ঢাকা ১০:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ইমাম পরিষদের ত্রাণ বিতরণ

এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
  • / ৪২৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝর রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রান সহায়তা প্রদান করেছে পটুয়াখালী ইমাম পরিষদ। শনিবার দুপুর বারোটায় কলাপাড়া কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে কলাপাড়া ইমাম পরিষদের আয়োজনে ৬০ জন ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে এ ত্রান সহায়তা করা হয়। এর মধ্যে ৫ জন সনাতন ধর্মালম্বী পরিবারের সদস্যও রয়েছে। এসময় প্রত্যেককে ত্রান হিসেবে ২ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়।

ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী জেলা ইমাম পরিষদের কোষাধ্যক্ষ মাওলানা মোখলেসুর রহমান, কলাপাড়া ইমাম পরিষদের সভাপতি মাওলানা মে: মাসুম বিল্লাহ রুমী, সাধারন সম্পাদক ফেরদৌসুল হক গাজী, পটুয়াখালী জেলা ইমাম পরিষদের সদস্য হাফেজ মাওলামানা মোহতাসিম বিল্লাহ জোনায়েদ ও মুফতি কাওসার।

ত্রান পাওয়া অনিল দেবনাথ জানান, ঘূর্ণিঝড় রিমালে আমার বসতবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হুজুররা আমাকে ত্রাণ দিয়েছেন। এই প্রথমবারের মতো মসজিদের ইমামদের কাছ থেকে ত্রাণ পেলাম। এর আগে আর কখনো ইমাম পরিবারের সদস্যরা আমাদের ত্রাণ দেয়নি। আমরা সবাই একসঙ্গে বসবাস করি। তাদেরকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। ত্রাণ পাওয়া দীপক দেবনাথ জানান, মসজিদের ইমামগণ ভালো মনের মানুষ। তাদের সঙ্গে আমাদের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন রয়েছে। তাই আজ তারা আমাদের ত্রান দিয়েছে।

ত্রাণ পাওয়া রফিক মিস্ত্রি জানান, মসজিদের ইমামদের কাছ থেকে ত্রাণ পেয়েছি। আমাদের সঙ্গে কয়েকজন হিন্দু ভাইকেও ত্রান দেওয়া হয়েছে। ইমামগন একটি উদাহরণ তৈরী করলো। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

কলাপাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম রয়েল জানান, মুসলিমদের সবচেয়ে বড় সংগঠন ইমাম পরিষদ। বিভিন্ন সময় দেখেছি মুসলিমদের মাঝে ঐক্য করার লক্ষ্যে তারা ব্যাপক কাজ করেছে। এবং বিভিন্ন সময়ে তাদের নেতৃত্বে মুসলমানদের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আন্দোলন হয়েছে। আজ তারা সনাতন ধর্মালম্বী ভাইদের ত্রান দিয়ে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করল। হিন্দু মুসলিম ভাই ভাই এটাই তার প্রমান।

কলাপাড়া ইমাম পরিষদের সভাপতি মাওলানা মো: মাসুম বিল্লাহ রুমি জানান, শুধু মুসলিম পরিবার নয় আমাদের এলাকার অনেক হিন্দু পরিবারও ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাই আমরা মুসলমান ভাইদের পাশাপাশি বেশ কয়েকজন হিন্দু ভাইকে ত্রান দিয়েছি। এর আগে ঘূর্ণিঝড়সহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগেও আমরা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি।

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ইমাম পরিষদের ত্রাণ বিতরণ

আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝর রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রান সহায়তা প্রদান করেছে পটুয়াখালী ইমাম পরিষদ। শনিবার দুপুর বারোটায় কলাপাড়া কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে কলাপাড়া ইমাম পরিষদের আয়োজনে ৬০ জন ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে এ ত্রান সহায়তা করা হয়। এর মধ্যে ৫ জন সনাতন ধর্মালম্বী পরিবারের সদস্যও রয়েছে। এসময় প্রত্যেককে ত্রান হিসেবে ২ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়।

ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী জেলা ইমাম পরিষদের কোষাধ্যক্ষ মাওলানা মোখলেসুর রহমান, কলাপাড়া ইমাম পরিষদের সভাপতি মাওলানা মে: মাসুম বিল্লাহ রুমী, সাধারন সম্পাদক ফেরদৌসুল হক গাজী, পটুয়াখালী জেলা ইমাম পরিষদের সদস্য হাফেজ মাওলামানা মোহতাসিম বিল্লাহ জোনায়েদ ও মুফতি কাওসার।

ত্রান পাওয়া অনিল দেবনাথ জানান, ঘূর্ণিঝড় রিমালে আমার বসতবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হুজুররা আমাকে ত্রাণ দিয়েছেন। এই প্রথমবারের মতো মসজিদের ইমামদের কাছ থেকে ত্রাণ পেলাম। এর আগে আর কখনো ইমাম পরিবারের সদস্যরা আমাদের ত্রাণ দেয়নি। আমরা সবাই একসঙ্গে বসবাস করি। তাদেরকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। ত্রাণ পাওয়া দীপক দেবনাথ জানান, মসজিদের ইমামগণ ভালো মনের মানুষ। তাদের সঙ্গে আমাদের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন রয়েছে। তাই আজ তারা আমাদের ত্রান দিয়েছে।

ত্রাণ পাওয়া রফিক মিস্ত্রি জানান, মসজিদের ইমামদের কাছ থেকে ত্রাণ পেয়েছি। আমাদের সঙ্গে কয়েকজন হিন্দু ভাইকেও ত্রান দেওয়া হয়েছে। ইমামগন একটি উদাহরণ তৈরী করলো। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

কলাপাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম রয়েল জানান, মুসলিমদের সবচেয়ে বড় সংগঠন ইমাম পরিষদ। বিভিন্ন সময় দেখেছি মুসলিমদের মাঝে ঐক্য করার লক্ষ্যে তারা ব্যাপক কাজ করেছে। এবং বিভিন্ন সময়ে তাদের নেতৃত্বে মুসলমানদের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আন্দোলন হয়েছে। আজ তারা সনাতন ধর্মালম্বী ভাইদের ত্রান দিয়ে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করল। হিন্দু মুসলিম ভাই ভাই এটাই তার প্রমান।

কলাপাড়া ইমাম পরিষদের সভাপতি মাওলানা মো: মাসুম বিল্লাহ রুমি জানান, শুধু মুসলিম পরিবার নয় আমাদের এলাকার অনেক হিন্দু পরিবারও ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাই আমরা মুসলমান ভাইদের পাশাপাশি বেশ কয়েকজন হিন্দু ভাইকে ত্রান দিয়েছি। এর আগে ঘূর্ণিঝড়সহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগেও আমরা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি।

বাখ//আর