ঢাকা ০৩:২২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কয়রায় বাঘবিধবা পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফুটাতে তুলে দেওয়া হলো রমজানের উপহার

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৬:২৩:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৭১৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কয়রায় ১ শ বাঘবিধবা সদস্যরা পেলো পবিত্র রমজানের উপহার। গতকাল বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) বেলা ১১ টায় কয়রা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় উপহার হিসাবে এ সকল খাদ্য সামগ্রী।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাওয়াবেব সহায়তায় প্রতি পরিবারের মাঝে ২০ কেজি চাল ও ২০ কেজি আটা পেযে বেশ খুশি বাঘবিধবরা। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম বলেন, সুন্দরবন সংলগ্ন কয়রা উপজেলার ৭ টি ইউনিযনের বাঘের আক্রমনে নিহত পরিবাবের সদস্যরা খুবই অসহায়। তারা এই সহযোগিতা টুকু পেয়েই অনেক খুশি হবে।

প্রতিটি সংস্থার মাধ্যমে তাদের সহযোগিতা করা প্রয়োজন। সাওয়াবের উপস্থিত কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য তিনি আরও বলেন, শুধু ১ শ জনের মধ্য নয় উপজেলার সকল বাঘের আক্রমনে নিহত পরিবারের সদস্যদের মাঝে এ সকল উপহার সামগ্রী বিতরণ করতে পারলে ভালো হতো।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য সাওয়াবের হেব অব প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ লোকমান হোসেন বলেন, উপকুলীয় জনপদ কয়রায় অসহায় মানুষের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে আসছে সাওয়াব। ইতিপুর্বে এই জনপদের মানুষের খাবার পানির জন্য দেড় শতাধিক গভীর নলকুপের ব্যবস্থা করা হয়েছে সংস্থার মাধ্যমে। এর আগেও বাঘ বিধবাদের সহযোগিতা করা হয়েছে। সুন্দরবনের উপর নির্ভরশীল অসহায় জেলেদেরকে বিনামুল্যে নৌকা প্রদান করা হয়েছে। এই রমজানে বাঘে ধরা পরিবারগুলোর মুখে একটু হাসি ফুটাতে আমাদের এই আয়োজন।

এ ধরনের সহযোগিতা এ জনপদের মানুষের জন্য অব্যাহত রাখা হবে। সওয়াবের কয়রা উপজেলা সমন্বয়কারী ইউপি সদস্য সরদার আবু হাসান বলেন, অবহেলিত মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য সওয়াব কাজ করে থাকে। কয়রায় এক ঝাঁক স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে ছিন্নমুল মানুষের বিভিন্ন সেবা কার্যক্রম চলমান রাখা হয়েছে। এটি অব্যাহত রাখা হবে। উপহার সামগ্রী বিতরণকালে আরও উপস্থিত ছিলেন, কয়রা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোস্তফা শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সদর উদ্দিন আহমেদ,সাওয়াবের প্রোগাম অফিসার আবু সাইদ মোল্যা, ইউপি সদস্য রেজাউল করিম কারিম, সাওয়াবের স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্য ডাঃ মুজাহিদুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, আব্দুল্যাহ আল জোবায়ের, রাসেল,সবুজ,রিপন, এস এম মনিরুল ইসলাম, কোহিনুর আলম, উপজেলা প্রতিবন্ধি উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি নুরুল আমিন প্রমুখ।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

কয়রায় বাঘবিধবা পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফুটাতে তুলে দেওয়া হলো রমজানের উপহার

আপডেট সময় : ০৬:২৩:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল ২০২৪

কয়রায় ১ শ বাঘবিধবা সদস্যরা পেলো পবিত্র রমজানের উপহার। গতকাল বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) বেলা ১১ টায় কয়রা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় উপহার হিসাবে এ সকল খাদ্য সামগ্রী।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাওয়াবেব সহায়তায় প্রতি পরিবারের মাঝে ২০ কেজি চাল ও ২০ কেজি আটা পেযে বেশ খুশি বাঘবিধবরা। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম বলেন, সুন্দরবন সংলগ্ন কয়রা উপজেলার ৭ টি ইউনিযনের বাঘের আক্রমনে নিহত পরিবাবের সদস্যরা খুবই অসহায়। তারা এই সহযোগিতা টুকু পেয়েই অনেক খুশি হবে।

প্রতিটি সংস্থার মাধ্যমে তাদের সহযোগিতা করা প্রয়োজন। সাওয়াবের উপস্থিত কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য তিনি আরও বলেন, শুধু ১ শ জনের মধ্য নয় উপজেলার সকল বাঘের আক্রমনে নিহত পরিবারের সদস্যদের মাঝে এ সকল উপহার সামগ্রী বিতরণ করতে পারলে ভালো হতো।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য সাওয়াবের হেব অব প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ লোকমান হোসেন বলেন, উপকুলীয় জনপদ কয়রায় অসহায় মানুষের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে আসছে সাওয়াব। ইতিপুর্বে এই জনপদের মানুষের খাবার পানির জন্য দেড় শতাধিক গভীর নলকুপের ব্যবস্থা করা হয়েছে সংস্থার মাধ্যমে। এর আগেও বাঘ বিধবাদের সহযোগিতা করা হয়েছে। সুন্দরবনের উপর নির্ভরশীল অসহায় জেলেদেরকে বিনামুল্যে নৌকা প্রদান করা হয়েছে। এই রমজানে বাঘে ধরা পরিবারগুলোর মুখে একটু হাসি ফুটাতে আমাদের এই আয়োজন।

এ ধরনের সহযোগিতা এ জনপদের মানুষের জন্য অব্যাহত রাখা হবে। সওয়াবের কয়রা উপজেলা সমন্বয়কারী ইউপি সদস্য সরদার আবু হাসান বলেন, অবহেলিত মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য সওয়াব কাজ করে থাকে। কয়রায় এক ঝাঁক স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে ছিন্নমুল মানুষের বিভিন্ন সেবা কার্যক্রম চলমান রাখা হয়েছে। এটি অব্যাহত রাখা হবে। উপহার সামগ্রী বিতরণকালে আরও উপস্থিত ছিলেন, কয়রা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোস্তফা শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সদর উদ্দিন আহমেদ,সাওয়াবের প্রোগাম অফিসার আবু সাইদ মোল্যা, ইউপি সদস্য রেজাউল করিম কারিম, সাওয়াবের স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্য ডাঃ মুজাহিদুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, আব্দুল্যাহ আল জোবায়ের, রাসেল,সবুজ,রিপন, এস এম মনিরুল ইসলাম, কোহিনুর আলম, উপজেলা প্রতিবন্ধি উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি নুরুল আমিন প্রমুখ।

 

বাখ//আর