সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আমি বৈবাহিক ধর্ষণের শিকার : বাঁধন বিদেশি লবিস্টদের পরামর্শে ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভারতের বিপক্ষে জয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন এই পারফরম্যান্স আমার জন্য সত্যিই স্মরণীয়: মিরাজ নাইজেরিয়ায় মসজিদে বন্দুক হামলা, ইমামসহ নিহত ১২ এম্বাপ্পের জাদুতে কোয়ার্টার ফাইনালে ফ্রান্স মশক নিধন কার্যক্রমে কর্মীদের অবহেলা পেলে কঠোর ব্যবস্থা : মেয়র আতিক নেছারাবাদ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ভারতের বিপক্ষে জয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রাসিক মেয়রের অভিনন্দন ১০ তারিখে বিএনপি পাকিস্তানিদের মতোই আত্মসমর্পণ করবে: তথ্যমন্ত্রী রাজশাহীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ মনি’র জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আজ অব্দি শাকিব খানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিইনি: বুবলী রাজশাহীতে লোকাল গর্ভনমেন্ট কোভিড-১৯ রিসপন্স এন্ড রিকভারি প্রজেক্ট বাস্তবায়ন ভিত্তিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত রাসিক মেয়রের সাথে লোকাল গভর্নমেন্ট কোভিড-১৯ রিসপন্স এন্ড রিকভারি প্রজেক্টের প্রতিনিধিদের সৌজন্য সাক্ষাৎ মিরাজের বীরত্বে রুদ্ধশ্বাস জয় বাংলাদেশের

কলাপাড়ায় বিবাহিত যুবক পেলেন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির পদ!

ছাত্রলীগ নেতা মো. মিরাজ হোসেন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :

কলাপাড়ার বিবাহিত যুবক পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পদ বাগিয়ে নিল মো. মিরাজ হোসেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের দ্বিতীয় ভাগে ধারা ২৩ বিবিধ: এর (ক) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বিবাহিতদের ছাত্রলীগে কোন পদে থাকতে না পারার কথাটি লেখা থাকলেও, কলাপাড়ার চম্পাপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা সচিব, উপ-সচিব পরিচয় দেওয়া ডিবি কর্তৃক আটক হয়ে জামিনে মুক্তি পেয়ে পালিয়ে থাকা মো. সাগর মৃধা ওরফে ফোরকান মৃধার পুত্র মো. মিরাজ হোসেন বিবাহের কথা গোপন করে পদ বাগিয়ে নিয়েছেন।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, ছাত্রদলে থেকে ছাত্রলীগের নেতাকে হত্যা করে আওয়ামী লীগ নেতা বনে যাওয়া মো. সাগর মৃধা ওরফে ফোরকান মৃধা বর্তমান কলাপাড়াা উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য তাহারই পুত্র ওই মিরাজ হোসেন।

চম্পাপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন এ তথ্য জানান, চম্পাপুর ইউনিয়নের পাটুয়া গ্রামের মো. ফকু মৃধার পুত্র মো. সাগর মৃধার ছেলে মো. মিরাজ হোসেন একই ইউনিয়নের মো. আফতার গাজীর পুত্র মো. দুলাল গাজীর মেয়ে মোসা: নিলা বেগমকে নিয়ে পালিয়ে বিবাহ করে এবং পরে পারিবারিক ভাবে আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে বিবাহ সম্পন্ন হয়। বর্তমানে বৈবাহিক সূত্রে পারিবারিক জীবনে আবদ্ধ রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৯ নভেম্বর কেন্দ্রয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি আগামী এক বছরের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়। ওই কমিটিতে সহ-সভাপতি পদে মো. মিরাজ হোসেন’র নাম থাকায় জেলা ও উপজেলা ছাত্রলীগের অনেকেই বিস্মিত হয় এবং ছাত্রলীগের ওই কমিটি হইতে তার নাম প্রত্যাহারের জোড় দাবি জানায়।

বা/খ: এস আর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *