ঢাকা ১২:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

চিলমারীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৯:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :
কুড়িগ্রামের চিলমারীতে এক বীরমুক্তিযোদ্ধাকে দা দিয়ে কোপালেন প্রতিপক্ষ। হত্যার উদ্দেশে এই হামলা করা হয়েছে দাবি পরিবারের। মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। আটক ১।
জানা গেছে, উপজেলার শামছ পাড়া টিএনটি এলাকার বীর মুুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের সাথে পাশ্ববর্তী সাজু মিয়ার রাস্তা ও জমি নিয়ে র্দীঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। ইতিপূর্বে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও রাস্তা নিয়ে বেশ কয়েকবার সংঘর্ষ এবং বৈঠক হয়। কিন্তু এর জের রয়েই যায়। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার বিকালে মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিন ও তার ভাই বাড়ির সীমানায় বেড়া দিতে গেলে বাঁধা প্রদান করেন সাজু মিয়ার স্ত্রী কনা বেগম। এ সময় বাঁধা না মানায় বাহাল উদ্দিনের হাতে কামড়ে ধরে কনা বেগম অনেক কষ্টে নিজেকে রক্ষা করে বলে জানান বাহাল উদ্দিন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয় সাজু মিয়াও। এসময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাজু মিয়ার সহযোগীতায় তার স্ত্রী কনা বেগম দা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের মাথায় কোপ মারলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি তা জানান, তার ভাই বজরুল ইসলাম। এসময় তাদের চিৎকারে আশপাশের মানুষজন ছুটে আসে এবং দ্রুত বাহাল উদ্দিনকে চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই বাহাল উদ্দিনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের স্ত্রী বলেন, র্দীঘদিন থেকে সাজু আমাদের জমি দখল করে আছে, তাদের বের হওয়ার রাস্তা ছিল না আমরা সেটিও দিয়েছি এরপরেও তারা বিভিন্ন ভাবে আমাদের হুমকি দিয়ে আসছে এবং আমাদেরকে সীমানায় বেড়া বা প্রাচীর দিতে দিচ্ছেনা। ঘটনারদিন বৃহস্পতিবার নিরাপত্তার জন্য আমার স্বামী ও তার ভাই আমাদের সীমানায় বেড়া দিতে গেলে সাজুর স্ত্রী অকথ্য ভাষার গালি দেয় এবং হঠাতেই হামলা করে হত্যার উদ্দেশে দা দিয়ে মাথায় কোপ মারে, এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন, পরে আশপাশের মানুষের সহযোগীতায় তাঁকে হাসপাতালে নেয়া হয়।
এ বিষয়ে সাজু মিয়া জানান, ঘটনার জের ধরে তারা আমার উপর হামলা চালায় এবং তারা আমাদেরকে সব সময় ক্ষমতার ভয় দেখায়।
চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতিকুর রহমান বলেন, খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয় এবং কনা বেগম নামে ১জন মহিলাকে আটক করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

চিলমারীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ

আপডেট সময় : ০৭:৪৯:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২২
চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :
কুড়িগ্রামের চিলমারীতে এক বীরমুক্তিযোদ্ধাকে দা দিয়ে কোপালেন প্রতিপক্ষ। হত্যার উদ্দেশে এই হামলা করা হয়েছে দাবি পরিবারের। মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। আটক ১।
জানা গেছে, উপজেলার শামছ পাড়া টিএনটি এলাকার বীর মুুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের সাথে পাশ্ববর্তী সাজু মিয়ার রাস্তা ও জমি নিয়ে র্দীঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। ইতিপূর্বে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও রাস্তা নিয়ে বেশ কয়েকবার সংঘর্ষ এবং বৈঠক হয়। কিন্তু এর জের রয়েই যায়। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার বিকালে মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিন ও তার ভাই বাড়ির সীমানায় বেড়া দিতে গেলে বাঁধা প্রদান করেন সাজু মিয়ার স্ত্রী কনা বেগম। এ সময় বাঁধা না মানায় বাহাল উদ্দিনের হাতে কামড়ে ধরে কনা বেগম অনেক কষ্টে নিজেকে রক্ষা করে বলে জানান বাহাল উদ্দিন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয় সাজু মিয়াও। এসময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাজু মিয়ার সহযোগীতায় তার স্ত্রী কনা বেগম দা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের মাথায় কোপ মারলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি তা জানান, তার ভাই বজরুল ইসলাম। এসময় তাদের চিৎকারে আশপাশের মানুষজন ছুটে আসে এবং দ্রুত বাহাল উদ্দিনকে চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই বাহাল উদ্দিনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহাল উদ্দিনের স্ত্রী বলেন, র্দীঘদিন থেকে সাজু আমাদের জমি দখল করে আছে, তাদের বের হওয়ার রাস্তা ছিল না আমরা সেটিও দিয়েছি এরপরেও তারা বিভিন্ন ভাবে আমাদের হুমকি দিয়ে আসছে এবং আমাদেরকে সীমানায় বেড়া বা প্রাচীর দিতে দিচ্ছেনা। ঘটনারদিন বৃহস্পতিবার নিরাপত্তার জন্য আমার স্বামী ও তার ভাই আমাদের সীমানায় বেড়া দিতে গেলে সাজুর স্ত্রী অকথ্য ভাষার গালি দেয় এবং হঠাতেই হামলা করে হত্যার উদ্দেশে দা দিয়ে মাথায় কোপ মারে, এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন, পরে আশপাশের মানুষের সহযোগীতায় তাঁকে হাসপাতালে নেয়া হয়।
এ বিষয়ে সাজু মিয়া জানান, ঘটনার জের ধরে তারা আমার উপর হামলা চালায় এবং তারা আমাদেরকে সব সময় ক্ষমতার ভয় দেখায়।
চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতিকুর রহমান বলেন, খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয় এবং কনা বেগম নামে ১জন মহিলাকে আটক করা হয়েছে।