ঢাকা ০৪:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আ.লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হলেন লেনিন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:২৬:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৯৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনোনীত হয়েছেন ড. নূহ-উল-আলম-লেনিন। আজ (শনিবার) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

নূহ-উল-আলম লেনিন ১৯৪৭ সালের ১৭ই এপ্রিল বিক্রমপুরের লৌহজং উপজেলার রানীগাঁও গ্রামের জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬২ সালের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধোত্তর বিভিন্ন আন্দোলনে তিনি অংশগ্রহণ করেছেন। মুক্তিযুদ্ধকালে তিনি ছাত্র ইউনিয়ন-ন্যাপ কমিউনিষ্ট পার্টির বিশেষ গেরিলা বাহিনী সংগঠিত করার কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।

১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ছাত্রসমাজের আন্দোলনে নেতৃত্বর ভূমিকা পালন করেন।

নূহ-উল-লেনিন ১৯৯৭ সালে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার পর তাকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য করা হয়। পরবর্তীতে তিনি তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, পরের কাউন্সিলে প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং ২০১৬ সালের কাউন্সিলে সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নির্বাচিত হন।

নূহ-উল-আলম লেনিন একাধারে রাজনীতিবিদ, গবেষক, প্রাবন্ধিক কবি ও কলামিষ্ট। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী একাধিক কমিটিতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘ ১৬ বছর যাবৎ তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মুখপত্র ‘উত্তরণ’ এর প্রকাশক ও সম্পাদক ছিলেন। একই সঙ্গে তিনি দলীয় অনলাইন উত্তরণ বার্তার সম্পাদক এবং প্রকাশক ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আ.লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হলেন লেনিন

আপডেট সময় : ১০:২৬:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনোনীত হয়েছেন ড. নূহ-উল-আলম-লেনিন। আজ (শনিবার) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

নূহ-উল-আলম লেনিন ১৯৪৭ সালের ১৭ই এপ্রিল বিক্রমপুরের লৌহজং উপজেলার রানীগাঁও গ্রামের জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬২ সালের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধোত্তর বিভিন্ন আন্দোলনে তিনি অংশগ্রহণ করেছেন। মুক্তিযুদ্ধকালে তিনি ছাত্র ইউনিয়ন-ন্যাপ কমিউনিষ্ট পার্টির বিশেষ গেরিলা বাহিনী সংগঠিত করার কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।

১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ছাত্রসমাজের আন্দোলনে নেতৃত্বর ভূমিকা পালন করেন।

নূহ-উল-লেনিন ১৯৯৭ সালে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার পর তাকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য করা হয়। পরবর্তীতে তিনি তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, পরের কাউন্সিলে প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং ২০১৬ সালের কাউন্সিলে সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নির্বাচিত হন।

নূহ-উল-আলম লেনিন একাধারে রাজনীতিবিদ, গবেষক, প্রাবন্ধিক কবি ও কলামিষ্ট। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী একাধিক কমিটিতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘ ১৬ বছর যাবৎ তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মুখপত্র ‘উত্তরণ’ এর প্রকাশক ও সম্পাদক ছিলেন। একই সঙ্গে তিনি দলীয় অনলাইন উত্তরণ বার্তার সম্পাদক এবং প্রকাশক ছিলেন।