ঢাকা ০৮:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছে আমেরিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১২:২৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৫৩২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতির বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্র পর্যবেক্ষণ করছে। স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এমনটি জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানতে চাওয়া হয় খালেদা জিয়ার চিকিৎসার সুযোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের কাছে কোনো আহ্বান জানাবে কিনা?

এর জবাবে মিলার বলেন, আমরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতির বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছি। আমরা তাঁর ক্ষেত্রে একটি সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ আইনি প্রক্রিয়া নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারকে উৎসাহিত করেছি। এর বেশি কিছু বলার নেই কারণ এটি পুরোপুরি অভ্যন্তরীণ আইনি প্রক্রিয়া।’

আগামী ২৮ অক্টোবরের বিএনপির সমাবেশের আগে দলটির নেতা-কর্মীদের ধরপাকরের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, ‘আগেই বলেছি যে, আমরা বিশ্বাস করি যে আসন্ন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হতে হবে। এর বাইরে আমাদের আর কোনো মন্তব্য নেই।’

লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত খালেদা জিয়ার যকৃতে ‘ট্র্যান্সজাগুলার ইন্ট্রাহেপেটিক পোরটোসিসটেমিক শান্ট (টিপস)’ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দুই রক্তনালির মধ্যে একটি নতুন সংযোগ তৈরি করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা তিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এভারকেয়ার হাসপাতালে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

জানা গেছে, আজ শুক্রবার যেকোনো সময় মেডিকেল বোর্ডের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বর্তমান পরিস্থিতি আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমকে জানানো হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা তিন চিকিৎসক বৃহস্পতিবার সকালে এভারকেয়ার হাসপাতালে গিয়ে খালেদা জিয়াকে দেখেন এবং মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে বৈঠক করেন। তখনই জরুরি ভিত্তিতে ‘টিপস’ করার সিদ্ধান্ত হয়।

এর আগে বুধবার রাতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে তিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ঢাকায় পৌঁছান। এঁরা হলেন—যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বখ্যাত জন হপকিনস ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের লিভার ও কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক হামিদ রব, ইন্টারভেনশনাল অনকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ক্রিসটোস স্যাভাস জর্জিয়াডেস এবং হেপাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক জেমস পিটার হ্যামিলটন।

গত ৯ আগস্ট থেকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ৭৮ বয়সী সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী আর্থাইটিস, ডায়াবেটিস, লিভার, কিডনি, ফুসফুস ও হদরোগে ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে।। গত আড়াই মাসে কয়েক দফায় তাঁকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ডের তত্ত্বাবধায়নে বিএনপি চেয়ারপারসন চিকিৎসাধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছে আমেরিকা

আপডেট সময় : ১২:২৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর ২০২৩

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতির বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্র পর্যবেক্ষণ করছে। স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এমনটি জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানতে চাওয়া হয় খালেদা জিয়ার চিকিৎসার সুযোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের কাছে কোনো আহ্বান জানাবে কিনা?

এর জবাবে মিলার বলেন, আমরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতির বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছি। আমরা তাঁর ক্ষেত্রে একটি সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ আইনি প্রক্রিয়া নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারকে উৎসাহিত করেছি। এর বেশি কিছু বলার নেই কারণ এটি পুরোপুরি অভ্যন্তরীণ আইনি প্রক্রিয়া।’

আগামী ২৮ অক্টোবরের বিএনপির সমাবেশের আগে দলটির নেতা-কর্মীদের ধরপাকরের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, ‘আগেই বলেছি যে, আমরা বিশ্বাস করি যে আসন্ন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হতে হবে। এর বাইরে আমাদের আর কোনো মন্তব্য নেই।’

লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত খালেদা জিয়ার যকৃতে ‘ট্র্যান্সজাগুলার ইন্ট্রাহেপেটিক পোরটোসিসটেমিক শান্ট (টিপস)’ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দুই রক্তনালির মধ্যে একটি নতুন সংযোগ তৈরি করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা তিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এভারকেয়ার হাসপাতালে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

জানা গেছে, আজ শুক্রবার যেকোনো সময় মেডিকেল বোর্ডের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বর্তমান পরিস্থিতি আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমকে জানানো হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা তিন চিকিৎসক বৃহস্পতিবার সকালে এভারকেয়ার হাসপাতালে গিয়ে খালেদা জিয়াকে দেখেন এবং মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে বৈঠক করেন। তখনই জরুরি ভিত্তিতে ‘টিপস’ করার সিদ্ধান্ত হয়।

এর আগে বুধবার রাতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে তিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ঢাকায় পৌঁছান। এঁরা হলেন—যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বখ্যাত জন হপকিনস ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের লিভার ও কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক হামিদ রব, ইন্টারভেনশনাল অনকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ক্রিসটোস স্যাভাস জর্জিয়াডেস এবং হেপাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক জেমস পিটার হ্যামিলটন।

গত ৯ আগস্ট থেকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ৭৮ বয়সী সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী আর্থাইটিস, ডায়াবেটিস, লিভার, কিডনি, ফুসফুস ও হদরোগে ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে।। গত আড়াই মাসে কয়েক দফায় তাঁকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ডের তত্ত্বাবধায়নে বিএনপি চেয়ারপারসন চিকিৎসাধীন।