ঢাকা ০৮:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জামালগঞ্জে সাধক মেন্দী শাহ এর ওরশ উদযাপন

রাজু আহমেদ রমজান, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৬:৪৯:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
মুর্শিদে মোকাম্মেল পীরে কামেল হযরত মাও. মোহাম্মদ মেন্দী শাহ (রাঃ) এর ১৮তম বাৎসরিক পবিত্র ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবছরের ন্যায় ২৮ জানুয়ারি ১৪ মাঘ জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ৬নং উত্তর জামালগঞ্জ ইউনিয়নের ঝুনুপুর গ্রামে পবিত্র এ ওরস উদযাপন করা হয়েছে। ঝুনুপুর গ্রামবাসীর আয়োজনে খাদেম আজিজুল ইসলামের বসতবাড়িতে রবিবার (২৮ জানুয়ারি) রাতভর ওরশ মাহফিল উদযাপন করা হয়।
খাদেম আজিজুল ইসলামের ভাইয়ের ছেলে স্হানীয় সমাজসেবী রুহেল মিয়া (রুয়েল) এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নীলগঞ্জ চাঁদপুর দরবার শরীফ এর মেন্দী শাহ এর বড় ছেলে মোহাম্মদ মহি উদ্দিন বিল্লাল পীরজাদা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জের সিনিয়র সাংবাদিক বাউল গবেষক, গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশা সংস্কৃতি সংসদের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক আল হেলাল, সাংবাদিক গীতিকার কন্ঠশিল্পী রাজু আহমেদ রমজান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ৬নং জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফ মিয়া। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন খাদেম আজিজুল ইসলামের পীরভাই আখের আলী, খাদেম এর বড় ভাইয়ের ছেলে শাহজাহান মিয়া, খাদেম এর বড় ছেলে শাহানুর মিয়া ও ছোট ছেলে আনছারুল ইসলামসহ গ্রামের যুবকগণ।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ টেলিভিশনে গান পরিবেশন করা জামালগঞ্জ উপজেলার খ্যাতনামা বাউল হানিফ সরকার গান পরিবেশন করেন। গান পরিবেশন করেন তাহিরপুর উপজেলার প্রখ্যাত বাউল গীতিকার উদাসী রহিম, সাংবাদিক আল হেলাল, প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে দ্বিতীয়বার আর্থিক অনুদানপ্রাপ্ত সাংবাদিক গীতিকার রাজু আহমেদ রমজান, দিরাই উপজেলার উদীয়মান কন্ঠশিল্পী পুর্নিমা আক্তার ও তার ছোটবোন কুলসুমা আক্তার। এছাড়া স্হানীয় বাউলদের গানে গানে মিলনমেলায় পরিনত হয় ওরস উৎসব। মিউজিকে ছিলেন তাহিরপুর উপজেলার আনোয়ারপুর গ্রামের বাসিন্দা ফারুক আহমেদ (কিবোর্ড) এর নেতৃত্বে টিম। এরমধ্যে বাঁশি’তে একই উপজেলার নয়াবন্দ গ্রামের বাসিন্দা তৌফিক মিয়া, পেডে ছিলেন বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার নতুন পাড়ার বাসিন্দা হৃদয় এবং ঢোল এ ছিলেন একই উপজেলার পলাশ ইউনিয়নের মল্লিকপুর গ্রামের বাসিন্দা খোকন মিয়া। খাদেম আজিজুল ইসলাম এর ছেলে আনছারুল ইসলাম বলেন, প্রতিবছর দিবসটি উপলক্ষে বাৎসরিক ওরস মাহফিলের আয়োজন করেন আমার বাবা। যতদিন বেঁচে থাকবেন ততোদিন দিবসটি উদযাপন করা হবে এমনকি আমরা যারা পিতার অনুসারী আছি আমৃত্যু তা উদযাপন করব ইনশাআল্লাহ।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

জামালগঞ্জে সাধক মেন্দী শাহ এর ওরশ উদযাপন

আপডেট সময় : ০৬:৪৯:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৪
মুর্শিদে মোকাম্মেল পীরে কামেল হযরত মাও. মোহাম্মদ মেন্দী শাহ (রাঃ) এর ১৮তম বাৎসরিক পবিত্র ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবছরের ন্যায় ২৮ জানুয়ারি ১৪ মাঘ জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ৬নং উত্তর জামালগঞ্জ ইউনিয়নের ঝুনুপুর গ্রামে পবিত্র এ ওরস উদযাপন করা হয়েছে। ঝুনুপুর গ্রামবাসীর আয়োজনে খাদেম আজিজুল ইসলামের বসতবাড়িতে রবিবার (২৮ জানুয়ারি) রাতভর ওরশ মাহফিল উদযাপন করা হয়।
খাদেম আজিজুল ইসলামের ভাইয়ের ছেলে স্হানীয় সমাজসেবী রুহেল মিয়া (রুয়েল) এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নীলগঞ্জ চাঁদপুর দরবার শরীফ এর মেন্দী শাহ এর বড় ছেলে মোহাম্মদ মহি উদ্দিন বিল্লাল পীরজাদা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জের সিনিয়র সাংবাদিক বাউল গবেষক, গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশা সংস্কৃতি সংসদের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক আল হেলাল, সাংবাদিক গীতিকার কন্ঠশিল্পী রাজু আহমেদ রমজান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ৬নং জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফ মিয়া। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন খাদেম আজিজুল ইসলামের পীরভাই আখের আলী, খাদেম এর বড় ভাইয়ের ছেলে শাহজাহান মিয়া, খাদেম এর বড় ছেলে শাহানুর মিয়া ও ছোট ছেলে আনছারুল ইসলামসহ গ্রামের যুবকগণ।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ টেলিভিশনে গান পরিবেশন করা জামালগঞ্জ উপজেলার খ্যাতনামা বাউল হানিফ সরকার গান পরিবেশন করেন। গান পরিবেশন করেন তাহিরপুর উপজেলার প্রখ্যাত বাউল গীতিকার উদাসী রহিম, সাংবাদিক আল হেলাল, প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে দ্বিতীয়বার আর্থিক অনুদানপ্রাপ্ত সাংবাদিক গীতিকার রাজু আহমেদ রমজান, দিরাই উপজেলার উদীয়মান কন্ঠশিল্পী পুর্নিমা আক্তার ও তার ছোটবোন কুলসুমা আক্তার। এছাড়া স্হানীয় বাউলদের গানে গানে মিলনমেলায় পরিনত হয় ওরস উৎসব। মিউজিকে ছিলেন তাহিরপুর উপজেলার আনোয়ারপুর গ্রামের বাসিন্দা ফারুক আহমেদ (কিবোর্ড) এর নেতৃত্বে টিম। এরমধ্যে বাঁশি’তে একই উপজেলার নয়াবন্দ গ্রামের বাসিন্দা তৌফিক মিয়া, পেডে ছিলেন বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার নতুন পাড়ার বাসিন্দা হৃদয় এবং ঢোল এ ছিলেন একই উপজেলার পলাশ ইউনিয়নের মল্লিকপুর গ্রামের বাসিন্দা খোকন মিয়া। খাদেম আজিজুল ইসলাম এর ছেলে আনছারুল ইসলাম বলেন, প্রতিবছর দিবসটি উপলক্ষে বাৎসরিক ওরস মাহফিলের আয়োজন করেন আমার বাবা। যতদিন বেঁচে থাকবেন ততোদিন দিবসটি উদযাপন করা হবে এমনকি আমরা যারা পিতার অনুসারী আছি আমৃত্যু তা উদযাপন করব ইনশাআল্লাহ।
বাখ//আর