ঢাকা ০৪:৫৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, সমুদ্র বন্দরে সতর্কতা সংকেত জারি

এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৫:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
  • / ৪৪৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘূচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। সমুুদ্র বন্দরে জারি করা হয়েছে দূরবর্তী সতর্কতা সঙ্কেত শুক্রবার (২৪ মে) আবহাওয়াবিদ ড.মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ আবহাওয়া দপ্তরের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিত ক্রমিক নম্বর ০১ এ তথ্য নিশ্চিত করাহয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলাহয়েছে,পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎ সংলগ্ন পশ্চিম বঙ্গপসাগর এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর ও ঘনিভূত হয়ে পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

এটি আজ (২৪ মে) সকাল ৬ টায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ১৮৭০ কি.মি দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৮০৫ কি.মি. দক্ষিণ দক্ষিণ পশ্চিমে,মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮২৫ কি.মি.দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৭৯০ কি.মি.দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরো উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে।

নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটার এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৪০ কি.মি. যা দমকা অথবা ঝড়ো হওয়া আকারে ৫০ কি.মি.পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে।

তাই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দর সমূহকে (০১) নম্বর দূরবর্তী সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে এবং গভীর সাগরে বিচরণ করতে নিষেধ করা হয়েছে।

এদিকে নিম্নচাপের প্রভাবে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল হতে শুরু করেছে। আকাশ আংশিক মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। উপকূলের বিভিন্ন স্থানে বাতাসের চাপ কিছুটা বেড়েছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে নদ-নদীর পানির উচ্চতা কিছুটা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। তবে বৃষ্টি পাত না হওয়ার কারনে প্রচুর ভ্যাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে। অপর দিকে (২৪ মের) আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলাহয়েছে,বরিশাল বিভাগের দু এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা ঝড়ো হওয়া বৃষ্টি বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র ভাবে আংশিক মেঘলা আকাশ সহ আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। তাছাড়াও বরিশাল বিভাগের উপর দিয়ে যে মৃদু থেকে মাঝারী তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, সমুদ্র বন্দরে সতর্কতা সংকেত জারি

আপডেট সময় : ০৩:৫৫:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘূচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। সমুুদ্র বন্দরে জারি করা হয়েছে দূরবর্তী সতর্কতা সঙ্কেত শুক্রবার (২৪ মে) আবহাওয়াবিদ ড.মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ আবহাওয়া দপ্তরের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিত ক্রমিক নম্বর ০১ এ তথ্য নিশ্চিত করাহয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলাহয়েছে,পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎ সংলগ্ন পশ্চিম বঙ্গপসাগর এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর ও ঘনিভূত হয়ে পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

এটি আজ (২৪ মে) সকাল ৬ টায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ১৮৭০ কি.মি দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৮০৫ কি.মি. দক্ষিণ দক্ষিণ পশ্চিমে,মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮২৫ কি.মি.দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৭৯০ কি.মি.দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরো উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে।

নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটার এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৪০ কি.মি. যা দমকা অথবা ঝড়ো হওয়া আকারে ৫০ কি.মি.পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে।

তাই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দর সমূহকে (০১) নম্বর দূরবর্তী সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে এবং গভীর সাগরে বিচরণ করতে নিষেধ করা হয়েছে।

এদিকে নিম্নচাপের প্রভাবে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল হতে শুরু করেছে। আকাশ আংশিক মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। উপকূলের বিভিন্ন স্থানে বাতাসের চাপ কিছুটা বেড়েছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে নদ-নদীর পানির উচ্চতা কিছুটা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। তবে বৃষ্টি পাত না হওয়ার কারনে প্রচুর ভ্যাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে। অপর দিকে (২৪ মের) আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলাহয়েছে,বরিশাল বিভাগের দু এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা ঝড়ো হওয়া বৃষ্টি বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র ভাবে আংশিক মেঘলা আকাশ সহ আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। তাছাড়াও বরিশাল বিভাগের উপর দিয়ে যে মৃদু থেকে মাঝারী তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

বাখ//আর