ঢাকা ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জার্মান শিরোপা জয়ের অন্তিম মুহুর্তে ডর্টমুন্ড ও বায়ার্ন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৩:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩
  • / ৪৪৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ক্রীড়া ডেস্ক: নবম বারের মতো জার্মান শিরোপা জয়ের একেবারেই দ্বারপ্রান্তে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। আগামীকাল শনিবার বুন্দেসলিগায় নিজেদের শেষ ম্যাচে জয়ের লক্ষ্যে তারা মেইঞ্জের মোকাবেলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। জয় পেলেই তারা ভেঙ্গে দিতে পারবে একযুগ ধরে শিরোপা ধরে রাখা বায়ার্ন মিউনিখের আধিপত্য।

পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা ডর্টমুন্ড জানে তালিকার মাঝখানে থাকা মেইঞ্জকে হারাতে পারলে নিশ্চিত হয়ে যাবে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বায়ার্নের কব্জায় থাকা বুন্দেসলিগার শিরোপা। অপরদিকে শিরোপা জয়ের আশা নিয়ে কোলনের মুখোমুখি হবে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ। শিরোপো জয়ের আশা ধরে রাখতে হলে ওই ম্যাচে জয়ের কোন বিকল্প নেই ক্লাবটির। যদিও টানা ১১তম শিরোপা নিশ্চিতের জন্য শুধু জয় পেলেই হবেনা। টেবিল টপার ডর্টমুন্ডকেও হারতে হবে শেষ ম্যাচে।

এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচটি থেকে মনোযোগ না সরানোর জন্য শিষ্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ডর্টমুন্ডের কোচ এডিন টেরজিক। তিনি বলেন,‘আমরা এখনো (মিশন) শেষ করিনি। তবে একটি দল, একটি ক্লাব এবং একটি শহর হিসেবে আমরা চুড়ান্ত পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত।’
জার্গেন ক্লপের পর টেরজিককেই এযাবৎকালে ‘ডর্টমুন্ডের সেরা কোচ হিসেবে’ অভিহিত করেছে জার্মানীর জনপ্রিয় পত্রিকা জেইতুং। এমনকি বায়ার্নের কোচ থমাস টাচেলের চেয়েও ৪০ বছর বয়সি এই কোচকে এগিয়ে রেখেছে পত্রিকাটি।

২০১১-১২ মৌসুমের পর এই প্রথম ট্রফিবিহীন থাকার শংকায় পড়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। যদিও অভিজ্ঞ তারকা থমাস মুলার তাদের ভক্তদের ‘আরো এক সপ্তাহ’ ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

নিজের ১২.৮ মিলিয়ন ভক্তের অনুসরণে থাকা ইনস্টিগ্রামে মুলার লিখেছেন,‘ এখনো সবকিছু সম্ভব’।

এদিকে তালিকার চতুর্থ স্থান নিয়ে লড়াই চলছে ইউনিয়ন বার্লিন ও ফ্রেইবার্গের মধ্যে। দল দুটির পয়েন্ট সমান থাকলেও গোল ব্যবধানে সামান্য এগিয়ে রয়েছে ইউনিয়ন বার্লিন। দুটি দলই প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। শীর্ষ চারের স্থান সংহত করতে চাইলে অবশ্য শেষ ম্যাচে নিজেদের মাঠে ওয়ার্ডার ব্রেমেনের বিপক্ষে জয় পেতে হবে ইউনিয়ন বার্লিনকে। নিজ মাঠে ইউনিয়ন চলতি মৌসুমে একটি ম্যাচেও পরাজিত হয়নি।

অপরদিকে ইউনিয়নকে টপকে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার স্বপ্ন বাচিয়ে রাখতে হলে ফ্রেইবার্গকে অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেতে হবে হবে এইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে।

সবকিছু মিলিয়ে মৌসুমের শেষভাগে এসে জমে উঠেছে বুন্দেসলিগা। অপেক্ষা করছে জমজমাট লড়াইয়ের।

নিউজটি শেয়ার করুন

জার্মান শিরোপা জয়ের অন্তিম মুহুর্তে ডর্টমুন্ড ও বায়ার্ন

আপডেট সময় : ০৬:১৩:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

ক্রীড়া ডেস্ক: নবম বারের মতো জার্মান শিরোপা জয়ের একেবারেই দ্বারপ্রান্তে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। আগামীকাল শনিবার বুন্দেসলিগায় নিজেদের শেষ ম্যাচে জয়ের লক্ষ্যে তারা মেইঞ্জের মোকাবেলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। জয় পেলেই তারা ভেঙ্গে দিতে পারবে একযুগ ধরে শিরোপা ধরে রাখা বায়ার্ন মিউনিখের আধিপত্য।

পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা ডর্টমুন্ড জানে তালিকার মাঝখানে থাকা মেইঞ্জকে হারাতে পারলে নিশ্চিত হয়ে যাবে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বায়ার্নের কব্জায় থাকা বুন্দেসলিগার শিরোপা। অপরদিকে শিরোপা জয়ের আশা নিয়ে কোলনের মুখোমুখি হবে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ। শিরোপো জয়ের আশা ধরে রাখতে হলে ওই ম্যাচে জয়ের কোন বিকল্প নেই ক্লাবটির। যদিও টানা ১১তম শিরোপা নিশ্চিতের জন্য শুধু জয় পেলেই হবেনা। টেবিল টপার ডর্টমুন্ডকেও হারতে হবে শেষ ম্যাচে।

এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচটি থেকে মনোযোগ না সরানোর জন্য শিষ্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ডর্টমুন্ডের কোচ এডিন টেরজিক। তিনি বলেন,‘আমরা এখনো (মিশন) শেষ করিনি। তবে একটি দল, একটি ক্লাব এবং একটি শহর হিসেবে আমরা চুড়ান্ত পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত।’
জার্গেন ক্লপের পর টেরজিককেই এযাবৎকালে ‘ডর্টমুন্ডের সেরা কোচ হিসেবে’ অভিহিত করেছে জার্মানীর জনপ্রিয় পত্রিকা জেইতুং। এমনকি বায়ার্নের কোচ থমাস টাচেলের চেয়েও ৪০ বছর বয়সি এই কোচকে এগিয়ে রেখেছে পত্রিকাটি।

২০১১-১২ মৌসুমের পর এই প্রথম ট্রফিবিহীন থাকার শংকায় পড়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। যদিও অভিজ্ঞ তারকা থমাস মুলার তাদের ভক্তদের ‘আরো এক সপ্তাহ’ ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

নিজের ১২.৮ মিলিয়ন ভক্তের অনুসরণে থাকা ইনস্টিগ্রামে মুলার লিখেছেন,‘ এখনো সবকিছু সম্ভব’।

এদিকে তালিকার চতুর্থ স্থান নিয়ে লড়াই চলছে ইউনিয়ন বার্লিন ও ফ্রেইবার্গের মধ্যে। দল দুটির পয়েন্ট সমান থাকলেও গোল ব্যবধানে সামান্য এগিয়ে রয়েছে ইউনিয়ন বার্লিন। দুটি দলই প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। শীর্ষ চারের স্থান সংহত করতে চাইলে অবশ্য শেষ ম্যাচে নিজেদের মাঠে ওয়ার্ডার ব্রেমেনের বিপক্ষে জয় পেতে হবে ইউনিয়ন বার্লিনকে। নিজ মাঠে ইউনিয়ন চলতি মৌসুমে একটি ম্যাচেও পরাজিত হয়নি।

অপরদিকে ইউনিয়নকে টপকে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার স্বপ্ন বাচিয়ে রাখতে হলে ফ্রেইবার্গকে অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেতে হবে হবে এইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে।

সবকিছু মিলিয়ে মৌসুমের শেষভাগে এসে জমে উঠেছে বুন্দেসলিগা। অপেক্ষা করছে জমজমাট লড়াইয়ের।