ঢাকা ০২:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

চাঁদে রেলপথ নির্মাণে আমেরিকা সরকারের অনুমোদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৭:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪
  • / ৫৩৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চাঁদে রেল নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনায় অনুমোদন দিয়েছে আমেরিকা সরকার। আগামী দশকে ধারণাটিকে বাস্তবে রূপান্তরের জন্য পরিকল্পনাটির যৌথ উদ্যোক্তা হিসেবে আর্থিক সহায়তা দেবে আমেরিকার ডিফেন্স অ্যাডভান্সড রিসার্চ প্রজেক্টস এজেন্সি (ডারপা)। গত বছর এ প্রস্তাবটি এসেছিল মার্কিন অ্যারোস্পেস কোম্পানি নর্থরোপ গ্রাম্যানের পক্ষ থেকে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইনডিপেনডেন্ট জানায়, চাঁদ নিয়ে ডারপা’র ১০ বছর মেয়াদী একটি পরিকল্পনার অংশ এটি। ভবিষ্যতে চাঁদের অর্থনীতিকে সমর্থন করা এর লক্ষ্য।

বিশ্বের বিভিন্ন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা চাঁদে নিজেদের স্থায়ী উপস্থিতি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছে। এ দশক শেষ হওয়ার আগেই চাঁদে নিজস্ব ঘাঁটি গড়ে তুলতে এরইমধ্যে বিভিন্ন প্রকল্প চালু করেছে আমেরিকা ও চীন। এছাড়া আর্টেমিস মিশনের মাধ্যমে চাঁদে পুনরায় মানুষ পাঠানোর লক্ষ্যে কাজ করছে নাসা।

নর্থরোপ গ্রাম্যান এক বিবৃতিতে জানায়, পরিকল্পিত এ রেলপথ নেটওয়ার্কটি চন্দ্রপৃষ্ঠজুড়ে বাণিজ্যিক উদ্যোগ বাস্তবায়নের জন্য মানুষ, পণ্য ও বিভিন্ন সম্পদ পরিবহন করতে পারবে। এটি আমেরিকা ও এর আন্তর্জাতিক অংশীদারদের পরিকল্পিত মহাকাশ অর্থনীতিতে অবদান রাখবে।

লুনার আর্কিটেকচার ক্যাপাবিলিটি স্টাডি (লুনা-১০) প্রকল্পে বাছাই হওয়ার পর কোম্পানিটি এখন চাঁদের পৃষ্ঠে পুরোপুরি কাজ করবে এমন এক রেল ব্যবস্থার প্রোটোটাইপ তৈরির কাজ করছে। এছাড়া চাঁদে একটি ট্রেন নেটওয়ার্ক নির্মাণ, পরিচালনা ও মেরামতের বিভিন্ন উপায় পরীক্ষা করে দেখবে কোম্পানিটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

চাঁদে রেলপথ নির্মাণে আমেরিকা সরকারের অনুমোদন

আপডেট সময় : ০১:৫৭:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

চাঁদে রেল নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনায় অনুমোদন দিয়েছে আমেরিকা সরকার। আগামী দশকে ধারণাটিকে বাস্তবে রূপান্তরের জন্য পরিকল্পনাটির যৌথ উদ্যোক্তা হিসেবে আর্থিক সহায়তা দেবে আমেরিকার ডিফেন্স অ্যাডভান্সড রিসার্চ প্রজেক্টস এজেন্সি (ডারপা)। গত বছর এ প্রস্তাবটি এসেছিল মার্কিন অ্যারোস্পেস কোম্পানি নর্থরোপ গ্রাম্যানের পক্ষ থেকে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইনডিপেনডেন্ট জানায়, চাঁদ নিয়ে ডারপা’র ১০ বছর মেয়াদী একটি পরিকল্পনার অংশ এটি। ভবিষ্যতে চাঁদের অর্থনীতিকে সমর্থন করা এর লক্ষ্য।

বিশ্বের বিভিন্ন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা চাঁদে নিজেদের স্থায়ী উপস্থিতি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছে। এ দশক শেষ হওয়ার আগেই চাঁদে নিজস্ব ঘাঁটি গড়ে তুলতে এরইমধ্যে বিভিন্ন প্রকল্প চালু করেছে আমেরিকা ও চীন। এছাড়া আর্টেমিস মিশনের মাধ্যমে চাঁদে পুনরায় মানুষ পাঠানোর লক্ষ্যে কাজ করছে নাসা।

নর্থরোপ গ্রাম্যান এক বিবৃতিতে জানায়, পরিকল্পিত এ রেলপথ নেটওয়ার্কটি চন্দ্রপৃষ্ঠজুড়ে বাণিজ্যিক উদ্যোগ বাস্তবায়নের জন্য মানুষ, পণ্য ও বিভিন্ন সম্পদ পরিবহন করতে পারবে। এটি আমেরিকা ও এর আন্তর্জাতিক অংশীদারদের পরিকল্পিত মহাকাশ অর্থনীতিতে অবদান রাখবে।

লুনার আর্কিটেকচার ক্যাপাবিলিটি স্টাডি (লুনা-১০) প্রকল্পে বাছাই হওয়ার পর কোম্পানিটি এখন চাঁদের পৃষ্ঠে পুরোপুরি কাজ করবে এমন এক রেল ব্যবস্থার প্রোটোটাইপ তৈরির কাজ করছে। এছাড়া চাঁদে একটি ট্রেন নেটওয়ার্ক নির্মাণ, পরিচালনা ও মেরামতের বিভিন্ন উপায় পরীক্ষা করে দেখবে কোম্পানিটি।