনরুদ্ধারের কারণে এমনটা ঘটবে বলে জানায় বিশ্বব্যাংক।

এমনকি, বৈশ্বিক মন্দার আশঙ্কার কারণে ২০২৩ সালে ধাতুর দাম ১৫ শতাংশ হ্রাস পাবে বলেও অনুমান করা হয়েছে বিশ্বব্যাংকের এই প্রতিবেদনে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *