ঢাকা ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ওমানে ভারী বর্ষণে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:২৪:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

উপসাগরীয় দেশ ওমানে ভারী বর্ষণে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতেও আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

আজ বুধবার ওমানের কর্মকর্তারা জানান, মৃতদের মধ্যে নয়জনই স্কুলের শিক্ষার্থী। গত রোববার সামাদ আ’শানে তাদের গাড়ি চালকসহ বন্যার পানিতে ডুবে যায়।

ওমানের ন্যাশনাল কমিটি ফর ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট জানিয়েছে, উদ্ধারকারী দল এখনও নিখোঁজ দুই ব্যক্তিকে খুঁজছে। বেশ কয়েকটি প্রদেশের খারাপ আবহাওয়ার কারণে সরকারি ও বেসরকারি খাতে প্রশাসনিক কর্মীদের ছুটি বাতিল করেছে সরকার। স্থানীয় বাসিন্দাদেরও আশ্রয়কেন্দ্রে সরে যেতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত প্রদেশ আশ শারকিয়াহ থেকে লোকজনকে সরিয়ে নিতে পুলিশ ও সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে ভারী বর্ষণে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যার পানিতে দুবাই শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ডুবে গেছে।

ভারী বৃষ্টিপাতে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কার্যক্রমও ব্যহত হয়েছে। সেইসঙ্গে পুরো সংযুক্ত আরব আমিরাতেই স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে সরকারি কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পানি সরাতে ট্যাঙ্কার ট্রাক ব্যবহার করা হচ্ছে। মঙ্গলবার সকালে দুবাইতে ৩০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সারাদিনে এই বৃষ্টির পরিমাণ দাঁড়াবে ১২৮ মিলিমিটারে। এছাড়া বাহরাইন, কাতার ও সৌদি আরবেও বৃষ্টিপাতের খবর পাওয়া গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ওমানে ভারী বর্ষণে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০২:২৪:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

উপসাগরীয় দেশ ওমানে ভারী বর্ষণে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতেও আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

আজ বুধবার ওমানের কর্মকর্তারা জানান, মৃতদের মধ্যে নয়জনই স্কুলের শিক্ষার্থী। গত রোববার সামাদ আ’শানে তাদের গাড়ি চালকসহ বন্যার পানিতে ডুবে যায়।

ওমানের ন্যাশনাল কমিটি ফর ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট জানিয়েছে, উদ্ধারকারী দল এখনও নিখোঁজ দুই ব্যক্তিকে খুঁজছে। বেশ কয়েকটি প্রদেশের খারাপ আবহাওয়ার কারণে সরকারি ও বেসরকারি খাতে প্রশাসনিক কর্মীদের ছুটি বাতিল করেছে সরকার। স্থানীয় বাসিন্দাদেরও আশ্রয়কেন্দ্রে সরে যেতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত প্রদেশ আশ শারকিয়াহ থেকে লোকজনকে সরিয়ে নিতে পুলিশ ও সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে ভারী বর্ষণে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যার পানিতে দুবাই শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ডুবে গেছে।

ভারী বৃষ্টিপাতে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কার্যক্রমও ব্যহত হয়েছে। সেইসঙ্গে পুরো সংযুক্ত আরব আমিরাতেই স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে সরকারি কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পানি সরাতে ট্যাঙ্কার ট্রাক ব্যবহার করা হচ্ছে। মঙ্গলবার সকালে দুবাইতে ৩০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সারাদিনে এই বৃষ্টির পরিমাণ দাঁড়াবে ১২৮ মিলিমিটারে। এছাড়া বাহরাইন, কাতার ও সৌদি আরবেও বৃষ্টিপাতের খবর পাওয়া গেছে।