ঢাকা ১২:২৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আরো এক রেকর্ডের মালিক সাকিব

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৫:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫৪ বার পড়া হয়েছে

টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্পোর্টস ডেস্ক : 
এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া সবকয়টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলেছেন এমন ক্রিকেটার বিশ্বে রয়েছেন তিন জন। সবশেষ এই তালিকায় তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে সোমবার (২৪ অক্টোবর) সাকিব আল হাসানের নাম যুক্ত হলো। অস্ট্রেলিয়ার হোবার্টে আজকের ম্যাচ দিয়ে ভারতের রোহিত শর্মা এবং দিনেশ কার্তিকের সাথে সবকয়টি বিশ্বকাপ খেলা ক্রিকেটারদের ক্লাবে যুক্ত হলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অষ্টম আসরে দুজনই নিজ নিজ দেশের অধিনায়কত্ব করছেন।

ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম সংস্করণের এই লড়াইয়ে রোববার (২৩ অক্টোবর) পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে কীর্তিটা গড়ে ফেলেছেন ভারত অধিনায়ক। সোমবার (২৪ অক্টোবর) হোবার্টে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবগুলো আসরে খেলার রেকর্ডে রোহিতের পাশে বসলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২০০৭ সালে প্রথম বিশ্বকাপে খেলেছিলেন সাকিব। সেই আসরে সাকিব তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে থাকলেও ছিলেন দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। আর ১৫ বছর পরও সাকিব এখন রয়েছেন দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে, এবার সঙ্গে আছে অধিনায়কের গুরুদায়িত্বও।

সাকিব-রোহিতের পাশে নাম উঠতে পারতো টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদেরও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগের সাত আসরেই খেলেছেন তিনি। কিন্তু ফর্ম হারিয়ে এবার আর দলে জায়গা হয়নি তার। এ ছাড়া অবসর না নিলে বিশ্বকাপ দলে থেকে এ রেকর্ডের অংশীদার হতে পারতেন মুশফিকুর রহিমও।

অন্য সব সংস্করণের মতো ২০ ওভারের ক্রিকেটেও দারুণ সব পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আর বিশ্বকাপে সব আসর খেলার পাশাপাশি সমৃদ্ধ করেছেন অর্জনের ভাণ্ডারও। দেড় দশক আগে প্রোটিয়াদের মাটিতে প্রথম আসরে প্রথম ম্যাচেই জাত চেনান সাকিব। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাঁহাতি স্পিনে ৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে নেন ৪টি উইকেট। ভারতের মাটিতে ষষ্ঠ আসরের আগ পর্যন্ত এটিই ছিল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে ৩২টি ম্যাচ খেলে ৭০৫ রান করেছেন বাংলাদেশের পোস্টারবয়। ব্যাটের পাশাপাশি বল হাতেও নিজের সক্ষমতা দেখিয়েছেন এই টাইগার। বল হাতে ১৭.২৯ গড়ে নিয়েছেন ৪১ উইকেট। এই সংস্করণে বিশ্ব আসরে তার চেয়ে বেশি উইকেট নেই আর কারও।

নিউজটি শেয়ার করুন

আরো এক রেকর্ডের মালিক সাকিব

আপডেট সময় : ১২:২৫:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক : 
এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া সবকয়টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলেছেন এমন ক্রিকেটার বিশ্বে রয়েছেন তিন জন। সবশেষ এই তালিকায় তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে সোমবার (২৪ অক্টোবর) সাকিব আল হাসানের নাম যুক্ত হলো। অস্ট্রেলিয়ার হোবার্টে আজকের ম্যাচ দিয়ে ভারতের রোহিত শর্মা এবং দিনেশ কার্তিকের সাথে সবকয়টি বিশ্বকাপ খেলা ক্রিকেটারদের ক্লাবে যুক্ত হলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অষ্টম আসরে দুজনই নিজ নিজ দেশের অধিনায়কত্ব করছেন।

ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম সংস্করণের এই লড়াইয়ে রোববার (২৩ অক্টোবর) পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে কীর্তিটা গড়ে ফেলেছেন ভারত অধিনায়ক। সোমবার (২৪ অক্টোবর) হোবার্টে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবগুলো আসরে খেলার রেকর্ডে রোহিতের পাশে বসলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২০০৭ সালে প্রথম বিশ্বকাপে খেলেছিলেন সাকিব। সেই আসরে সাকিব তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে থাকলেও ছিলেন দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। আর ১৫ বছর পরও সাকিব এখন রয়েছেন দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে, এবার সঙ্গে আছে অধিনায়কের গুরুদায়িত্বও।

সাকিব-রোহিতের পাশে নাম উঠতে পারতো টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদেরও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগের সাত আসরেই খেলেছেন তিনি। কিন্তু ফর্ম হারিয়ে এবার আর দলে জায়গা হয়নি তার। এ ছাড়া অবসর না নিলে বিশ্বকাপ দলে থেকে এ রেকর্ডের অংশীদার হতে পারতেন মুশফিকুর রহিমও।

অন্য সব সংস্করণের মতো ২০ ওভারের ক্রিকেটেও দারুণ সব পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আর বিশ্বকাপে সব আসর খেলার পাশাপাশি সমৃদ্ধ করেছেন অর্জনের ভাণ্ডারও। দেড় দশক আগে প্রোটিয়াদের মাটিতে প্রথম আসরে প্রথম ম্যাচেই জাত চেনান সাকিব। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাঁহাতি স্পিনে ৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে নেন ৪টি উইকেট। ভারতের মাটিতে ষষ্ঠ আসরের আগ পর্যন্ত এটিই ছিল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে ৩২টি ম্যাচ খেলে ৭০৫ রান করেছেন বাংলাদেশের পোস্টারবয়। ব্যাটের পাশাপাশি বল হাতেও নিজের সক্ষমতা দেখিয়েছেন এই টাইগার। বল হাতে ১৭.২৯ গড়ে নিয়েছেন ৪১ উইকেট। এই সংস্করণে বিশ্ব আসরে তার চেয়ে বেশি উইকেট নেই আর কারও।