ঢাকা ১২:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

চিনি বাজার থেকেই উধাও

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:০২:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৪৪ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
দফায় দফায় দাম বাড়ার পরও বাজারে দেখা দিয়েছে চিনির সঙ্কট। কোনো কোনো দোকানে চিনি পাওয়া গেলেও, সেখানে দাম রাখা হচ্ছে রেকর্ডসম।
এবার বাজার থেকেই উধাও চিনি!

আজ শুক্রবার (২১ অক্টোবর) রাজধানীর কারওয়ানবাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

তিন দফায় বেড়ে খুচরা বাজারে চিনি বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা পর্যন্ত, যা গেল সপ্তাহেও বিক্রি হয়েছে ৯০ থেকে ৯৫ টাকায়।

কারওয়ানবাজারের বিক্রেতারা জানান, এক কেজি খোলা চিনির দাম ৯০ টাকা বেঁধে দেয়া হলেও কিনতে গেলেই বর্তমানে দাম পড়ছে ১০২ থেকে ১০৪ টাকা। তাই তারা বিক্রি করছেন না এই পণ্যটি। এতোদিন প্যাকেটজাত চিনি পাওয়া গেলেও এখন এই চিনির সঙ্কট দেখা দিয়েছে, বাজারে নেই বলে দাবি বিক্রেতাদের।

এদিকে, লাগাতার কমতে থাকা খোলা সয়াবিন ও পামতেলের দাম আবার বাড়তে শুরু করেছে।

গত সপ্তাহে যে মানের খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হতো ১৫৬ থেকে ১৫৮ টাকা লিটার হিসেবে শুক্রবার তা বিক্রি হচ্ছে ১৬২ টাকায়। পাম তেলের দাম লিটারে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১১৫ থেকে ১১৮ টাকায়।

তবে, স্থিতিশীল চালের দাম। কমতির কথা জানিয়েছেন বিক্রেতারা। টানা দুই সপ্তাহ বৃদ্ধির পর কমেছে মুরগির দামও।

দুই সপ্তাহ মুরগির দাম কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা বৃদ্ধির পর এবার ১০ টাকা কমেছে বলে জানান বিক্রেতারা।

ক্রেতা-বিক্রেতারা জানান, ভরপুর রঙিন সবজি বাজারে রয়েছে দাম কমতির স্বস্তি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

চিনি বাজার থেকেই উধাও

আপডেট সময় : ০১:০২:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
দফায় দফায় দাম বাড়ার পরও বাজারে দেখা দিয়েছে চিনির সঙ্কট। কোনো কোনো দোকানে চিনি পাওয়া গেলেও, সেখানে দাম রাখা হচ্ছে রেকর্ডসম।
এবার বাজার থেকেই উধাও চিনি!

আজ শুক্রবার (২১ অক্টোবর) রাজধানীর কারওয়ানবাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

তিন দফায় বেড়ে খুচরা বাজারে চিনি বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা পর্যন্ত, যা গেল সপ্তাহেও বিক্রি হয়েছে ৯০ থেকে ৯৫ টাকায়।

কারওয়ানবাজারের বিক্রেতারা জানান, এক কেজি খোলা চিনির দাম ৯০ টাকা বেঁধে দেয়া হলেও কিনতে গেলেই বর্তমানে দাম পড়ছে ১০২ থেকে ১০৪ টাকা। তাই তারা বিক্রি করছেন না এই পণ্যটি। এতোদিন প্যাকেটজাত চিনি পাওয়া গেলেও এখন এই চিনির সঙ্কট দেখা দিয়েছে, বাজারে নেই বলে দাবি বিক্রেতাদের।

এদিকে, লাগাতার কমতে থাকা খোলা সয়াবিন ও পামতেলের দাম আবার বাড়তে শুরু করেছে।

গত সপ্তাহে যে মানের খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হতো ১৫৬ থেকে ১৫৮ টাকা লিটার হিসেবে শুক্রবার তা বিক্রি হচ্ছে ১৬২ টাকায়। পাম তেলের দাম লিটারে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১১৫ থেকে ১১৮ টাকায়।

তবে, স্থিতিশীল চালের দাম। কমতির কথা জানিয়েছেন বিক্রেতারা। টানা দুই সপ্তাহ বৃদ্ধির পর কমেছে মুরগির দামও।

দুই সপ্তাহ মুরগির দাম কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা বৃদ্ধির পর এবার ১০ টাকা কমেছে বলে জানান বিক্রেতারা।

ক্রেতা-বিক্রেতারা জানান, ভরপুর রঙিন সবজি বাজারে রয়েছে দাম কমতির স্বস্তি।