ঢাকা ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ইসরাইল ধ্বংস হবে একদিন শুধু অপেক্ষা মাত্র : সৈয়্যদ রমিজ উদ্দিন চিশতী 

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৫:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৭৫ বার পড়া হয়েছে

smart

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
ভারতের হযরত খাজা মঈনুদ্দিন চিশতী (রঃ)দরগাহ পরিচালনা কমিটির সাবেক কোষাধ্যক্ষ আলহাজ শাহসুফি সৈয়্যদ মোহাম্মদ রিদোওয়ান উদ্দিন চিশতীর একমাত্র শাহাজাদা সৈয়্যদ মাওলানা মোহাম্মদ রমিজ উদ্দিন চিশতী (মা.জি.আ) বলেছেন ফিলিস্তিনের মুসলমানদের পাশে আছেন স্বয়ং আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামিন। একদিন পশ্চিমা বিশ্বকে ধংস করবেন আল্লাহ নিজেই।
তিনি বলেন, মুসলমানরা বিভিন্ন সময় ইসলামকে রক্ষা করতে গিয়ে নিজের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছেন। এরপরও অন্যায়ের কাছে মাথানত করেননি। যেমন কারবালা ময়দানটি ছিল ন্যায় অন্যায়ের ফয়সালা মাত্র।উহুদ, বদর যুদ্ধসহ ইসলামের যত যুদ্ধ হয়েছে সব ন্যায় অন্যায়ের যুদ্ধ। প্রতিটি যুদ্ধে মুসলমানরা বিজয়ি হয়েছেন। কারণ সেখানে আল্লাহর ফয়সালা ছিল মুসলমানের পক্ষে।
তিনি বলেন, ইসরাইল ধংস হবে একদিন, শুধু অপেক্ষা মাত্র। মুসলমানদের জন্য এটিও একটি বড় পরিক্ষা। খাজা গরিবে নেওয়াজ (রঃ)ও অনেক কস্ট করে ইসলাম প্রচার করেছিলেন। এত সহজে এ উপমহাদেশে ইসলাম আসেনি। ত্যাগ ও ধৈর্য্য দিয়ে আল্লাহর নবিজী (স.)’র  ইসলামের বানী প্রচার করেছেন খাজা গরিবে নেওয়াজ( রঃ)। আর এই ইসলামকে যারা ধংস করতে চাচ্ছে তারা নিজেরাই একদিন ধংস হয়ে যাবে।(৩রা মার্চ) রবিবার দুপুরে রাউজানের হলদিয়া ইউপির সর্তার পুর্বকুলে হজরত খাজা নেজাম উদ্দিন আউলিয়া জামে মসজিদে আয়োজিত ওরশে খাজা গরিব নেওয়াজ ও দোয়া মাহফিলে যোগদান করে প্রধান মেহমানের বক্তব্য রাখেন তিনি।
রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক এস এম বাবরের সভাপতিত্বে ও মাওলানা মুহাম্মদ জুনায়েদ কাদেরীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন, সংগঠক লেখক গবেষক আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ আলী আকবর তৈয়্যবী (মা.জি.আ)। বক্তব্য রাখেন গর্জনিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আরবি মেদার্রিছ মাওলানা মোহাম্মদ জাফর আলম নুরী, রাউজান প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মাওলানা এম বেলাল উদ্দিন, আজমীর শরীফ থেকে আগত আলহাজ মোহাম্মদ মমতাজ, সফর সঙ্গী মোহাম্মদ নুরুল আমিন দোভাষ।
উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ মাইজভান্ডারী, মাওলানা মুহাম্মদ জিলহাজ্ব উদ্দিন আত্তারী, মোহাম্মদ আব্দুল জব্বার সওদাগর, মোহাম্মদ রুবেল, মোহাম্মদ আবুল কাসেম, কাজি মাওলানা মুহাম্মদ মুসা। পরে মাওলানা কামাল উদ্দিন রেজভী (রহঃ) বাসভবনে নাত মাহফিল, মধ্যহ্ন ভোজ ও সংবর্ধনা মাহফিলে শরিক হন তিনি।
এতে নাত পরিবেশন করেন মাওলানা মুহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন কাদেরী,মাওলানা তাজ মোহাম্মদ রেজভী, মাওলানা মুহাম্মদ ওসমান গনী কাদেরী, হাফেজ মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন কাদেরী। মাহফিল শেষে বাংলাদেশ, ফিলিস্তিনসহ বিশ্বের সকল মুসলিম উম্মার শান্তি ও উন্নতি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

ইসরাইল ধ্বংস হবে একদিন শুধু অপেক্ষা মাত্র : সৈয়্যদ রমিজ উদ্দিন চিশতী 

আপডেট সময় : ০৩:৩৫:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
ভারতের হযরত খাজা মঈনুদ্দিন চিশতী (রঃ)দরগাহ পরিচালনা কমিটির সাবেক কোষাধ্যক্ষ আলহাজ শাহসুফি সৈয়্যদ মোহাম্মদ রিদোওয়ান উদ্দিন চিশতীর একমাত্র শাহাজাদা সৈয়্যদ মাওলানা মোহাম্মদ রমিজ উদ্দিন চিশতী (মা.জি.আ) বলেছেন ফিলিস্তিনের মুসলমানদের পাশে আছেন স্বয়ং আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামিন। একদিন পশ্চিমা বিশ্বকে ধংস করবেন আল্লাহ নিজেই।
তিনি বলেন, মুসলমানরা বিভিন্ন সময় ইসলামকে রক্ষা করতে গিয়ে নিজের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছেন। এরপরও অন্যায়ের কাছে মাথানত করেননি। যেমন কারবালা ময়দানটি ছিল ন্যায় অন্যায়ের ফয়সালা মাত্র।উহুদ, বদর যুদ্ধসহ ইসলামের যত যুদ্ধ হয়েছে সব ন্যায় অন্যায়ের যুদ্ধ। প্রতিটি যুদ্ধে মুসলমানরা বিজয়ি হয়েছেন। কারণ সেখানে আল্লাহর ফয়সালা ছিল মুসলমানের পক্ষে।
তিনি বলেন, ইসরাইল ধংস হবে একদিন, শুধু অপেক্ষা মাত্র। মুসলমানদের জন্য এটিও একটি বড় পরিক্ষা। খাজা গরিবে নেওয়াজ (রঃ)ও অনেক কস্ট করে ইসলাম প্রচার করেছিলেন। এত সহজে এ উপমহাদেশে ইসলাম আসেনি। ত্যাগ ও ধৈর্য্য দিয়ে আল্লাহর নবিজী (স.)’র  ইসলামের বানী প্রচার করেছেন খাজা গরিবে নেওয়াজ( রঃ)। আর এই ইসলামকে যারা ধংস করতে চাচ্ছে তারা নিজেরাই একদিন ধংস হয়ে যাবে।(৩রা মার্চ) রবিবার দুপুরে রাউজানের হলদিয়া ইউপির সর্তার পুর্বকুলে হজরত খাজা নেজাম উদ্দিন আউলিয়া জামে মসজিদে আয়োজিত ওরশে খাজা গরিব নেওয়াজ ও দোয়া মাহফিলে যোগদান করে প্রধান মেহমানের বক্তব্য রাখেন তিনি।
রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক এস এম বাবরের সভাপতিত্বে ও মাওলানা মুহাম্মদ জুনায়েদ কাদেরীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন, সংগঠক লেখক গবেষক আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ আলী আকবর তৈয়্যবী (মা.জি.আ)। বক্তব্য রাখেন গর্জনিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আরবি মেদার্রিছ মাওলানা মোহাম্মদ জাফর আলম নুরী, রাউজান প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মাওলানা এম বেলাল উদ্দিন, আজমীর শরীফ থেকে আগত আলহাজ মোহাম্মদ মমতাজ, সফর সঙ্গী মোহাম্মদ নুরুল আমিন দোভাষ।
উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ মাইজভান্ডারী, মাওলানা মুহাম্মদ জিলহাজ্ব উদ্দিন আত্তারী, মোহাম্মদ আব্দুল জব্বার সওদাগর, মোহাম্মদ রুবেল, মোহাম্মদ আবুল কাসেম, কাজি মাওলানা মুহাম্মদ মুসা। পরে মাওলানা কামাল উদ্দিন রেজভী (রহঃ) বাসভবনে নাত মাহফিল, মধ্যহ্ন ভোজ ও সংবর্ধনা মাহফিলে শরিক হন তিনি।
এতে নাত পরিবেশন করেন মাওলানা মুহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন কাদেরী,মাওলানা তাজ মোহাম্মদ রেজভী, মাওলানা মুহাম্মদ ওসমান গনী কাদেরী, হাফেজ মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন কাদেরী। মাহফিল শেষে বাংলাদেশ, ফিলিস্তিনসহ বিশ্বের সকল মুসলিম উম্মার শান্তি ও উন্নতি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।
বাখ//আর