ঢাকা ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ইউক্রেনে রাশিয়ার দাবীকে যুক্তরাষ্ট্র কখনোই স্বীকৃতি দেবে না : বাইডেন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৩৫:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৪৯৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বৃহস্পতিবার দৃঢ়তার সঙ্গে বলেছেন যে, ইউক্রেনে রাশিয়ার নেতৃত্বে গণভোটের ফলাফলকে ‘কখনোই, কখনোই, কখনোই’ স্বীকৃতি দেবে না। তিনি এই তথাকথিত প্রহসনের গণভোটকে আন্তর্জাতিক নীতির ‘প্রকাশ্য লঙ্ঘন’ বলে অভিহিত করেছেন।
ওয়াশিংটনে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপের নেতাদের সঙ্গে দেখা করার সময় বাইডেন বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে খুব স্পষ্ট হতে চাই। ইউক্রেনের সার্বভৌম ভূখন্ডে রাশিয়ার দাবিকে যুক্তরাষ্ট্র কখনোই স্বীকৃতি দেবে না।’
তিনি বলেন, ‘তথাকথিত গণভোট ছিল একটি প্রহসন, একটি সম্পূর্ণ ছলনা। ফলাফল মস্কোতে তৈরি করা হয়েছিল।
বাইডেন বলেন, ‘ইউক্রেনীয় জনগণের সত্যিকারের ইচ্ছা প্রতিদিন প্রতিফলিত হচ্ছে, কারণ তারা তাদের জনগণকে বাঁচাতে এবং তাদের দেশের স্বাধীনতা বজায় রাখতে তাদের জীবন উৎসর্গ করছে।’
প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের কথা উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, ‘পুতিনের সাম্রাজ্যবাদী উচ্চাকাক্সক্ষার জন্য ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার হামলা জাতিসংঘের সনদ এবং সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখন্ডতার মৌলিক নীতির স্পষ্ট লঙ্ঘন।’
ক্রেমলিন বলেছে, ইউক্রেনের চারটি অংশের সংযুক্তিকরণ আনুষ্ঠানিকভাবে শুক্রবার ঘোষণা করা হবে, পুতিন একটি বক্তৃতা দেবেন।
রাশিয়ার বিরুদ্ধে পাল্টা স্থল অভিযানে ইউক্রেনের সাফল্যের মধ্যে পুতিন অঞ্চলগুলিকে রক্ষা করার জন্য পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করার গোপন হুমকি দিয়েছেন। রাশিয়া গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এর আগে ক্রেমলিনের মঞ্চস্থ ভোটকে আন্তর্জাতিক শান্তির অবমাননা বলে অভিহিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ইউক্রেনে রাশিয়ার দাবীকে যুক্তরাষ্ট্র কখনোই স্বীকৃতি দেবে না : বাইডেন

আপডেট সময় : ০১:৩৫:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বৃহস্পতিবার দৃঢ়তার সঙ্গে বলেছেন যে, ইউক্রেনে রাশিয়ার নেতৃত্বে গণভোটের ফলাফলকে ‘কখনোই, কখনোই, কখনোই’ স্বীকৃতি দেবে না। তিনি এই তথাকথিত প্রহসনের গণভোটকে আন্তর্জাতিক নীতির ‘প্রকাশ্য লঙ্ঘন’ বলে অভিহিত করেছেন।
ওয়াশিংটনে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপের নেতাদের সঙ্গে দেখা করার সময় বাইডেন বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে খুব স্পষ্ট হতে চাই। ইউক্রেনের সার্বভৌম ভূখন্ডে রাশিয়ার দাবিকে যুক্তরাষ্ট্র কখনোই স্বীকৃতি দেবে না।’
তিনি বলেন, ‘তথাকথিত গণভোট ছিল একটি প্রহসন, একটি সম্পূর্ণ ছলনা। ফলাফল মস্কোতে তৈরি করা হয়েছিল।
বাইডেন বলেন, ‘ইউক্রেনীয় জনগণের সত্যিকারের ইচ্ছা প্রতিদিন প্রতিফলিত হচ্ছে, কারণ তারা তাদের জনগণকে বাঁচাতে এবং তাদের দেশের স্বাধীনতা বজায় রাখতে তাদের জীবন উৎসর্গ করছে।’
প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের কথা উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, ‘পুতিনের সাম্রাজ্যবাদী উচ্চাকাক্সক্ষার জন্য ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার হামলা জাতিসংঘের সনদ এবং সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখন্ডতার মৌলিক নীতির স্পষ্ট লঙ্ঘন।’
ক্রেমলিন বলেছে, ইউক্রেনের চারটি অংশের সংযুক্তিকরণ আনুষ্ঠানিকভাবে শুক্রবার ঘোষণা করা হবে, পুতিন একটি বক্তৃতা দেবেন।
রাশিয়ার বিরুদ্ধে পাল্টা স্থল অভিযানে ইউক্রেনের সাফল্যের মধ্যে পুতিন অঞ্চলগুলিকে রক্ষা করার জন্য পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করার গোপন হুমকি দিয়েছেন। রাশিয়া গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এর আগে ক্রেমলিনের মঞ্চস্থ ভোটকে আন্তর্জাতিক শান্তির অবমাননা বলে অভিহিত করেছেন।