ঢাকা ০৪:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ মোকাবিলায় নাজিরপুরে ৪৮টি আশ্রয়কেন্দ্র ও জরুরী মেডিকেল টিম প্রস্তুত

এস এম জাহিদুল হক, নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৫৫:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪
  • / ৪৪২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রস্তুতিমূলক  সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০ টায় উপজেলা হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতিমা আজরিন তন্বীর সভাপতিত্বে উপজেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার এবং বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিক পত্রিকার সাংবাদিকসহ রেডক্রিসেন্টের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় নাজিরপুর উপজেলায় ৪৮ টি আশ্রয়কেন্দ্রে প্রস্তুত রাখা হয়েছে, জরুরী মেডিকেল টিমসহ ৩ টি উপকমিটি গঠন ও তদানুযায়ী দায়িত্ব বণ্টন করা হয়েছে।

এ ছাড়া উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় শুকনা খাবার যেমন চিড়া, মুড়ি এবং মোমবাতি, দিয়াশলাই, গুড় ইত্যাদি মজুত রাখা হয়েছে এবং আশ্রয়োন কেন্দ্র যদি গবাদি পশু নিয়ে আসা হয় তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আবহাওয়ার সংকেত বৃদ্ধি পেলে জনসাধারণকে সরিয়ে নিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ মোকাবিলায় নাজিরপুরে ৪৮টি আশ্রয়কেন্দ্র ও জরুরী মেডিকেল টিম প্রস্তুত

আপডেট সময় : ১১:৫৫:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রস্তুতিমূলক  সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০ টায় উপজেলা হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতিমা আজরিন তন্বীর সভাপতিত্বে উপজেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার এবং বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিক পত্রিকার সাংবাদিকসহ রেডক্রিসেন্টের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় নাজিরপুর উপজেলায় ৪৮ টি আশ্রয়কেন্দ্রে প্রস্তুত রাখা হয়েছে, জরুরী মেডিকেল টিমসহ ৩ টি উপকমিটি গঠন ও তদানুযায়ী দায়িত্ব বণ্টন করা হয়েছে।

এ ছাড়া উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় শুকনা খাবার যেমন চিড়া, মুড়ি এবং মোমবাতি, দিয়াশলাই, গুড় ইত্যাদি মজুত রাখা হয়েছে এবং আশ্রয়োন কেন্দ্র যদি গবাদি পশু নিয়ে আসা হয় তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আবহাওয়ার সংকেত বৃদ্ধি পেলে জনসাধারণকে সরিয়ে নিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

 

বাখ//আর