ঢাকা ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আশ্রয়ণ প্রকল্পের ভূমিহীন পরিবারগুলোর উপর জুলুম, নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:৪১:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৫০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

২১ এপ্রিল রোববার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে উত্তর শিবপুর জনসংগঠন ও দিনাজপুর সদর উপজেলা ভূমিহীন সমন্বয় পরিষদ দিনাজপুরের আয়োজনে এবং কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন (সিডিএ)’র সহযোগিতায় উত্তর শিবপুর গ্রামের খাস জলাশয়কে কেন্দ্র করে আশ্রয়ন প্রকল্পের ভূমিহীন পরিবারগুলোর উপর জুলুম-নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উত্তর শিবপুর জনসংগঠন এর সভা প্রধান মোঃ রাজু মিয়া বলেন, আমরা দিনাজপুর সদর উপজেলার ২নং সুন্দরবন ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের শিবপুর গ্রামের ঋণপুকুর পাড়ের ১৭নং জেএল এর অন্তর্গত ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত ৭৬২/১০৩৬নং দাগের ৪.৮২ একর জমিতে ১৯৮৮-১৯৮৯ সাল থেকে অদ্যাবদি ২৫টি ভূমিহীন পরিবার বসবাস করে আসছি।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ২০২৩ সালে ৪ মার্চ ২০টি ভূমিহীন পরিবারকে সেমি পাকা ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়। আশ্রয়ন প্রকল্প উদ্বোধনকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বলেন, ঋণপুকুরের ৯৩৮/১০৩৫ দাগের ৩.৮৬ একর জমি বসবাসরত ভূমিহীন পরিবারগুলোই সরকারি নিয়ম মোতাবেক ভোগদখল করবেন। সেই মোতাবেক আমরা সাংগঠনিকভাবে পুকুরটি ভোগদখল করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, খাস পুকুরটি ভোগদখলে নেওয়ার জন্য সাংগঠনিকভাবে সরকারি অফিসের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করে জানতে পারি উক্ত জমি অবৈধভাবে লাঠিয়াল বাহিনী ইসমাইল, রেজওয়ান, গুলজার সকলের পিতা-গিয়াস উদ্দিন ভূইয়া এবং রুহুল, সাদেক, মিজান, মাসুদ, রায়হান সকলের পিতা-কলিম উদ্দিন ভূইয়া ও মুন্না, পিতা- রুহুল, সর্বসাং-উত্তর শিবপুর।

তারা পেশিশক্তি খাটিয়ে সরকারি নিয়ম উপেক্ষা করে পুকুরটি অবৈধভাবে ভোগদখল করছেন। এমতাবস্থায় আমরা ভূমিহীন পরিবারগুলো সরকারি নিয়ম অনুযায়ী পুকুরটি ভোগদখলে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন সহ হুমকি-ধামকি, মিথ্যা মামলাসহ আশ্রয়ন প্রকল্প হতে উচ্ছেদ করার ভয় দেখিয়ে আসছে।

তাদের নির্যাতনের শিকার হয়েছে ইতিমধ্যে- মোঃ ইনসান, হামিদুল, হাফিজুল, আবুল হাশেম, সোহাগ, আল-আমিন, আমির উদ্দিন, নুরুজ্জামান।

এছাড়া বর্তমান ভূমিহীন প্রাণের ভয়ে আমির উদ্দিন গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। আমরা খাস জমি ও জলমহালে ভূমিহীন পরিবারগুলোর অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং পেশিশক্তির বিরুদ্ধে ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সংবাদ সম্মেলনে ভূমিহীন মোঃ ফজলুল হক মোল্লা, হাবিবুর রহমান, শিরিন বেগম, হরিশ চন্দ্র রায়সহ ভূমিহীন ২৫টি পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

আশ্রয়ণ প্রকল্পের ভূমিহীন পরিবারগুলোর উপর জুলুম, নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৩:৪১:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

২১ এপ্রিল রোববার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে উত্তর শিবপুর জনসংগঠন ও দিনাজপুর সদর উপজেলা ভূমিহীন সমন্বয় পরিষদ দিনাজপুরের আয়োজনে এবং কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন (সিডিএ)’র সহযোগিতায় উত্তর শিবপুর গ্রামের খাস জলাশয়কে কেন্দ্র করে আশ্রয়ন প্রকল্পের ভূমিহীন পরিবারগুলোর উপর জুলুম-নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উত্তর শিবপুর জনসংগঠন এর সভা প্রধান মোঃ রাজু মিয়া বলেন, আমরা দিনাজপুর সদর উপজেলার ২নং সুন্দরবন ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের শিবপুর গ্রামের ঋণপুকুর পাড়ের ১৭নং জেএল এর অন্তর্গত ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত ৭৬২/১০৩৬নং দাগের ৪.৮২ একর জমিতে ১৯৮৮-১৯৮৯ সাল থেকে অদ্যাবদি ২৫টি ভূমিহীন পরিবার বসবাস করে আসছি।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ২০২৩ সালে ৪ মার্চ ২০টি ভূমিহীন পরিবারকে সেমি পাকা ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়। আশ্রয়ন প্রকল্প উদ্বোধনকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বলেন, ঋণপুকুরের ৯৩৮/১০৩৫ দাগের ৩.৮৬ একর জমি বসবাসরত ভূমিহীন পরিবারগুলোই সরকারি নিয়ম মোতাবেক ভোগদখল করবেন। সেই মোতাবেক আমরা সাংগঠনিকভাবে পুকুরটি ভোগদখল করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, খাস পুকুরটি ভোগদখলে নেওয়ার জন্য সাংগঠনিকভাবে সরকারি অফিসের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করে জানতে পারি উক্ত জমি অবৈধভাবে লাঠিয়াল বাহিনী ইসমাইল, রেজওয়ান, গুলজার সকলের পিতা-গিয়াস উদ্দিন ভূইয়া এবং রুহুল, সাদেক, মিজান, মাসুদ, রায়হান সকলের পিতা-কলিম উদ্দিন ভূইয়া ও মুন্না, পিতা- রুহুল, সর্বসাং-উত্তর শিবপুর।

তারা পেশিশক্তি খাটিয়ে সরকারি নিয়ম উপেক্ষা করে পুকুরটি অবৈধভাবে ভোগদখল করছেন। এমতাবস্থায় আমরা ভূমিহীন পরিবারগুলো সরকারি নিয়ম অনুযায়ী পুকুরটি ভোগদখলে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন সহ হুমকি-ধামকি, মিথ্যা মামলাসহ আশ্রয়ন প্রকল্প হতে উচ্ছেদ করার ভয় দেখিয়ে আসছে।

তাদের নির্যাতনের শিকার হয়েছে ইতিমধ্যে- মোঃ ইনসান, হামিদুল, হাফিজুল, আবুল হাশেম, সোহাগ, আল-আমিন, আমির উদ্দিন, নুরুজ্জামান।

এছাড়া বর্তমান ভূমিহীন প্রাণের ভয়ে আমির উদ্দিন গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। আমরা খাস জমি ও জলমহালে ভূমিহীন পরিবারগুলোর অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং পেশিশক্তির বিরুদ্ধে ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সংবাদ সম্মেলনে ভূমিহীন মোঃ ফজলুল হক মোল্লা, হাবিবুর রহমান, শিরিন বেগম, হরিশ চন্দ্র রায়সহ ভূমিহীন ২৫টি পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

বাখ//আর