ঢাকা ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ইরানের ড্রোন বিশেষজ্ঞরা রুশ সেনাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন : যুক্তরাষ্ট্র

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:০১:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৮৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে ইউক্রেনে ড্রোন হামলা চালাচ্ছে রুশ বাহিনী। ইরানের সামরিক বাহিনীর ড্রোন বিশেষজ্ঞরা সেখানে তাদের সাহায্য করছেন বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। রুশ সেনাদের ড্রোন চালানোর প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন তারা। এদিকে রুশ বাহিনী ইরানি ড্রোন দিয়ে ইউক্রেনে হামলা চালানোর দাবি করেছে কিয়েভ। আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস গত শুক্রবার (২১ অক্টোবর) সাংবাদিকদের জানান, তারা এটা নিশ্চিত করেছেন, ক্রিমিয়ায় রাশিয়ার সেনারা ইরানের ড্রোন দিয়ে ইউক্রেনে হামলা চালাচ্ছেন। সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে কিয়েভে ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

নেড প্রাইস আরো বলেন, তারা জানতে পেরেছেন, ইরানের ড্রোন বিশেষজ্ঞরা ক্রিমিয়ায় রুশ বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে তাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এ অভিযোগ নিয়ে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি ইরান। তবে তেহরান এর আগে জানিয়েছে, রুশ বাহিনীর ব্যবহৃত এই ড্রোন ইরানের তৈরি নয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। ইউক্রেন যুদ্ধে ইরানের ড্রোন ব্যবহারের অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া। তবে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ইরানের ‘কামিকাজে’ ড্রোন দিয়ে রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। এসব হামলার ফলে ইউক্রেনের বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় অনেকটা বিগ্ন ঘটেছে। ইউক্রেনীয় বাহিনী দুই শতাধিক ড্রোন ভূপাতিত করার দাবিও করেছে।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের ক্রিমিয়া উপদ্বীপ দখল করে রাশিয়া। এরপর দ্বীপটিকে রাশিয়ার অংশ করে নেয়। ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য সেনাদের প্রশিক্ষণ ও সোভিয়েত আমলের সামরিক ঘাঁটি আবারও সচল করার জন্য এই উপদ্বীপকে ব্যবহার করছে ক্রেমলিন। রাশিয়ার সেনাদের ক্রিমিয়া দিয়েই ইউক্রেনের মূল ভূখণ্ডে পাঠানো হচ্ছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ইরানের ড্রোন বিশেষজ্ঞরা রুশ সেনাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন : যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট সময় : ১০:০১:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে ইউক্রেনে ড্রোন হামলা চালাচ্ছে রুশ বাহিনী। ইরানের সামরিক বাহিনীর ড্রোন বিশেষজ্ঞরা সেখানে তাদের সাহায্য করছেন বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। রুশ সেনাদের ড্রোন চালানোর প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন তারা। এদিকে রুশ বাহিনী ইরানি ড্রোন দিয়ে ইউক্রেনে হামলা চালানোর দাবি করেছে কিয়েভ। আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস গত শুক্রবার (২১ অক্টোবর) সাংবাদিকদের জানান, তারা এটা নিশ্চিত করেছেন, ক্রিমিয়ায় রাশিয়ার সেনারা ইরানের ড্রোন দিয়ে ইউক্রেনে হামলা চালাচ্ছেন। সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে কিয়েভে ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

নেড প্রাইস আরো বলেন, তারা জানতে পেরেছেন, ইরানের ড্রোন বিশেষজ্ঞরা ক্রিমিয়ায় রুশ বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে তাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এ অভিযোগ নিয়ে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি ইরান। তবে তেহরান এর আগে জানিয়েছে, রুশ বাহিনীর ব্যবহৃত এই ড্রোন ইরানের তৈরি নয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। ইউক্রেন যুদ্ধে ইরানের ড্রোন ব্যবহারের অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া। তবে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ইরানের ‘কামিকাজে’ ড্রোন দিয়ে রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। এসব হামলার ফলে ইউক্রেনের বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় অনেকটা বিগ্ন ঘটেছে। ইউক্রেনীয় বাহিনী দুই শতাধিক ড্রোন ভূপাতিত করার দাবিও করেছে।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের ক্রিমিয়া উপদ্বীপ দখল করে রাশিয়া। এরপর দ্বীপটিকে রাশিয়ার অংশ করে নেয়। ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য সেনাদের প্রশিক্ষণ ও সোভিয়েত আমলের সামরিক ঘাঁটি আবারও সচল করার জন্য এই উপদ্বীপকে ব্যবহার করছে ক্রেমলিন। রাশিয়ার সেনাদের ক্রিমিয়া দিয়েই ইউক্রেনের মূল ভূখণ্ডে পাঠানো হচ্ছে।