ঢাকা ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কিশোরগঞ্জে এক লাখ ৭৮ হাজার কিশোরী পাচ্ছে এইচপিভি টিকা

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৮:১৪:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৭৩১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কিশোরগঞ্জে এক লাখ ৭৮ হাজার ৪৭৬জন কিশোরীকে দেওয়া হবে এইচপিভি টিকা। ‘এক ডোজ এইচপিভি টিকা নিন, জরায়ুমুখে ক্যান্সার রুখে দিন’ এই স্লোগানে আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে এ এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন। মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) বিকালে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জনের সম্মেলন কক্ষে কিশোরগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. এস এম তারেক আনামের সভাপতিত্বে এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

চার সপ্তাহ ধরে চলা এ ক্যাম্পেইনে ১০-১৪ বছর বয়সী এসব কিশোরীর মধ্যে এক লাখ ৬৪ হাজার ২৯৮ জনকে নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং বাকি ১৪ হাজার ১৭৮ জনকে স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে ১৮ কর্মদিবসের মধ্যে এ এইচপিভি টিকা দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মাহবুবুর রহমান ও ডা. চৌধুরী শাহরিয়ার, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ডা. সরওয়ার আলম এবং ইউনিসেফ প্রতিনিধি ডা. মাফিনা হক এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে বলেন, ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতে টিকাদানের মাধ্যমে দেশে এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন শুরু হতে যাচ্ছে। এতে ৫ম থেকে ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ছাত্রীসহ ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সী কিশোরীদের বিনামূল্যে এইচপিভি টিকা দেওয়া হবে। এজন্য তাদের নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে।

এ সময় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জেলার প্রেস ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

কিশোরগঞ্জে এক লাখ ৭৮ হাজার কিশোরী পাচ্ছে এইচপিভি টিকা

আপডেট সময় : ০৮:১৪:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর ২০২৩

কিশোরগঞ্জে এক লাখ ৭৮ হাজার ৪৭৬জন কিশোরীকে দেওয়া হবে এইচপিভি টিকা। ‘এক ডোজ এইচপিভি টিকা নিন, জরায়ুমুখে ক্যান্সার রুখে দিন’ এই স্লোগানে আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে এ এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন। মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) বিকালে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জনের সম্মেলন কক্ষে কিশোরগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. এস এম তারেক আনামের সভাপতিত্বে এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

চার সপ্তাহ ধরে চলা এ ক্যাম্পেইনে ১০-১৪ বছর বয়সী এসব কিশোরীর মধ্যে এক লাখ ৬৪ হাজার ২৯৮ জনকে নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং বাকি ১৪ হাজার ১৭৮ জনকে স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে ১৮ কর্মদিবসের মধ্যে এ এইচপিভি টিকা দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মাহবুবুর রহমান ও ডা. চৌধুরী শাহরিয়ার, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ডা. সরওয়ার আলম এবং ইউনিসেফ প্রতিনিধি ডা. মাফিনা হক এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে বলেন, ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতে টিকাদানের মাধ্যমে দেশে এইচপিভি টিকাদান ক্যাম্পেইন শুরু হতে যাচ্ছে। এতে ৫ম থেকে ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ছাত্রীসহ ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সী কিশোরীদের বিনামূল্যে এইচপিভি টিকা দেওয়া হবে। এজন্য তাদের নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে।

এ সময় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জেলার প্রেস ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

বাখ//আর