ঢাকা ০১:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কলাপাড়ায় নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৫:২৬:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
  • / ৪২৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা পারভীন সীমা শনিবার দুপুর ১ টার দিকে পৌরশহরের নতুন বাজার এলাকার তার বাসভবনে এক সংবাদ সন্মেলন করেছে। সামান্য একটি ঘটনাকে আওয়ামী লীগের কার্যালয় ভাংগার নাটক সাজানোর প্রতিবাদে এ সংবাদ সন্মেলন করেন তিনি।

সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পুনরায়ঃ বিপুল ভোটে বিজয়ী হওয়ার পর নীলগঞ্জ ইউনিয়নে ৯ জুন ভোটারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা পৌঁছামাত্র আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অবস্থানরত রহমান তালুকদার কার্যালয়টি তালাবদ্ধ করে দেয়।

এ বিষয় নিয়ে তার সাথে শাহীনা পারভীন সীমার সর্মথকদের বাক-বিতন্ডা হয়। পরে বিষয়টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য আওয়ামী লীগ কার্যালয় ভাংচুরের মিথ্যা নাটক সাজিয়ে আমাদের আওয়ামী লীগ থেকে বিতারনের পায়তারা করা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে শাহিনা পারভীন সীমা বলেন, আমার পিতা মরহুম আনোয়ার-উল- ইসলাম পটুয়াখালী-৪ আসন থেকে বার বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য। আমার বড় ভাই আবদুল্লাহ আল-ইসলাম লিটন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী -৪ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে, আমার এক চাচাত ভাই নীলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। আমাদের গোটা পরিবার আওয়ামী লীগের জন্য নিবেদিত। অথচ, রহমান তালুকদার এক সময় বি,এন,পি জাতীয় পার্টি করা মানুষ। যিনি সামান্য ঘটনাকে তিলে তাল বানানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে বলে সংবাদ সন্মেলনে তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে,দলীয় কার্যালয় ভাংগার বিষয়ে জানতে চাইলে নীলগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জগৎ জীবন রায় জানান, দলীয় কার্যালয় খোলা কিংবা বন্ধ নিয়ে দু’পক্ষের বাগ-বিতন্ডা, চর-থাপ্পর দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। অফিস ভাংগার কোন ঘটনা ঘটেনি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রহমান তালুকদারের বক্তব্য নিতে তার মুঠো যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

কলাপাড়ায় নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৫:২৬:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা পারভীন সীমা শনিবার দুপুর ১ টার দিকে পৌরশহরের নতুন বাজার এলাকার তার বাসভবনে এক সংবাদ সন্মেলন করেছে। সামান্য একটি ঘটনাকে আওয়ামী লীগের কার্যালয় ভাংগার নাটক সাজানোর প্রতিবাদে এ সংবাদ সন্মেলন করেন তিনি।

সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পুনরায়ঃ বিপুল ভোটে বিজয়ী হওয়ার পর নীলগঞ্জ ইউনিয়নে ৯ জুন ভোটারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা পৌঁছামাত্র আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অবস্থানরত রহমান তালুকদার কার্যালয়টি তালাবদ্ধ করে দেয়।

এ বিষয় নিয়ে তার সাথে শাহীনা পারভীন সীমার সর্মথকদের বাক-বিতন্ডা হয়। পরে বিষয়টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য আওয়ামী লীগ কার্যালয় ভাংচুরের মিথ্যা নাটক সাজিয়ে আমাদের আওয়ামী লীগ থেকে বিতারনের পায়তারা করা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে শাহিনা পারভীন সীমা বলেন, আমার পিতা মরহুম আনোয়ার-উল- ইসলাম পটুয়াখালী-৪ আসন থেকে বার বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য। আমার বড় ভাই আবদুল্লাহ আল-ইসলাম লিটন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী -৪ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে, আমার এক চাচাত ভাই নীলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। আমাদের গোটা পরিবার আওয়ামী লীগের জন্য নিবেদিত। অথচ, রহমান তালুকদার এক সময় বি,এন,পি জাতীয় পার্টি করা মানুষ। যিনি সামান্য ঘটনাকে তিলে তাল বানানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে বলে সংবাদ সন্মেলনে তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে,দলীয় কার্যালয় ভাংগার বিষয়ে জানতে চাইলে নীলগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জগৎ জীবন রায় জানান, দলীয় কার্যালয় খোলা কিংবা বন্ধ নিয়ে দু’পক্ষের বাগ-বিতন্ডা, চর-থাপ্পর দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। অফিস ভাংগার কোন ঘটনা ঘটেনি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রহমান তালুকদারের বক্তব্য নিতে তার মুঠো যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

বাখ//আর