ঢাকা ০৯:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষে নিহত ২ :: ঢাকা কলেজের সামনে সংঘর্ষে যুবক নিহত :: রংপুরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বেরোবি শিক্ষার্থী নিহত :: ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন :: রণক্ষেত্র মহাখালী, পুলিশ বক্সের সামনে দুটি মোটরসাইকেলে আগুন :: চার শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ, উত্তাল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা :: আজও ছাত্রলীগের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, রণক্ষেত্র ঢাবি

গোদাগাড়ীতে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৮:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
  • / ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
গোদাগাড়ী উপজেলা সন্মেলন কক্ষে সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ বেলাল উদ্দীন সোহেল, বিশেষ অতিথি হিসেবে ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল সরকার,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খাতুন মিলি সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অশোক কুমার চৌধুরী, বাসুদেবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলামসহ জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, দপ্তরের প্রধানগণ সুধিজন উপস্থিত ছিলেন।
বক্তাগণ গুরুত্বপূর্ন মতামত প্রদান করেন সন্ত্রাস বিরোধী কার্যক্রম মাথা চাড়া দিতে না পারে এজন্য প্রশাসন, পুলিশ, রাজনৈতিক নেতা সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে।
গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি মোঃ আব্দুল মতিন বলেন, গ্রাম পুলিশকে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার না করার ব্যপারে নির্দেশনা দেয়া হয়। গোদাগাড়ী থানায় ১ টি খুনসহ ৬১ মামলা হয়েছে এগুলির মধ্যে বেশীর ভাগই মাদক মামলা হয়েছে। বিজিবির ক্যাম্পে গরু নিয়ে গিয়ে নিবন্ধন করতে হয়, এটা গরু পালনকারীদের নিকট খুবই কষ্টকর। এটা উদ্ধোর্তন কতৃপক্ষের নিকট আলোচনা করে বিজিবিকে বিষয়টি সুরাহা করার পরামার্শ দেয়া হয়।
অন্যান্য বক্তাগণ বলেন, মাদক বিরোধী অভিযান করলে মাদক গডফাদাররেরা আপনার বিরুদ্ধে লাগবে। মাদক ব্যবসায়ীরা খুবই শক্তিশালি মাদক ব্যবসা করে বীর দাপটে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু পুলিশ তাদের ধরেন না কেন?পুলিশ, বিজিপি, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন বাহনীর নিকট মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা আছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে না কেন? তাদের গ্রেফতার করা হলে, কোন তদবির করা হবে না বক্তরা জানান, প্রধান মন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন। এতে প্রমান হয় মাদকের পক্ষে কেউ নেই।
সীমান্ত এলাকায় কাঁটা তারের বেড়া থাকা শর্তেও হেরোইন, ফেনসিডিল, মদসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য আসে কি করে। সবাকে আরও আন্তরিক ও সচেতন আরও হলে কোন মাদকদ্রব্য দেশে আসবে না।
এদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ করে গড়ে তোলা হলে মাদক অনেক অংশে কমে আসবে। ক্রিকেট জুয়াড়ি, বাল্যবিয়ে, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে  কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশনা দেয়া।
মাটিকাট ইউপআমার ইউপি এলাকায় হেরোইন, ইয়াবা, মাদক ইদানিং ব্যপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে, বিদিরপুর ক্লাবে মাদকের হাট বসে, মাদক ব্যবসায়ীরা বিদিরপুর ক্যাম্পে মাদক ব্যবসায়ীরা মিনি চেকপোষ্ট বসায় ফলে বিজিপি মাদক ধরতে পারবেন না। মাদক আসে সীমান্ত দিয়ে, বিজিপি সজাগ থাকলে ৯০ ভাগ মাদক আসা বন্ধ হয়ে যাবে। মাদক ব্যবসা কমে যাবে।
গোদাগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসিদুল গনি বলেন, আমাদের গ্রাম পুলিশের ব্যপারে পাঠানো তালিকা ওসি সাহেব ছিঁড়ে ফেলেছেন। এব্যপারে হাউজ উপ্তাপ্ত হয়। সভাপতি উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলাম নির্দেশনায় পরিবেশ ঠান্ডা হয়। সকল দপ্তর মানুষের কল্যাণে কাজ করেন। দেশের উন্নয়নে সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে।
উপজেলার বসুদেবপুর, মাদারপুর, গোপালপুর মিষ্টির দোকানের সামনে হিরোইন, ইয়াবা, ফেনসিডিলের কারবার চলে এছাড়া রাজাবাড়ী, প্রেমতলী হাসপাতাল এলাকা, রেলবাজার মনির হোটেল, কসাইপাড়া, মহিশালবাড়ী গরুরহাট, সুলতানগজ্ঞ, ফিরোজচত্তর, সুলতানগজ্ঞ, বাসুদেবপুর, পিরিজপুর, কুমুরপুর, মাদারপুর, শিবসাগর প্রভূতি এলাকায় অবাদে হোরোইন, ফেনসিডিল, ইয়াবা, গাঁজাসহ বিভিন্নধরের মাদকসেবন, বেচাবিক্রিসহ ছোটবড় অপরাধ হয়। ওই স্থানে অভিযান ও মোবাইল কোর্টসহ মাদকব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়া প্রয়োজন।
বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বলেন, গোদাগাড়ীর আইনশৃঙ্খলা ভালই আছে, তবে আরও ভাল রাখার জন্য উপজেলার  পুলিশ, বিজিপি, সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় নেতৃবৃন্দের অনেক সচেতন হতে হবে। গোদাগাড়ীর একটাই বদনাম মাদক, হিরোইন, ইয়াবা, ফেনসিডিল,গাঁজাসহ বিভিন্ন ধরণের মাদক ব্যবসায়ী গডফাদার এখানে রয়েছে। গোদাগাড়ীতে পুলিশের তালিকাভুক্ত ১৭৩ জন মাদকব্যসায়ী রযেছে। তাদেরকে গ্রেফতার করলে মাদক ব্যবসা কমে আসে। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন তাই কোনভাবে মাদক ব্যবসায়ীরা যেন কোনভাবে  পার পেতে না পারেন সেজন্য তাদের বিরুদ্ধে শক্ত মামলা, চার্জসীট প্রদান করতে হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দীন সোহেল বলেন, গোদাগাড়ীর দূর- দূরাত্বের মানুষ যেন কষ্ট না পাই সেদিকে সবাইকে নজর দেন। সুলতানগজ্ঞ মোড়ে কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা  ঝুঁকিপূর্ণভাবে পারাপার হয় সেখানে একজন ট্রাফিক পুলিশ কে দায়িত্ব দেয়ার কথা বলেন। দেওপাড়া ইউনিয়নের ড্রাইভারের বেতন ভাতা আমি দিতাম, আমি দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার পর থেকে এম্বুলেন্সটি বন্ধ হয়ে গেছে।  গোগ্রাম ও দেওপাড়া ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

গোদাগাড়ীতে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৩:৫৮:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
গোদাগাড়ী উপজেলা সন্মেলন কক্ষে সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ বেলাল উদ্দীন সোহেল, বিশেষ অতিথি হিসেবে ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল সরকার,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খাতুন মিলি সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অশোক কুমার চৌধুরী, বাসুদেবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলামসহ জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, দপ্তরের প্রধানগণ সুধিজন উপস্থিত ছিলেন।
বক্তাগণ গুরুত্বপূর্ন মতামত প্রদান করেন সন্ত্রাস বিরোধী কার্যক্রম মাথা চাড়া দিতে না পারে এজন্য প্রশাসন, পুলিশ, রাজনৈতিক নেতা সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে।
গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি মোঃ আব্দুল মতিন বলেন, গ্রাম পুলিশকে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার না করার ব্যপারে নির্দেশনা দেয়া হয়। গোদাগাড়ী থানায় ১ টি খুনসহ ৬১ মামলা হয়েছে এগুলির মধ্যে বেশীর ভাগই মাদক মামলা হয়েছে। বিজিবির ক্যাম্পে গরু নিয়ে গিয়ে নিবন্ধন করতে হয়, এটা গরু পালনকারীদের নিকট খুবই কষ্টকর। এটা উদ্ধোর্তন কতৃপক্ষের নিকট আলোচনা করে বিজিবিকে বিষয়টি সুরাহা করার পরামার্শ দেয়া হয়।
অন্যান্য বক্তাগণ বলেন, মাদক বিরোধী অভিযান করলে মাদক গডফাদাররেরা আপনার বিরুদ্ধে লাগবে। মাদক ব্যবসায়ীরা খুবই শক্তিশালি মাদক ব্যবসা করে বীর দাপটে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু পুলিশ তাদের ধরেন না কেন?পুলিশ, বিজিপি, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন বাহনীর নিকট মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা আছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে না কেন? তাদের গ্রেফতার করা হলে, কোন তদবির করা হবে না বক্তরা জানান, প্রধান মন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন। এতে প্রমান হয় মাদকের পক্ষে কেউ নেই।
সীমান্ত এলাকায় কাঁটা তারের বেড়া থাকা শর্তেও হেরোইন, ফেনসিডিল, মদসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য আসে কি করে। সবাকে আরও আন্তরিক ও সচেতন আরও হলে কোন মাদকদ্রব্য দেশে আসবে না।
এদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ করে গড়ে তোলা হলে মাদক অনেক অংশে কমে আসবে। ক্রিকেট জুয়াড়ি, বাল্যবিয়ে, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে  কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশনা দেয়া।
মাটিকাট ইউপআমার ইউপি এলাকায় হেরোইন, ইয়াবা, মাদক ইদানিং ব্যপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে, বিদিরপুর ক্লাবে মাদকের হাট বসে, মাদক ব্যবসায়ীরা বিদিরপুর ক্যাম্পে মাদক ব্যবসায়ীরা মিনি চেকপোষ্ট বসায় ফলে বিজিপি মাদক ধরতে পারবেন না। মাদক আসে সীমান্ত দিয়ে, বিজিপি সজাগ থাকলে ৯০ ভাগ মাদক আসা বন্ধ হয়ে যাবে। মাদক ব্যবসা কমে যাবে।
গোদাগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসিদুল গনি বলেন, আমাদের গ্রাম পুলিশের ব্যপারে পাঠানো তালিকা ওসি সাহেব ছিঁড়ে ফেলেছেন। এব্যপারে হাউজ উপ্তাপ্ত হয়। সভাপতি উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলাম নির্দেশনায় পরিবেশ ঠান্ডা হয়। সকল দপ্তর মানুষের কল্যাণে কাজ করেন। দেশের উন্নয়নে সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে।
উপজেলার বসুদেবপুর, মাদারপুর, গোপালপুর মিষ্টির দোকানের সামনে হিরোইন, ইয়াবা, ফেনসিডিলের কারবার চলে এছাড়া রাজাবাড়ী, প্রেমতলী হাসপাতাল এলাকা, রেলবাজার মনির হোটেল, কসাইপাড়া, মহিশালবাড়ী গরুরহাট, সুলতানগজ্ঞ, ফিরোজচত্তর, সুলতানগজ্ঞ, বাসুদেবপুর, পিরিজপুর, কুমুরপুর, মাদারপুর, শিবসাগর প্রভূতি এলাকায় অবাদে হোরোইন, ফেনসিডিল, ইয়াবা, গাঁজাসহ বিভিন্নধরের মাদকসেবন, বেচাবিক্রিসহ ছোটবড় অপরাধ হয়। ওই স্থানে অভিযান ও মোবাইল কোর্টসহ মাদকব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়া প্রয়োজন।
বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বলেন, গোদাগাড়ীর আইনশৃঙ্খলা ভালই আছে, তবে আরও ভাল রাখার জন্য উপজেলার  পুলিশ, বিজিপি, সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় নেতৃবৃন্দের অনেক সচেতন হতে হবে। গোদাগাড়ীর একটাই বদনাম মাদক, হিরোইন, ইয়াবা, ফেনসিডিল,গাঁজাসহ বিভিন্ন ধরণের মাদক ব্যবসায়ী গডফাদার এখানে রয়েছে। গোদাগাড়ীতে পুলিশের তালিকাভুক্ত ১৭৩ জন মাদকব্যসায়ী রযেছে। তাদেরকে গ্রেফতার করলে মাদক ব্যবসা কমে আসে। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন তাই কোনভাবে মাদক ব্যবসায়ীরা যেন কোনভাবে  পার পেতে না পারেন সেজন্য তাদের বিরুদ্ধে শক্ত মামলা, চার্জসীট প্রদান করতে হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দীন সোহেল বলেন, গোদাগাড়ীর দূর- দূরাত্বের মানুষ যেন কষ্ট না পাই সেদিকে সবাইকে নজর দেন। সুলতানগজ্ঞ মোড়ে কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা  ঝুঁকিপূর্ণভাবে পারাপার হয় সেখানে একজন ট্রাফিক পুলিশ কে দায়িত্ব দেয়ার কথা বলেন। দেওপাড়া ইউনিয়নের ড্রাইভারের বেতন ভাতা আমি দিতাম, আমি দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার পর থেকে এম্বুলেন্সটি বন্ধ হয়ে গেছে।  গোগ্রাম ও দেওপাড়া ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
বাখ//আর