ঢাকা ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জামালপুরে র‌্যাবের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৫:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৫৫৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
জামালপুর র‌্যাব-১৪’র অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মিজানুর রহমান (৩৭) কে আটক করা হয়েছে। ১৭ নভেম্বর রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার পোহাতার পালশাপাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মিজানুর রহমান শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী থানার খৈলকুড়া গ্রামের মন্তাজ আলীর ছেলে।
জামালপুর র‌্যাব-১৪ সিপিসি স্কোয়াড্রন লিডার কোম্পানি কমান্ডার আশিক উজ্জামান প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানাযায়, জয়দেবপুর এলাকার গোলাম মোস্তফা আসামী মিজানুর রহমানের পিতার ভাড়াটে বাসায় থাকতেন। ২০০৮ সালের ১১ মে গোলাম মোস্তফার মাদ্রাসা পড়ুয়া ছেলে আমিনুর ইসলাম সুমন (১০) কে অপহরণ শেষে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় সুমনের পিতা জয়দেবপুর থানায় অপহরণ মামলা (নং-৪৫ (৫)/০৮ দায়ের করে। মামলার পর থেকেই আসামী আত্মগোপনে চলে যায়।
২০২৩ সালের ১৩ মার্চ বিজ্ঞ আদালতে মামলায় দীর্ঘ শুনানি ও পর্যালোচনায় সন্দেহাহীতভাবে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আসামী মিজানুর রহমানের বিরুদ্বে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ২ বছর কারাদন্ডাদেশ প্রদান করা হয়। ১৫ বছর যাবৎ আত্মগোপনে থাকা আসামী মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার শেষে ঝিনাইগাতী থানায় হস্তান্তর করা হয়।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

জামালপুরে র‌্যাবের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৭:৩৫:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২৩
জামালপুর র‌্যাব-১৪’র অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মিজানুর রহমান (৩৭) কে আটক করা হয়েছে। ১৭ নভেম্বর রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার পোহাতার পালশাপাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মিজানুর রহমান শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী থানার খৈলকুড়া গ্রামের মন্তাজ আলীর ছেলে।
জামালপুর র‌্যাব-১৪ সিপিসি স্কোয়াড্রন লিডার কোম্পানি কমান্ডার আশিক উজ্জামান প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানাযায়, জয়দেবপুর এলাকার গোলাম মোস্তফা আসামী মিজানুর রহমানের পিতার ভাড়াটে বাসায় থাকতেন। ২০০৮ সালের ১১ মে গোলাম মোস্তফার মাদ্রাসা পড়ুয়া ছেলে আমিনুর ইসলাম সুমন (১০) কে অপহরণ শেষে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় সুমনের পিতা জয়দেবপুর থানায় অপহরণ মামলা (নং-৪৫ (৫)/০৮ দায়ের করে। মামলার পর থেকেই আসামী আত্মগোপনে চলে যায়।
২০২৩ সালের ১৩ মার্চ বিজ্ঞ আদালতে মামলায় দীর্ঘ শুনানি ও পর্যালোচনায় সন্দেহাহীতভাবে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আসামী মিজানুর রহমানের বিরুদ্বে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ২ বছর কারাদন্ডাদেশ প্রদান করা হয়। ১৫ বছর যাবৎ আত্মগোপনে থাকা আসামী মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার শেষে ঝিনাইগাতী থানায় হস্তান্তর করা হয়।
বাখ//আর