ঢাকা ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কুয়াকাটা ঢেউয়ে তোরে হারিয়ে যাওয়া পর্যটক উদ্ধার

এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৪৯:৩২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪
  • / ৬৭৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ঢেউয়ে হারিয়ে যাওয়া মিঠুন হালদার নামের এক যুবককে উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। মঙ্গলবার (৭ মে) সন্ধ্যা পরে ঢেউয়ের সঙ্গে তাকে গড়াগড়ি খেতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে।
মিঠুন হালদার পিরোজপুরের নেছারাবাদের আদমকাঠী এলাকার মনেন্দ্র হালদারদের ছেলে। তিনি ভিমরুলী ডিএন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তিনি একা কুয়াকাটায় ঘুরতে এসেছেন।
জিহাদ নামের স্থানীয় এক যুবক জানায়, সৈকতে হাঁটাহাঁটি করছিলাম। এমন অবস্থায় একটা লোককে দেখতে পাই সমুদ্রের গড়াগড়ি খাচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়দের ডেকে তাকে তুলে নিয়ে পুলিশকে খবর দেই। পরে ট্যুরিস্ট পুলিশের সহযোগিতায় আমরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি।
কুয়াকাটা হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক মুমশাদ সায়েম পুনম জানান, কয়েকজন যুবক অজ্ঞান অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে আমি তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেই। পরে তার জ্ঞান ফেরে। এখন উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে পটুয়াখালীতে পাঠানো হয়েছে।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের উপ-পরিদর্শক মো. হাফিজুর রহমান জানান, ওই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। এখন খোঁজখবর নিচ্ছি।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

কুয়াকাটা ঢেউয়ে তোরে হারিয়ে যাওয়া পর্যটক উদ্ধার

আপডেট সময় : ১১:৪৯:৩২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪
পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ঢেউয়ে হারিয়ে যাওয়া মিঠুন হালদার নামের এক যুবককে উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। মঙ্গলবার (৭ মে) সন্ধ্যা পরে ঢেউয়ের সঙ্গে তাকে গড়াগড়ি খেতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে।
মিঠুন হালদার পিরোজপুরের নেছারাবাদের আদমকাঠী এলাকার মনেন্দ্র হালদারদের ছেলে। তিনি ভিমরুলী ডিএন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তিনি একা কুয়াকাটায় ঘুরতে এসেছেন।
জিহাদ নামের স্থানীয় এক যুবক জানায়, সৈকতে হাঁটাহাঁটি করছিলাম। এমন অবস্থায় একটা লোককে দেখতে পাই সমুদ্রের গড়াগড়ি খাচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়দের ডেকে তাকে তুলে নিয়ে পুলিশকে খবর দেই। পরে ট্যুরিস্ট পুলিশের সহযোগিতায় আমরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি।
কুয়াকাটা হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক মুমশাদ সায়েম পুনম জানান, কয়েকজন যুবক অজ্ঞান অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে আমি তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেই। পরে তার জ্ঞান ফেরে। এখন উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে পটুয়াখালীতে পাঠানো হয়েছে।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের উপ-পরিদর্শক মো. হাফিজুর রহমান জানান, ওই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। এখন খোঁজখবর নিচ্ছি।
বাখ//আর