ঢাকা ০১:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

গাজায় আকাশ থেকে খাবার ফেলছে মার্কিন উড়োজাহাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:৪৭:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৩৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

এই প্রথম ফিলিস্তিনের গাজায় সহায়তা সরবরাহ করেছে আমেরিকা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, শুক্রবার এই সহায়তার ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে অনুযায়ী শনিবার গাজার আকাশ থেকে ৩৮ হাজারের বেশি খাবারের প্যাকেট ফেলে মার্কিন উড়োজাহাজ। প্যারাসুটের মাধ্যমে এসব খাবার ফেলা হয়।

বিবিসি বলছে, তিনটি সামরিক উড়োজাহাজে করে এসব খাবার দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে এই প্রথম গাজায় খাবার দিচ্ছে মার্কিন প্রশাসন। মার্কিন কেন্দ্রীয় প্রশাসন বলছে, এতে তাদের সঙ্গে ছিল জর্ডানের বিমানবাহিনী। এ ধরনের সহায়তা আরও অব্যাহত থাকবে।

এর আগে ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসরায়েলি হামলায় গাজার বিভিন্ন অঞ্চলে শতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এর মধ্যে গাজার দক্ষিণাঞ্চলে খাদ্য সহায়তার জন্য অপেক্ষমাণ ফিলিস্তিনিদের ওপর গুলি চালালে অন্তত ৮১ জন নিহত হয়।

যদিও রয়টার্স নিহতের সংখ্যা ১০৪ বলে জানিয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয় ৭০০ জন। এ ছাড়া গাজার নুসেইরাত, বুরেইজ ও খান ইউনিসে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ৩০ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

এই হামলার পর বাইডেন ঘোষণা দেন, গাজায় ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।

সম্মিলিত অভিযানের অংশ হিসেবে মার্কিন বিমানবাহিনী এবং আরজেএএফ সি–১৩০ বিমান থেকে সেনারা আকাশ থেকে খাদ্য সহায়তা ফেলেছেন। মার্কিন প্রশাসনের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইউএস সি–১৩০ বিমান থেকে গাজার উপকূলরেখা বরাবর ৩৮ হাজারের বেশি খাবারের প্যাকেট ফেলা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

গাজায় আকাশ থেকে খাবার ফেলছে মার্কিন উড়োজাহাজ

আপডেট সময় : ১১:৪৭:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

এই প্রথম ফিলিস্তিনের গাজায় সহায়তা সরবরাহ করেছে আমেরিকা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, শুক্রবার এই সহায়তার ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে অনুযায়ী শনিবার গাজার আকাশ থেকে ৩৮ হাজারের বেশি খাবারের প্যাকেট ফেলে মার্কিন উড়োজাহাজ। প্যারাসুটের মাধ্যমে এসব খাবার ফেলা হয়।

বিবিসি বলছে, তিনটি সামরিক উড়োজাহাজে করে এসব খাবার দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে এই প্রথম গাজায় খাবার দিচ্ছে মার্কিন প্রশাসন। মার্কিন কেন্দ্রীয় প্রশাসন বলছে, এতে তাদের সঙ্গে ছিল জর্ডানের বিমানবাহিনী। এ ধরনের সহায়তা আরও অব্যাহত থাকবে।

এর আগে ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসরায়েলি হামলায় গাজার বিভিন্ন অঞ্চলে শতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এর মধ্যে গাজার দক্ষিণাঞ্চলে খাদ্য সহায়তার জন্য অপেক্ষমাণ ফিলিস্তিনিদের ওপর গুলি চালালে অন্তত ৮১ জন নিহত হয়।

যদিও রয়টার্স নিহতের সংখ্যা ১০৪ বলে জানিয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয় ৭০০ জন। এ ছাড়া গাজার নুসেইরাত, বুরেইজ ও খান ইউনিসে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ৩০ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

এই হামলার পর বাইডেন ঘোষণা দেন, গাজায় ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।

সম্মিলিত অভিযানের অংশ হিসেবে মার্কিন বিমানবাহিনী এবং আরজেএএফ সি–১৩০ বিমান থেকে সেনারা আকাশ থেকে খাদ্য সহায়তা ফেলেছেন। মার্কিন প্রশাসনের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইউএস সি–১৩০ বিমান থেকে গাজার উপকূলরেখা বরাবর ৩৮ হাজারের বেশি খাবারের প্যাকেট ফেলা হয়েছে।