ঢাকা ১২:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

চৌহালীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে সাংবাদিক লাঞ্চিত, থানায় অভিযোগ

চৌহালী( সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:১৭:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
  • / ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে পর্যবেক্ষক কার্ড আনতে যাওয়ার পথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইয়ের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন দুই সাংবাদিক।
মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে উপজেলার কুর্কি বেবিষ্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। লাঞ্চিত সাংবাদিকরা হলেন, কালবেলা ও এশিয়ান টেলিভিশনের চৌহালী প্রতিনিধি ইমরান হোসেন আপন ও দৈনিক দেশবাংলার চৌহালী প্রতিনিধি আল ইমরান মনু।
অভিযুক্ত ভিপি রবিউল চৌহালী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোল্লা বাবুল আক্তারের চাচাতো ভাই।  সাংবাদিক ইমরান হোসেন আপন জানান, আমরা দুজন উপজেলা নির্বাচনের সাংবাদিক পর্যবেক্ষক কার্ডের জন্য উপজেলা পরিষদে যাচ্ছিলাম।
কুর্কি বেবিষ্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছলে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোল্লা বাবুল আক্তারের চাচাতো ভাই ভিপি রবিউল আমাদের পথরোধ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এক পর্যায়ে কলার টেনে ধরে এবং ঘার ধাক্কা দিয়ে আমাকে ফেলে দেয়।
আমার সাথে থাকা আল ইমরান মনুকেও মারতে উদ্যত হন রবিউল। উল্লেখ্য, উপজেলা নির্বাচনের পূর্বে এমন ঘটনায় নিন্দার ঝড় বইছে পুরো উপজেলার জুড়ে।আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে অনেক নেটিজনরা।
চৌহালী থানার ওসি শ্যামল কুমার দত্ত জানান, দুই সাংবাদিককে লাঞ্চিত করার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ভিপি রবিউলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

চৌহালীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে সাংবাদিক লাঞ্চিত, থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ১১:১৭:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে পর্যবেক্ষক কার্ড আনতে যাওয়ার পথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইয়ের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন দুই সাংবাদিক।
মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে উপজেলার কুর্কি বেবিষ্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। লাঞ্চিত সাংবাদিকরা হলেন, কালবেলা ও এশিয়ান টেলিভিশনের চৌহালী প্রতিনিধি ইমরান হোসেন আপন ও দৈনিক দেশবাংলার চৌহালী প্রতিনিধি আল ইমরান মনু।
অভিযুক্ত ভিপি রবিউল চৌহালী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোল্লা বাবুল আক্তারের চাচাতো ভাই।  সাংবাদিক ইমরান হোসেন আপন জানান, আমরা দুজন উপজেলা নির্বাচনের সাংবাদিক পর্যবেক্ষক কার্ডের জন্য উপজেলা পরিষদে যাচ্ছিলাম।
কুর্কি বেবিষ্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছলে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোল্লা বাবুল আক্তারের চাচাতো ভাই ভিপি রবিউল আমাদের পথরোধ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এক পর্যায়ে কলার টেনে ধরে এবং ঘার ধাক্কা দিয়ে আমাকে ফেলে দেয়।
আমার সাথে থাকা আল ইমরান মনুকেও মারতে উদ্যত হন রবিউল। উল্লেখ্য, উপজেলা নির্বাচনের পূর্বে এমন ঘটনায় নিন্দার ঝড় বইছে পুরো উপজেলার জুড়ে।আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে অনেক নেটিজনরা।
চৌহালী থানার ওসি শ্যামল কুমার দত্ত জানান, দুই সাংবাদিককে লাঞ্চিত করার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ভিপি রবিউলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
বাখ//আর