ঢাকা ০৫:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

‘ইত্যাদি’ খ্যাত হানিফ সংকেতের জন্মদিন আজ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৩১:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

যুগের পর যুগ কথার জাদু দিয়ে কোটি দর্শককে মুগ্ধ করে রেখেছেন হানিফ সংকেত। বিটিভি হয়তো তার সেই শানশওকত হারিয়ে ফেলেছে স্যাটেলাইটের বিকাশে। তবে আজও বিটিভির জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‌‘ইত্যাদি’ দেশের সবচেয়ে কোটি দর্শকের হৃদয়ে তরঙ্গ তুলে চলছে কেবল তার কথার মুনশিয়ানার জোরেই।

শব্দে ঢেউ তোলা কথার জাদুকর, উপস্থাপক, পরিচালক, অভিনেতা, প্রযোজক, লেখক, নির্মাতা—এমন বহুমাত্রিক গুণের অধিকারী হানিফ সংকেতের জন্মদিন আজ।

১৯৫৮ সালের ২৩ অক্টোবর বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন হানিফ সংকেত। প্রয়াত ফজলে লোহানীর ‘যদি কিছু মনে না করেন’ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান দিয়ে তিনি খ্যাতি লাভ করেন। এরপর দেশের ইতিহাসে সর্বাধিক জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’ নিয়ে হাজির হন। স্যাটেলাইট চ্যানেলের আধিপত্যেও ‘ইত্যাদি’ নিয়ে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের উপস্থাপক হিসেবে এখনো রাজত্ব করে চলেছেন তিনি। তার পরিচালিত ও উপস্থাপিত অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে সামাজিক অসঙ্গতি, দুর্নীতিবিরোধী কার্যক্রম তুলে ধরেন।

কিছুটা রম্যভাবে সমসাময়িক নিন্দিত ঘটনার বর্ণনা ও তার বিরোধিতা করে সামাজিক করণীয় তুলে ধরেন তিনি। হানিফ সংকেত নিজের কাজের ব্যাপারে খুব সচেতন। নাটক পরিচালনার বেপারেও হানিফ সংকেত দেখিয়েছেন নির্মাণ কৌশলের মুনশিয়ানা। তার পরিচালিত জনপ্রিয় নাটকের মধ্যে ‘আয় ফিরে তোর প্রাণের বারান্দায়’, ‘দুর্ঘটনা’, ‘তোষামোদে খোশ আমোদে’, ‘কিংকর্তব্য’, ‘কুসুম কুসুম ভালোবাসা’, ‘শেষে এসে অবশেষে’ উল্লেখযোগ্য।

চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন হানিফ সংকেত। বেশ কয়েকটি ব্যঙ্গ ও রম্য রচনা লিখেছেন তিনি। এর মধ্যে ‘চৌচাপটে’, ‘এপিঠ ওপিঠ’, ‘ধন্যবাদ’, ‘অকাণ্ড কাণ্ড’, ‘খবরে প্রকাশ’, ‘ফুলের মতো পবিত্র… ’, ‘প্রতি ও ইতি’, ‘আটখানার পাটখানা’ অন্যতম। এ ছাড়া তার লিখিত রম্যসাহিত্য পাঠকসমাজে ব্যাপক সমাদৃত এবং তুমুল জনপ্রিয়।

সামাজিক কার্যক্রমে অবদানের জন্য ২০২০ সালের জন্য ২১শে ফেব্রুয়ারি ‘একুশে পদক’  লাভ করেন হানিফ সংকেত। পরিবেশ শিক্ষা এবং প্রচারের জন্য ২০১৪ সালে জাতীয় পরিবেশ পদকও দেওয়া হয় তাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

‘ইত্যাদি’ খ্যাত হানিফ সংকেতের জন্মদিন আজ

আপডেট সময় : ০৭:৩১:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :

যুগের পর যুগ কথার জাদু দিয়ে কোটি দর্শককে মুগ্ধ করে রেখেছেন হানিফ সংকেত। বিটিভি হয়তো তার সেই শানশওকত হারিয়ে ফেলেছে স্যাটেলাইটের বিকাশে। তবে আজও বিটিভির জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‌‘ইত্যাদি’ দেশের সবচেয়ে কোটি দর্শকের হৃদয়ে তরঙ্গ তুলে চলছে কেবল তার কথার মুনশিয়ানার জোরেই।

শব্দে ঢেউ তোলা কথার জাদুকর, উপস্থাপক, পরিচালক, অভিনেতা, প্রযোজক, লেখক, নির্মাতা—এমন বহুমাত্রিক গুণের অধিকারী হানিফ সংকেতের জন্মদিন আজ।

১৯৫৮ সালের ২৩ অক্টোবর বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন হানিফ সংকেত। প্রয়াত ফজলে লোহানীর ‘যদি কিছু মনে না করেন’ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান দিয়ে তিনি খ্যাতি লাভ করেন। এরপর দেশের ইতিহাসে সর্বাধিক জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’ নিয়ে হাজির হন। স্যাটেলাইট চ্যানেলের আধিপত্যেও ‘ইত্যাদি’ নিয়ে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের উপস্থাপক হিসেবে এখনো রাজত্ব করে চলেছেন তিনি। তার পরিচালিত ও উপস্থাপিত অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে সামাজিক অসঙ্গতি, দুর্নীতিবিরোধী কার্যক্রম তুলে ধরেন।

কিছুটা রম্যভাবে সমসাময়িক নিন্দিত ঘটনার বর্ণনা ও তার বিরোধিতা করে সামাজিক করণীয় তুলে ধরেন তিনি। হানিফ সংকেত নিজের কাজের ব্যাপারে খুব সচেতন। নাটক পরিচালনার বেপারেও হানিফ সংকেত দেখিয়েছেন নির্মাণ কৌশলের মুনশিয়ানা। তার পরিচালিত জনপ্রিয় নাটকের মধ্যে ‘আয় ফিরে তোর প্রাণের বারান্দায়’, ‘দুর্ঘটনা’, ‘তোষামোদে খোশ আমোদে’, ‘কিংকর্তব্য’, ‘কুসুম কুসুম ভালোবাসা’, ‘শেষে এসে অবশেষে’ উল্লেখযোগ্য।

চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন হানিফ সংকেত। বেশ কয়েকটি ব্যঙ্গ ও রম্য রচনা লিখেছেন তিনি। এর মধ্যে ‘চৌচাপটে’, ‘এপিঠ ওপিঠ’, ‘ধন্যবাদ’, ‘অকাণ্ড কাণ্ড’, ‘খবরে প্রকাশ’, ‘ফুলের মতো পবিত্র… ’, ‘প্রতি ও ইতি’, ‘আটখানার পাটখানা’ অন্যতম। এ ছাড়া তার লিখিত রম্যসাহিত্য পাঠকসমাজে ব্যাপক সমাদৃত এবং তুমুল জনপ্রিয়।

সামাজিক কার্যক্রমে অবদানের জন্য ২০২০ সালের জন্য ২১শে ফেব্রুয়ারি ‘একুশে পদক’  লাভ করেন হানিফ সংকেত। পরিবেশ শিক্ষা এবং প্রচারের জন্য ২০১৪ সালে জাতীয় পরিবেশ পদকও দেওয়া হয় তাকে।