শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও তাদের আশ্রয়দাতাদের চাহিদা পূরণে পাশে আছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ভেন্যু নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব শুক্রবার কেটে যাবে: হারুন ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচের দিন ঝড়বৃষ্টির শঙ্কা চিকিৎসকরা উপজেলায় যেতে চান না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সচিবরা নিজেদের রাজা মনে করেন: হাইকোর্ট বিএনপি চায় কমলাপুর স্টেডিয়াম, ডিএমপি বলছে বাঙলা কলেজ নারী শিক্ষার প্রসারে বেগম রোকেয়ার অবদান অন্তহীন প্রেরণার উৎস: প্রধানমন্ত্রী ‘বিয়ে’ করছেন শুভ-অন্তরা! দুজনেরই সিদ্ধান্ত বিয়ে করব না: নুসরাত ফারিয়া স্পিকারের সঙ্গে চীন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ হাসপাতালে রোগীদের বারবার একই টেস্ট বন্ধ কর‍তে হবে : মেয়র আতিক নয়াপল্টনে ‘সহিংসতা’র সুষ্ঠু তদন্ত চায় যুক্তরাষ্ট্র ফখরুল সাহেব, হুঁশ হারাবেন না, অবস্থা শিশুবক্তার মতো হবে: হানিফ রাঙ্গাবালীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ  সাঁথিয়ায় অটোবাইক চাপায় প্রাণ গেল শিশুর

ইরান রক্তমাখা টাকা আয় করছে : জেলেনস্কি

ইরান রক্তমাখা টাকা আয় করছে : জেলেনস্কি
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি ইরানকে দায়ী করে বলেছেন, রাশিয়াকে ‘কামিকাজে ড্রোন’ দিয়ে তারা রক্তমাখা টাকা নিচ্ছে। এসব ড্রোন ইউক্রেনের বিরুদ্ধে প্রাণনাশক হামলা চালাচ্ছে।

সেপ্টেম্বরে ইউক্রেনে রাশিয়ার ড্রোন হামলা বেড়ে যায়। যুক্তরাষ্ট্র জানায় শহীদ-১৩৬ নামের ড্রোন ইরানের কাছ থেকে কিনে এনেছে রাশিয়া। তবে এসব দাবি অস্বীকার করেছে ইরান। যদিও ইরানের ড্রোন ব্যবহার করার একাধিক প্রমাণ পাওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেন।

ইরানের সমালোচনা করে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি কানাডার সিটিভিকে বুধবার বলেন, আমি ইরানের নেতৃবৃন্দকে বিশ্বাস করি না। তারা প্রকাশ্যে সবকিছু অস্বীকার করে, বলে আমরা কিছু বিক্রি করিনি। কিন্তু আমরা এখানে দেখি, ইউক্রেনে, শহরে, বেসামরিক স্থাপনায়, স্কুলে, বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইরানি ড্রোন দিয়ে) কয়েকশ হামলা এবং এগুলো আমাদের জ্বালানি অবকাঠামো বন্ধ করে দিচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ইরান তাদের ড্রোন সরবরাহ করছে। তাদের হত্যা সরবরাহ করছে, ইউক্রেনের মানুষের হত্যা সরবরাহ করছে। এটিতেই তারা সম্মত হয়েছে। টাকার জন্য সম্মত হয়েছে। রক্তমাখা টাকা ইরান আয় করছে। সূত্র: সিএনএন ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *