ঢাকা ০৭:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ইসরায়েলে সঙ্গে গ্যাস চুক্তি বাতিল করেছে বিপি–অ্যাডনক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৬:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৩৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গাজা যুদ্ধের প্রভাব বাড়তে থাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় ইসরায়েলি গ্যাস উৎপাদক নিউমেড এনার্জির সঙ্গে ২ বিলিয়ন ডলারের একটি চুক্তি বাতিল করেছে ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম (বিপি) এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠান অ্যাডনক। এই চুক্তির আওতায় নিউমেড এনার্জির ৫০ ভাগ শেয়ার কেনার কথা ছিল এই দুই প্রতিষ্ঠানের।

বুধবার নিউমেড এনার্জি জানায়, অপ্রত্যাশিক পরিস্থির উদ্ভব হওয়ায় তিন প্রতিষ্ঠানই তাদের আলোচনা স্থগিত করেছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে নিউমেড আরো জানায়, ভবিষ্যতে আলোচনা আবার শুরু হবে কিনা তাও অনিশ্চিত।

ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম এবং অ্যাডনক উভয় প্রতিষ্ঠানই এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। চুক্তি বাতিল হওয়ার পর তেল আবিবে নিউমেড এনার্জির শেয়ার দাম ৭ শতাংশ কমেছে।

গাজায় যুদ্ধ শুরুর পর থেকে মধ্যপ্রাচ্যে বাণিজ্য বেশ ক্ষতির মুখে পড়েছে। যুদ্ধে ইসরায়েলকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগে নানা পশ্চিমা ব্র্যান্ড যেমন স্টারবাকস, ম্যাকডনাল্টস, কেএফসি এবং পিৎজা হাটের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যাপক বয়কটের মুখে পড়ে।

এক বছর আগে ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম নিউমেড এনার্জিতে বিনিয়োগের জন্য অ্যাডনকের সঙ্গে জয়েন্ট ভেঞ্চারের পরিকল্পনা করে। সে সময় তারা বলেছিল, এটা করা হচ্ছে আঞ্চলিক সম্মিলিত স্বার্থকে সামনে রেখে।

ইসরায়েল ও আরব আমিরাতের দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এ ধরনের অর্থনৈতিক যোগকে দেখা হচ্ছিল দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া হিসেবে। কিন্তু এই যুদ্ধের কারণে সে প্রক্রিয়া অনেকটাই বাধাগ্রস্থ হয়েছে। আরব আমিরাত ক্রমাগতভাবে গাজায় যুদ্ধ বিরতির দাবি জানিয়ে আসছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ইসরায়েলে সঙ্গে গ্যাস চুক্তি বাতিল করেছে বিপি–অ্যাডনক

আপডেট সময় : ০১:৫৬:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

গাজা যুদ্ধের প্রভাব বাড়তে থাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় ইসরায়েলি গ্যাস উৎপাদক নিউমেড এনার্জির সঙ্গে ২ বিলিয়ন ডলারের একটি চুক্তি বাতিল করেছে ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম (বিপি) এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠান অ্যাডনক। এই চুক্তির আওতায় নিউমেড এনার্জির ৫০ ভাগ শেয়ার কেনার কথা ছিল এই দুই প্রতিষ্ঠানের।

বুধবার নিউমেড এনার্জি জানায়, অপ্রত্যাশিক পরিস্থির উদ্ভব হওয়ায় তিন প্রতিষ্ঠানই তাদের আলোচনা স্থগিত করেছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে নিউমেড আরো জানায়, ভবিষ্যতে আলোচনা আবার শুরু হবে কিনা তাও অনিশ্চিত।

ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম এবং অ্যাডনক উভয় প্রতিষ্ঠানই এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। চুক্তি বাতিল হওয়ার পর তেল আবিবে নিউমেড এনার্জির শেয়ার দাম ৭ শতাংশ কমেছে।

গাজায় যুদ্ধ শুরুর পর থেকে মধ্যপ্রাচ্যে বাণিজ্য বেশ ক্ষতির মুখে পড়েছে। যুদ্ধে ইসরায়েলকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগে নানা পশ্চিমা ব্র্যান্ড যেমন স্টারবাকস, ম্যাকডনাল্টস, কেএফসি এবং পিৎজা হাটের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যাপক বয়কটের মুখে পড়ে।

এক বছর আগে ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম নিউমেড এনার্জিতে বিনিয়োগের জন্য অ্যাডনকের সঙ্গে জয়েন্ট ভেঞ্চারের পরিকল্পনা করে। সে সময় তারা বলেছিল, এটা করা হচ্ছে আঞ্চলিক সম্মিলিত স্বার্থকে সামনে রেখে।

ইসরায়েল ও আরব আমিরাতের দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এ ধরনের অর্থনৈতিক যোগকে দেখা হচ্ছিল দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া হিসেবে। কিন্তু এই যুদ্ধের কারণে সে প্রক্রিয়া অনেকটাই বাধাগ্রস্থ হয়েছে। আরব আমিরাত ক্রমাগতভাবে গাজায় যুদ্ধ বিরতির দাবি জানিয়ে আসছে।