ঢাকা ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

খানসামায় আগাম জাতের ভুট্টা চাষ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২২:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৩৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :

দিনাজপুরের খানসামায় আগাম জাতের এলব্রুসসহ উচ্চ ফলনশীল বেশ কিছু জাতের ভুট্টা চাষ করছেন কৃষকরা। এ উপজেলা ভুট্টার জন্য বিখ্যাত। কৃষকরা ধান, আলু আবাদ করলেও বর্তমানে তারা খরচ কম হওয়ায় আবাদ করছেন ভুট্টা। অন্যান্য ফসলের তুলনায় খরচ কম ও অধিক লাভজনক হওয়ায় ভুট্টা চাষে ঝুঁকছেন অনেকেই।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে ৭ হাজার ৩২৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলা জুড়ে ১৫-১৬টি জাতের ভুট্টার চাষ হয়েছে। উপজেলার অপেক্ষাকৃত উঁচু জমিগুলোতে আগামজাতের ভুট্টা লাগানো হয়েছে ।

উপজেলার ভেড়ভেড়ি গ্রামের কৃষক সালাউদ্দিন বলেন, এবারে দুই বিঘা জমিতে ভুট্টার চাষ করেছি। কম খরচে ও স্বল্প সময়ে এ ফসল ঘরে তোলা যায়। বর্তমান বাজারে চাহিদা ও দাম দুটোই ভালো রয়েছে। আগামী দেড় মাসের মধ্যে ভুট্টা সংগ্রহ ও মাড়াই শুরু হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ বাসুদেব রায় বলেন, কম খরচে বেশি লাভের আশায় কৃষকরা এবার বোরো ধানের জমিতে আগাম জাতের ও অধিক ফলনশীল পুষ্টিসমৃদ্ধ দানাদার জাতীয় ভুট্টা চাষ করছেন। প্রতি বছর তুলনামূলক ভালো ফলন হওয়ায় ভুট্টার চাষ এ বছরে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। কৃষি বিভাগ থেকে বীজ, সার, কীটনাশক দিয়ে কৃষকদের সহায়তা করা হয়েছে। জমিতে রোগবালাই দমনের জন্য মাঠপর্যায়ে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা নানা পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

 

বা/খ: জই

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

খানসামায় আগাম জাতের ভুট্টা চাষ

আপডেট সময় : ০৮:২২:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :

দিনাজপুরের খানসামায় আগাম জাতের এলব্রুসসহ উচ্চ ফলনশীল বেশ কিছু জাতের ভুট্টা চাষ করছেন কৃষকরা। এ উপজেলা ভুট্টার জন্য বিখ্যাত। কৃষকরা ধান, আলু আবাদ করলেও বর্তমানে তারা খরচ কম হওয়ায় আবাদ করছেন ভুট্টা। অন্যান্য ফসলের তুলনায় খরচ কম ও অধিক লাভজনক হওয়ায় ভুট্টা চাষে ঝুঁকছেন অনেকেই।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে ৭ হাজার ৩২৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলা জুড়ে ১৫-১৬টি জাতের ভুট্টার চাষ হয়েছে। উপজেলার অপেক্ষাকৃত উঁচু জমিগুলোতে আগামজাতের ভুট্টা লাগানো হয়েছে ।

উপজেলার ভেড়ভেড়ি গ্রামের কৃষক সালাউদ্দিন বলেন, এবারে দুই বিঘা জমিতে ভুট্টার চাষ করেছি। কম খরচে ও স্বল্প সময়ে এ ফসল ঘরে তোলা যায়। বর্তমান বাজারে চাহিদা ও দাম দুটোই ভালো রয়েছে। আগামী দেড় মাসের মধ্যে ভুট্টা সংগ্রহ ও মাড়াই শুরু হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ বাসুদেব রায় বলেন, কম খরচে বেশি লাভের আশায় কৃষকরা এবার বোরো ধানের জমিতে আগাম জাতের ও অধিক ফলনশীল পুষ্টিসমৃদ্ধ দানাদার জাতীয় ভুট্টা চাষ করছেন। প্রতি বছর তুলনামূলক ভালো ফলন হওয়ায় ভুট্টার চাষ এ বছরে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। কৃষি বিভাগ থেকে বীজ, সার, কীটনাশক দিয়ে কৃষকদের সহায়তা করা হয়েছে। জমিতে রোগবালাই দমনের জন্য মাঠপর্যায়ে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা নানা পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

 

বা/খ: জই