ঢাকা ১০:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জ্ঞানবাপী মসজিদের ওজুখানায় পুজা চলবে: এলাহাবাদ হাইকোর্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:১৮:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৭৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভারতের উত্তর প্রদেশে মুসলিমদের আর্জি খারিজ করে জ্ঞানবাপী মসজিদের ওজুখানায় পুজা করার নির্দেশ বহাল রেখেছেন এলাহাবাদ হাইকোর্ট। অপ্রীতিকর পরিস্থিতির আশঙ্কায় এ নিয়ে বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্বাচনী আসন বারাণসীর জেলা আদালত জ্ঞানবাপী মসজিদটি সিলগালা করে এর তহখানা বা ওজুখানায় হিন্দুদের পুজা করার অনুমতি দিয়েছিল। এবছরের ১ ফেব্রুয়ারি জেলা বিচারক অজয়কুমার বিশ্বেসের সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে এলাহাবাদ হাইকোর্টে যায় অঞ্জুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদ কমিটি।

এর আগে তৃষ্ণার্ত কয়েকজন নারী জ্ঞানবাপী মসজিদের ভেতরে অজুখানা থেকে পানি পান করার পর ২০২১ সালের আগস্টে দাবি করেন সেখানে শিবলিঙ্গ এবং মসজিদের ভেতরে পশ্চিমের দেওয়ালে দেবদেবীর মূর্তির অস্তিত্ব আছে। যদিও, মসজিদ কমিটির বলছে, শিবলিঙ্গ বলে দাবি করা স্থাপনাটি ফোয়ারা।

এরপর সেখানে পূজার্চনার অনুমতি চেয়ে মামলা করা হয়। তার প্রেক্ষিতে ২০২২ সালে মসজিদের ভেতরে সমীক্ষার নির্দেশ দেন বারাণসীর নিম্ন আদালত। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে নির্দেশ আসার আগেই সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বারাণসী জেলা আদালতে জ্ঞানবাপী মামলা স্থানান্তরিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

জ্ঞানবাপী মসজিদের ওজুখানায় পুজা চলবে: এলাহাবাদ হাইকোর্ট

আপডেট সময় : ০৬:১৮:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ভারতের উত্তর প্রদেশে মুসলিমদের আর্জি খারিজ করে জ্ঞানবাপী মসজিদের ওজুখানায় পুজা করার নির্দেশ বহাল রেখেছেন এলাহাবাদ হাইকোর্ট। অপ্রীতিকর পরিস্থিতির আশঙ্কায় এ নিয়ে বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্বাচনী আসন বারাণসীর জেলা আদালত জ্ঞানবাপী মসজিদটি সিলগালা করে এর তহখানা বা ওজুখানায় হিন্দুদের পুজা করার অনুমতি দিয়েছিল। এবছরের ১ ফেব্রুয়ারি জেলা বিচারক অজয়কুমার বিশ্বেসের সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে এলাহাবাদ হাইকোর্টে যায় অঞ্জুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদ কমিটি।

এর আগে তৃষ্ণার্ত কয়েকজন নারী জ্ঞানবাপী মসজিদের ভেতরে অজুখানা থেকে পানি পান করার পর ২০২১ সালের আগস্টে দাবি করেন সেখানে শিবলিঙ্গ এবং মসজিদের ভেতরে পশ্চিমের দেওয়ালে দেবদেবীর মূর্তির অস্তিত্ব আছে। যদিও, মসজিদ কমিটির বলছে, শিবলিঙ্গ বলে দাবি করা স্থাপনাটি ফোয়ারা।

এরপর সেখানে পূজার্চনার অনুমতি চেয়ে মামলা করা হয়। তার প্রেক্ষিতে ২০২২ সালে মসজিদের ভেতরে সমীক্ষার নির্দেশ দেন বারাণসীর নিম্ন আদালত। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে নির্দেশ আসার আগেই সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বারাণসী জেলা আদালতে জ্ঞানবাপী মামলা স্থানান্তরিত হয়।