ঢাকা ০৪:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে হারানোর ক্ষমতা কারো নেই : ডেপুটি স্পিকার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৫৩:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৭৫ বার পড়া হয়েছে

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. শামসুল হক টুকু

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
অগ্নিসন্ত্রাস, মাদক ও অপরাজনীতিকে রুখে দিতে সবাইকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগ্রত রাখতে হবে। আওয়ামী লীগের কর্মীরা জাগ্রত থাকলে কোনো সংকটই দেশকে পেছনের দিকে নিয়ে যেতে পারবে না। এলাকার প্রতিটি ঘরকে আওয়ামী লীগের দুর্গ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে হারানোর ক্ষমতা কারো নেই বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. শামসুল হক টুকু।

শনিবার পাবনার সাথিয়ার কাশীনাথপুর কলেজ মাঠে আয়োজিত কাশীনাথপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ শাখার ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা তিনি।

শেখ হাসিনার ত্যাগ সম্পর্কে ডেপুটি স্পিকার বলেন, ৭৫ সালে পিতা-মাতাসহ পরিবারকে হারিয়ে ৬ বছর পর জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে ফিরেন। দেশে ফিরেই জনকল্যাণে পিতার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞা গ্রহণ করেন। শেখ হাসিনার জায়গায় অন্য কেউ হলে সে আজ পাগল হয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরত। অথচ কী এক মহিমায় বাঙালি জাতিকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তার নেতৃত্বে দেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের বিস্ময়। জাতির পিতা ও তার পরিবারের নেতৃত্বই সারা বিশ্বে বাংলাদেশের পরিচয়কে উজ্জ্বল করে তুলেছে।

শামসুল হক টুকু বলেন, আওয়ামী লীগের কর্মীদের কোন পদ-পদবি লাগে না। তারা জাতির পিতার আদর্শভিত্তিক চিন্তা চেতনায় সমৃদ্ধ। আদর্শ নেতাকর্মীদের কখনো বিভ্রান্ত করা যায় না, তারা দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। স্বাধীনতার পর প্রতিটি সংকটেই তারা দলের প্রয়োজনে পাশে ছিলেন। কর্মীদের ত্যাগের বিনিময়েই জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা মাদকমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত একটি উন্নত-সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনের কক্ষপথে রয়েছেন।

নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যায় নারীদের সংখ্যাই বেশি। দেশের উন্নয়নে তাই রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের সমান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। সম্প্রতি রুয়ান্ডায় অনুষ্ঠিত ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নে নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বিশ্বের শীর্ষ দেশের পার্লামেন্টারিয়ানরা।

সম্মেলনের আগে বেড়ার কেন্দ্রীয় কবরস্থানে কবর জিয়ারত শেষে কবরস্থান সংলগ্ন মাঠে খেলতে থাকা শিশুদের খেলাধুলার প্রতি আরও উৎসাহ প্রদান করেন। এ সময় তিনি বলেন, মাদক-ধূমপান থেকে দূরে থেকে খেলাধুলার সঙ্গে থাকতে হবে। সুস্থ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে।

সম্মেলনের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন, কুরআন তিলাওয়াত ও গীতা পাঠ করা হয়।

সম্মেলনে মীর মঞ্জুর ইলাহীর সভাপতিত্বে সাথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবদুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার, সাধারণ সম্পাদক মো. তপন হায়দার সান, বেড়া আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আসিফ শামস রঞ্জন, মো. হাসান আলী খান, সাথিয়ার পৌর মেয়র মাহবুবুল আলম বাচ্চু, মো. রবিউল করিম হিরু, নজরুল ইসলাম, আব্দুল মালেক বাবলু, সাখাওয়াত হোসেন সাজ্জাদ, এসএম আলমগীর হোসেন, শ্রী কার্তিক সাহা বক্তব্য দেন। এ ছাড়া বেড়া-সাথিয়ার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে হারানোর ক্ষমতা কারো নেই : ডেপুটি স্পিকার

আপডেট সময় : ০৬:৫৩:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
অগ্নিসন্ত্রাস, মাদক ও অপরাজনীতিকে রুখে দিতে সবাইকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগ্রত রাখতে হবে। আওয়ামী লীগের কর্মীরা জাগ্রত থাকলে কোনো সংকটই দেশকে পেছনের দিকে নিয়ে যেতে পারবে না। এলাকার প্রতিটি ঘরকে আওয়ামী লীগের দুর্গ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগকে হারানোর ক্ষমতা কারো নেই বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. শামসুল হক টুকু।

শনিবার পাবনার সাথিয়ার কাশীনাথপুর কলেজ মাঠে আয়োজিত কাশীনাথপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ শাখার ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা তিনি।

শেখ হাসিনার ত্যাগ সম্পর্কে ডেপুটি স্পিকার বলেন, ৭৫ সালে পিতা-মাতাসহ পরিবারকে হারিয়ে ৬ বছর পর জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে ফিরেন। দেশে ফিরেই জনকল্যাণে পিতার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞা গ্রহণ করেন। শেখ হাসিনার জায়গায় অন্য কেউ হলে সে আজ পাগল হয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরত। অথচ কী এক মহিমায় বাঙালি জাতিকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তার নেতৃত্বে দেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের বিস্ময়। জাতির পিতা ও তার পরিবারের নেতৃত্বই সারা বিশ্বে বাংলাদেশের পরিচয়কে উজ্জ্বল করে তুলেছে।

শামসুল হক টুকু বলেন, আওয়ামী লীগের কর্মীদের কোন পদ-পদবি লাগে না। তারা জাতির পিতার আদর্শভিত্তিক চিন্তা চেতনায় সমৃদ্ধ। আদর্শ নেতাকর্মীদের কখনো বিভ্রান্ত করা যায় না, তারা দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। স্বাধীনতার পর প্রতিটি সংকটেই তারা দলের প্রয়োজনে পাশে ছিলেন। কর্মীদের ত্যাগের বিনিময়েই জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা মাদকমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত একটি উন্নত-সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনের কক্ষপথে রয়েছেন।

নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যায় নারীদের সংখ্যাই বেশি। দেশের উন্নয়নে তাই রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের সমান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। সম্প্রতি রুয়ান্ডায় অনুষ্ঠিত ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নে নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বিশ্বের শীর্ষ দেশের পার্লামেন্টারিয়ানরা।

সম্মেলনের আগে বেড়ার কেন্দ্রীয় কবরস্থানে কবর জিয়ারত শেষে কবরস্থান সংলগ্ন মাঠে খেলতে থাকা শিশুদের খেলাধুলার প্রতি আরও উৎসাহ প্রদান করেন। এ সময় তিনি বলেন, মাদক-ধূমপান থেকে দূরে থেকে খেলাধুলার সঙ্গে থাকতে হবে। সুস্থ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে।

সম্মেলনের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন, কুরআন তিলাওয়াত ও গীতা পাঠ করা হয়।

সম্মেলনে মীর মঞ্জুর ইলাহীর সভাপতিত্বে সাথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবদুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার, সাধারণ সম্পাদক মো. তপন হায়দার সান, বেড়া আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আসিফ শামস রঞ্জন, মো. হাসান আলী খান, সাথিয়ার পৌর মেয়র মাহবুবুল আলম বাচ্চু, মো. রবিউল করিম হিরু, নজরুল ইসলাম, আব্দুল মালেক বাবলু, সাখাওয়াত হোসেন সাজ্জাদ, এসএম আলমগীর হোসেন, শ্রী কার্তিক সাহা বক্তব্য দেন। এ ছাড়া বেড়া-সাথিয়ার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।