ঢাকা ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

‘আ.লীগের আমলেই দেশের মানুষ সব পেয়েছে’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৬:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩
  • / ৪৭১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক: সব বাধা অতিক্রম করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশের মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, দেশের মানুষ যা কিছু পেয়েছে তা আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই।

বৃহস্পতিবার (২২শে জুন) গণভবনে দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এ কথা বলেছেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার বাবাকে হত্যা করে আমাদের মানবাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছিল। আমাদের কোনো ভোটাধিকার ছিল না। আমরা কখনও বিচার চাইতে পারেনি।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, বিএনপি যে সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদী একটি দল সেটি আমার কথা নয়; কানাডার কোর্ট এ রায় দিয়েছেন। বিএনপির সন্ত্রাসীরা যারা মানুষ হত্যা, অগ্নিসন্ত্রাস, লুটপাট করেছে; তারা কানাডায় গিয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছিল। তখন তারা এই ঘোষণা দেয় যে বিএনপি একটি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী দল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ যখনই স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পেরেছে তখনই আওয়ামী লীগ জয়ী হয়েছে। সন্ত্রাসীদের কেউ ভোট দেয়নি বলেই আগুন-সন্ত্রাস করেছিল বিএনপি।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগের ভোট চুরি করা লাগে না। আওয়ামী লীগ জনগণের ভোট পায়। আওয়ামী লীগের আস্থা দিয়ে, কাজের মধ্য দিয়ে জনগণের ভোট পায়। আওয়ামী লীগকে যতবার হারানো হয়েছে ততবার চক্রান্ত করে হারানো হয়েছে। জনগণের ভোট ডাকাতি করে আওয়ামী লীগকে হারানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

‘আ.লীগের আমলেই দেশের মানুষ সব পেয়েছে’

আপডেট সময় : ১২:২৬:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: সব বাধা অতিক্রম করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশের মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, দেশের মানুষ যা কিছু পেয়েছে তা আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই।

বৃহস্পতিবার (২২শে জুন) গণভবনে দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এ কথা বলেছেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার বাবাকে হত্যা করে আমাদের মানবাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছিল। আমাদের কোনো ভোটাধিকার ছিল না। আমরা কখনও বিচার চাইতে পারেনি।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, বিএনপি যে সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদী একটি দল সেটি আমার কথা নয়; কানাডার কোর্ট এ রায় দিয়েছেন। বিএনপির সন্ত্রাসীরা যারা মানুষ হত্যা, অগ্নিসন্ত্রাস, লুটপাট করেছে; তারা কানাডায় গিয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছিল। তখন তারা এই ঘোষণা দেয় যে বিএনপি একটি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী দল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ যখনই স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পেরেছে তখনই আওয়ামী লীগ জয়ী হয়েছে। সন্ত্রাসীদের কেউ ভোট দেয়নি বলেই আগুন-সন্ত্রাস করেছিল বিএনপি।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগের ভোট চুরি করা লাগে না। আওয়ামী লীগ জনগণের ভোট পায়। আওয়ামী লীগের আস্থা দিয়ে, কাজের মধ্য দিয়ে জনগণের ভোট পায়। আওয়ামী লীগকে যতবার হারানো হয়েছে ততবার চক্রান্ত করে হারানো হয়েছে। জনগণের ভোট ডাকাতি করে আওয়ামী লীগকে হারানো হয়েছে।