ঢাকা ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সহযোগীতা চাইলেন মেয়র

ঈশ্বরদী পৌরসভায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হারুখোলাতেই ফেলা হচ্ছে ময়লা

সৌরভ কুমার দেবনাথ
  • আপডেট সময় : ০৪:৫২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৮৭৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

// ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি //

ঈশ্বরদীতে নিদৃষ্ট ময়লা ফেলার ভাগার না থাকার কারনে পৌরসভাসহ আশপাশে এলাকার দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার পরবর্তী উৎসৃষ্ট বা ময়লা ফেলা হতো ঈশ্বরদী শহরের প্রবেশদ্বার ঢাকা-পাবনা মহাসড়কের হারুখোলা মাঠে।
শহরের প্রবেশদার এবং মহাসড়কের পাশে হওয়ার কারনে এই রাস্তায় চলাচলকারী পথচারীদের প্রতিনিয়ত দূর্গন্ধ সহ্য করতে হতো। আর মহাসড়কের পাশে দূর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ময়লার ভাগার রাখার ফলে সাধারণ মানুষসহ ভুক্ত ভোগীদের সমালোচনা আর রোশানলে পরতে হতো ঈশ্বরদীর নীতি নির্ধারকদের। সেই সমালোচনা এড়াতে এবং পথচারীদের স্বস্তির যাত্রা নিশ্চিত করতে সম্প্রতি ঈশ্বরদী শহরের ফতেমোহাম্মদপুর এলাকায় পৌরসভা কর্তৃক নির্ধারিত স্থানে শহরের সকল আবর্জনা ফেলার নির্দেশনা দিয়েছেন ঈশ্বরদী পৌরসভার নগর পিতা ইসহাক আলী মালিথা। এই মর্মে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশেষ ভাবে নিষেধ করার পরও তারা সেই নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে হারুখোলা মাঠেই ময়লা-আবর্জনা ফেলছে।
বিষয়টি নিয়ে অত্যন্ত ক্ষুদ্ধ হয়ে মেয়র আমাদের ঈশ্বরদীকে বলেন, হারুখোলা মাঠে কোন প্রকার ময়লা ফেলা যাবে না। পৌরসভা কর্তৃক সকলকে নিষেধ করা হয়েছে। তবে পৌরসভা অথবা বাইরের কোন ব্যক্তি বা গাড়ী যোগে যদি এখানে কোন প্রকার ময়লা ফেলতে কেউ দেখেন তবে তারা যেন আমাদের খবর দেন। তার পাশাপাশি ময়লা বহন কারী গাড়ী বা ব্যক্তিকে কঠোর ভাবে নিষেধ করেন সবাই। এ বিষয়ে সকলের সহযোগীতা তিনি কামনা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

সহযোগীতা চাইলেন মেয়র

ঈশ্বরদী পৌরসভায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হারুখোলাতেই ফেলা হচ্ছে ময়লা

আপডেট সময় : ০৪:৫২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০২৩

// ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি //

ঈশ্বরদীতে নিদৃষ্ট ময়লা ফেলার ভাগার না থাকার কারনে পৌরসভাসহ আশপাশে এলাকার দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার পরবর্তী উৎসৃষ্ট বা ময়লা ফেলা হতো ঈশ্বরদী শহরের প্রবেশদ্বার ঢাকা-পাবনা মহাসড়কের হারুখোলা মাঠে।
শহরের প্রবেশদার এবং মহাসড়কের পাশে হওয়ার কারনে এই রাস্তায় চলাচলকারী পথচারীদের প্রতিনিয়ত দূর্গন্ধ সহ্য করতে হতো। আর মহাসড়কের পাশে দূর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ময়লার ভাগার রাখার ফলে সাধারণ মানুষসহ ভুক্ত ভোগীদের সমালোচনা আর রোশানলে পরতে হতো ঈশ্বরদীর নীতি নির্ধারকদের। সেই সমালোচনা এড়াতে এবং পথচারীদের স্বস্তির যাত্রা নিশ্চিত করতে সম্প্রতি ঈশ্বরদী শহরের ফতেমোহাম্মদপুর এলাকায় পৌরসভা কর্তৃক নির্ধারিত স্থানে শহরের সকল আবর্জনা ফেলার নির্দেশনা দিয়েছেন ঈশ্বরদী পৌরসভার নগর পিতা ইসহাক আলী মালিথা। এই মর্মে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশেষ ভাবে নিষেধ করার পরও তারা সেই নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে হারুখোলা মাঠেই ময়লা-আবর্জনা ফেলছে।
বিষয়টি নিয়ে অত্যন্ত ক্ষুদ্ধ হয়ে মেয়র আমাদের ঈশ্বরদীকে বলেন, হারুখোলা মাঠে কোন প্রকার ময়লা ফেলা যাবে না। পৌরসভা কর্তৃক সকলকে নিষেধ করা হয়েছে। তবে পৌরসভা অথবা বাইরের কোন ব্যক্তি বা গাড়ী যোগে যদি এখানে কোন প্রকার ময়লা ফেলতে কেউ দেখেন তবে তারা যেন আমাদের খবর দেন। তার পাশাপাশি ময়লা বহন কারী গাড়ী বা ব্যক্তিকে কঠোর ভাবে নিষেধ করেন সবাই। এ বিষয়ে সকলের সহযোগীতা তিনি কামনা করেছেন।