ঢাকা ০৩:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কয়লা এসেছে : চালু হতে যাচ্ছে পায়রা তাপ বিদুৎ কেন্দ্র

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩
  • / ৪৭৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

// মোঃ জাকির হোসেন, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি //

ইন্দোনেশিয়া থেকে ১০ দিনের মধ্যে ৪১ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে এমভি এথেনা এখন পায়রা বন্দরের ইনার এ্যংকোরেজে। ইতোমধ্যে লাইটার জাহাজে করে কয়লা নিয়ে আসার কার্যক্রম শুর করেছে পায়রা তাপ বিদুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।

পায়রা বন্দরের উপ-পরিচালক ট্রাফিক আজিজুর রহমান জানান, “গত রাত ২ টার দিকে মার্শাল আইল্যান্ডের পতাকাবাহী ১০ মিটার ড্রাফটের মাদার ভ্যাসেল এমভি এথেনা ইন্দোনেশিয়ার বালিকাপানান বন্দর থেকে ৪১ হাজার ২শ’ ৭ মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে পায়রা বন্দরের জেটি এরিয়ার নিকটবর্তী ইনার এ্যাংকোরেজে ভিড়েছে।

পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, আজ শুক্রবার দুপুরে পায়রা বন্দরের ইনার এ্যাংকোরেজে অবস্থানরত এমভি এথেনা থেকে লাইটার জাহাজে করে কয়লা খালাস করে পায়রা তাপের জেটিতে নিয়ে আসার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। আজ রাতের মধ্যেই মাদার ভ্যাসেল এমভি এ্যাথেনা পায়রা তাপের জেটিতে কিছুটা কয়লা খালাস করার পর বাকী কয়লা নিয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। এ ছাড়া আগামীকাল রাত ১০ টার মধ্যে পুরোকয়লা খালাস সম্পন্ন করে মধ্যরাত থেকেই বিদুৎ উৎপাদনে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, দেশের সবচেয়ে বড় বিদুৎ উৎপাদন কেন্দ্র পটুয়াখালীর পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিট থেকে ২০২০ সালে পর্যায়ক্রমে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদুৎ উৎপাদন করে জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ হচ্ছিল। কয়লার মজুদ ফুরিয়ে যাওয়ায় পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের প্রথম ইউনিট থেকে গত ২৫ মে. বিদুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদনও বন্ধ হয়ে যায় ৫ জুন।যার ফলে পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্র থেকে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদুৎ সরবরাহ জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ বন্ধ হযে যাওয়ায় সারাদেশে ব্যাপক পরিমান বিদুৎ সংকট দেখা দেয় তখন। ডলার সংকটের কারণে ৬ মাস বেশী সময়ের ৪০০ মিলিয়ন ডলার বকেয়া থাকায় এ অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

কয়লা এসেছে : চালু হতে যাচ্ছে পায়রা তাপ বিদুৎ কেন্দ্র

আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩

// মোঃ জাকির হোসেন, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি //

ইন্দোনেশিয়া থেকে ১০ দিনের মধ্যে ৪১ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে এমভি এথেনা এখন পায়রা বন্দরের ইনার এ্যংকোরেজে। ইতোমধ্যে লাইটার জাহাজে করে কয়লা নিয়ে আসার কার্যক্রম শুর করেছে পায়রা তাপ বিদুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।

পায়রা বন্দরের উপ-পরিচালক ট্রাফিক আজিজুর রহমান জানান, “গত রাত ২ টার দিকে মার্শাল আইল্যান্ডের পতাকাবাহী ১০ মিটার ড্রাফটের মাদার ভ্যাসেল এমভি এথেনা ইন্দোনেশিয়ার বালিকাপানান বন্দর থেকে ৪১ হাজার ২শ’ ৭ মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে পায়রা বন্দরের জেটি এরিয়ার নিকটবর্তী ইনার এ্যাংকোরেজে ভিড়েছে।

পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, আজ শুক্রবার দুপুরে পায়রা বন্দরের ইনার এ্যাংকোরেজে অবস্থানরত এমভি এথেনা থেকে লাইটার জাহাজে করে কয়লা খালাস করে পায়রা তাপের জেটিতে নিয়ে আসার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। আজ রাতের মধ্যেই মাদার ভ্যাসেল এমভি এ্যাথেনা পায়রা তাপের জেটিতে কিছুটা কয়লা খালাস করার পর বাকী কয়লা নিয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। এ ছাড়া আগামীকাল রাত ১০ টার মধ্যে পুরোকয়লা খালাস সম্পন্ন করে মধ্যরাত থেকেই বিদুৎ উৎপাদনে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, দেশের সবচেয়ে বড় বিদুৎ উৎপাদন কেন্দ্র পটুয়াখালীর পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিট থেকে ২০২০ সালে পর্যায়ক্রমে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদুৎ উৎপাদন করে জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ হচ্ছিল। কয়লার মজুদ ফুরিয়ে যাওয়ায় পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্রের প্রথম ইউনিট থেকে গত ২৫ মে. বিদুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদনও বন্ধ হয়ে যায় ৫ জুন।যার ফলে পায়রা তাপবিদুৎ কেন্দ্র থেকে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদুৎ সরবরাহ জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ বন্ধ হযে যাওয়ায় সারাদেশে ব্যাপক পরিমান বিদুৎ সংকট দেখা দেয় তখন। ডলার সংকটের কারণে ৬ মাস বেশী সময়ের ৪০০ মিলিয়ন ডলার বকেয়া থাকায় এ অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়।