ঢাকা ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জিম্বাবুয়েকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজে সমতা ফেরালো ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:১২:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০২৪
  • / ৪১৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিশ্বকাপ জয়ের পর প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেই বড় ধাক্কা খায় ভারত। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের কাছে পরাজিত হয় শুভমান গিলরা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে সফরকারীরা। অভিষেক শর্মার সেঞ্চুরি, গায়কোয়াড় ও রিংকু সিংয়ের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৩৪ রান করে ভারত। পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে স্বাগতিকরা ১৮.৪ ওভারে অলআউট হয় ১৩৪ রানে। ১০০ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিংকুরা।

২৩৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা জিম্বাবুয়েকে শুরু থেকেই চাপে রাখেন মুকেশ কুমার, আবেশ খান ও রবি বিষ্ণোইরা। শুরুতে আগ্রাসী ব্যাটিং করলেও ধীরে ধীরে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য থেকে ছিটকে যায় জিম্বাবুয়ে।

স্বাগতিকদের পক্ষে ওয়েসলি মাধভেরে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৪৩, লুক জংউয়ি ৩৩ ও ব্রিয়ান বেনেট ৯ বলে ১ চার ও ৩ ছক্কায় ২৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে কেবল ব্যবধান কমান। বল হাতে আবেশ ৩ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন।

এর আগে, অভিষেক শর্মা ও রুতুরাজ গায়কোয়াড় রীতিমতো ঝড় তোলেন জিম্বাবুয়ের বোলারদের উপর। ৩৩ বলে ব্যক্তিগত ফিফটি করেন অভিষেক। আর সেঞ্চুরি করেন মোট ৪৬ বলে। অভিষেক ১০০ করে সাজঘরে ফিরলেও রানের চাকা থামেনি। উইকেটে এসেই আক্রমণাত্মক খেলেছেন রিংকু সিং। ২২ বলে ৪৮ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। তাছাড়া ৪৭ বলে ৭৭ রানে অপরাজিত ছিলেন রুতুরাজ।

নিউজটি শেয়ার করুন

জিম্বাবুয়েকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজে সমতা ফেরালো ভারত

আপডেট সময় : ১১:১২:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০২৪

বিশ্বকাপ জয়ের পর প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেই বড় ধাক্কা খায় ভারত। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের কাছে পরাজিত হয় শুভমান গিলরা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে সফরকারীরা। অভিষেক শর্মার সেঞ্চুরি, গায়কোয়াড় ও রিংকু সিংয়ের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৩৪ রান করে ভারত। পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে স্বাগতিকরা ১৮.৪ ওভারে অলআউট হয় ১৩৪ রানে। ১০০ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিংকুরা।

২৩৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা জিম্বাবুয়েকে শুরু থেকেই চাপে রাখেন মুকেশ কুমার, আবেশ খান ও রবি বিষ্ণোইরা। শুরুতে আগ্রাসী ব্যাটিং করলেও ধীরে ধীরে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য থেকে ছিটকে যায় জিম্বাবুয়ে।

স্বাগতিকদের পক্ষে ওয়েসলি মাধভেরে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৪৩, লুক জংউয়ি ৩৩ ও ব্রিয়ান বেনেট ৯ বলে ১ চার ও ৩ ছক্কায় ২৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে কেবল ব্যবধান কমান। বল হাতে আবেশ ৩ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন।

এর আগে, অভিষেক শর্মা ও রুতুরাজ গায়কোয়াড় রীতিমতো ঝড় তোলেন জিম্বাবুয়ের বোলারদের উপর। ৩৩ বলে ব্যক্তিগত ফিফটি করেন অভিষেক। আর সেঞ্চুরি করেন মোট ৪৬ বলে। অভিষেক ১০০ করে সাজঘরে ফিরলেও রানের চাকা থামেনি। উইকেটে এসেই আক্রমণাত্মক খেলেছেন রিংকু সিং। ২২ বলে ৪৮ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। তাছাড়া ৪৭ বলে ৭৭ রানে অপরাজিত ছিলেন রুতুরাজ।