ঢাকা ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঈদের পর রেমিট্যান্সে ফিরে এসেছে গতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১১:৪৪:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪২৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

প্রতিবার ঈদের আগে প্রবাসীদের পাঠানো আয় বা রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ে, তবে এবার ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে। ঈদুল ফিতরের আগে প্রবাসী আয় বাড়েনি, ঈদের পর ফিরে এসেছে গতি।

রোববার (২১ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি এপ্রিল মাসের ১৯ দিনে প্রবাসীরা ১২৮ কোটি ১৫ লাখ ১০ হাজার (১.২৮ বিলিয়ন) ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন।

প্রবাসী আয়ে প্রতি ডলারে ১১০ টাকা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। সেই হিসাবে টাকার অঙ্কে এই ১৯ দিনে ১৪ হাজার ৯৬ কোটি টাকা পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রতিদিনের গড় হিসাবে এসেছে ৬ কোটি ৭৪ লাখ ডলার বা ৭৪২ কোটি টাকা।

মাসের বাকি ১১ দিনে (২০ থেকে ৩০ এপ্রিল) এই হারে এলে মাস শেষে রেমিট্যান্সের অঙ্ক ২ বিলিয়ন (২০০ কোটি) ডলার ছাড়িয়ে যাবে বলে হিসাব বলছে।

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১০৮ কোটি ৮১ লাখ ডলার এসেছে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে। এছাড়া রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১১ কোটি ডলার, বিশেষায়িত একটি ব্যাংকের মাধ্যমে ৭ কোটি ৯০ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩৯ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার।

এর আগে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে ২১০ কোটি ডলার, ফেব্রুয়া‌রি‌তে ২১৬ কো‌টি ৬০ লাখ ডলার এবং মার্চে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১৯৯ কোটি ৬৮ লাখ মার্কিন ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যমতে, ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে প্রবাসীরা ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ডলার, মার্চে ২০২ কোটি, এপ্রিলে ১৬৮ কোটি, মে মাসে ১৬৯ কোটি, জুনে ২২০ কোটি, জুলাইয়ে ১৯৭ কোটি, আগস্টে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ, সেপ্টেম্বর মাসে ১৩৩ কোটি, অক্টোবরে ১৯৭ কোটি, নভেম্বর ১৯৩ কোটি ডলার এবং ডিসেম্বরে এসেছিল ১৯৯ কোটি ডলার রেমিট্যান্স।

প্রসঙ্গত, ২০২২-২৩ অর্থবছরে প্রবাসীরা ২ হাজার ১৬১ কোটি মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দুই হাজার ৪৭৭ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স এসেছিল দেশে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ঈদের পর রেমিট্যান্সে ফিরে এসেছে গতি

আপডেট সময় : ১১:৪৪:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

প্রতিবার ঈদের আগে প্রবাসীদের পাঠানো আয় বা রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ে, তবে এবার ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে। ঈদুল ফিতরের আগে প্রবাসী আয় বাড়েনি, ঈদের পর ফিরে এসেছে গতি।

রোববার (২১ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি এপ্রিল মাসের ১৯ দিনে প্রবাসীরা ১২৮ কোটি ১৫ লাখ ১০ হাজার (১.২৮ বিলিয়ন) ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন।

প্রবাসী আয়ে প্রতি ডলারে ১১০ টাকা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। সেই হিসাবে টাকার অঙ্কে এই ১৯ দিনে ১৪ হাজার ৯৬ কোটি টাকা পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রতিদিনের গড় হিসাবে এসেছে ৬ কোটি ৭৪ লাখ ডলার বা ৭৪২ কোটি টাকা।

মাসের বাকি ১১ দিনে (২০ থেকে ৩০ এপ্রিল) এই হারে এলে মাস শেষে রেমিট্যান্সের অঙ্ক ২ বিলিয়ন (২০০ কোটি) ডলার ছাড়িয়ে যাবে বলে হিসাব বলছে।

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১০৮ কোটি ৮১ লাখ ডলার এসেছে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে। এছাড়া রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১১ কোটি ডলার, বিশেষায়িত একটি ব্যাংকের মাধ্যমে ৭ কোটি ৯০ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩৯ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার।

এর আগে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে ২১০ কোটি ডলার, ফেব্রুয়া‌রি‌তে ২১৬ কো‌টি ৬০ লাখ ডলার এবং মার্চে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১৯৯ কোটি ৬৮ লাখ মার্কিন ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যমতে, ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে প্রবাসীরা ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ডলার, মার্চে ২০২ কোটি, এপ্রিলে ১৬৮ কোটি, মে মাসে ১৬৯ কোটি, জুনে ২২০ কোটি, জুলাইয়ে ১৯৭ কোটি, আগস্টে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ, সেপ্টেম্বর মাসে ১৩৩ কোটি, অক্টোবরে ১৯৭ কোটি, নভেম্বর ১৯৩ কোটি ডলার এবং ডিসেম্বরে এসেছিল ১৯৯ কোটি ডলার রেমিট্যান্স।

প্রসঙ্গত, ২০২২-২৩ অর্থবছরে প্রবাসীরা ২ হাজার ১৬১ কোটি মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দুই হাজার ৪৭৭ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স এসেছিল দেশে।