ঢাকা ০৮:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আবার ম্যাক্সওয়েলের ঝড়ে অস্ট্রেলিয়ার জয়

ক্রীড়া ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:৩৫:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৫০৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শেষ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ২১ রান। ম্যাক্সওয়েল উইকেটে থাকায় তখনও আশা ছাড়েননি অজি সমর্থকরা।গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ক্রিজে থাকা মানেই অসম্ভব যেকোনো কিছুকেই সম্ভব বানিয়ে ফেলার আশা। বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেই অবিশ্বাস্য ইনিংসের পর থেকে নিজেকে এমনই উচ্চতায় নিয়ে গেছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার। সেই অবিশ্বাস্য ইনিংসের পর আবার দেখা গেল অতিমানব ম্যাক্সওয়েলকে।গুয়াহাটিতে ম্যাক্সওয়েল শোতে ভারতের পাহাড় টপকিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে টিকে রইলো অজিরা।

গুয়াহাটিতে টস হেরে ব্যাট করতে নামে ভারত। দলের হয়ে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকান ওপেনার রুতুরাজ গায়কোয়াড়। আর কেউ ফিফটির কোটা স্পর্শ করতে পারেননি। অধিনায়ক সূর্যকুমার করেছেন ২৯ বলে ৩৯ রান।

এদিন শুরুটা ভালো হয়নি স্বাগতিকদের। ২৪ রানে ২ উইকেট হারিয়ে বসে ভারত। দলীয় ১৪ রানের মাথায় প্রথম উইকেট (যশস্বী জসওয়াল, ৬ বলে ৬) হারায় সূর্যের দল। জসওয়ালকে উইকেটরক্ষক ম্যাথিউ ওয়েডের ক্যাচ বানান বাঁহাতি পেসার বেহরনডার্ফ।

এরপর স্কোরবোর্ডে আরও ১০ রান যোগ করতে চলে যায় দ্বিতীয় উইকেট। এবার কেন রিচার্ডসনের শিকার হন ইশান কিশান (৫ বলে ০)। রানের খাতা খোলার আগেই স্টয়নিসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এই বাঁহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটার।

এরপর দলকে টেনে তোলেন অধিনায়ক সূর্য ও রুতুরাজ। দুর্দান্ত খেলে দলের স্কোরকার্ড দ্রুত পরিবর্তন করতে থাকেন এই দুই ব্যাটার। তবে সেটি বেশিদূর আগায়নি। দলীয় ৮১ রানের মাথায় ২৯ বলে ৩৯ করা সূর্যকে ফেরান অ্যারন হার্ডি।

সূর্য ফিরলেও দলকে বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে নেন রুতুরাজ। ৫২ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান এই বাঁহাতি ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ১৩ চার আর ৭ ছক্কার মারে ১২৩ রানের দুর্দান্ত অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। রুতুরাজের মারকুটে ব্যাটিংয়েই ৩ উইকেট হারিয়ে অসিদের সামনে ২২৩ রানের বড় লক্ষ্য দাঁড় করায় ভারত।

শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ১০৪ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাক্সওয়েল। বিধ্বংসী ইনিংসে তিনি ৮টি করে চার-ছক্কা হাঁকান। ১৬ বলে ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাথু ওয়েড। এছাড়া ওপেনার ট্রাভিস হেড করেন ১৮ বলে ৩৫।

পাঁচ টি-টোয়েন্টির সিরিজে তিনটি ম্যাচ শেষে আপাতত ভারত এগিয়ে ২-১ ব্যবধানে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আবার ম্যাক্সওয়েলের ঝড়ে অস্ট্রেলিয়ার জয়

আপডেট সময় : ১২:৩৫:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩

শেষ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ২১ রান। ম্যাক্সওয়েল উইকেটে থাকায় তখনও আশা ছাড়েননি অজি সমর্থকরা।গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ক্রিজে থাকা মানেই অসম্ভব যেকোনো কিছুকেই সম্ভব বানিয়ে ফেলার আশা। বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেই অবিশ্বাস্য ইনিংসের পর থেকে নিজেকে এমনই উচ্চতায় নিয়ে গেছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার। সেই অবিশ্বাস্য ইনিংসের পর আবার দেখা গেল অতিমানব ম্যাক্সওয়েলকে।গুয়াহাটিতে ম্যাক্সওয়েল শোতে ভারতের পাহাড় টপকিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে টিকে রইলো অজিরা।

গুয়াহাটিতে টস হেরে ব্যাট করতে নামে ভারত। দলের হয়ে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকান ওপেনার রুতুরাজ গায়কোয়াড়। আর কেউ ফিফটির কোটা স্পর্শ করতে পারেননি। অধিনায়ক সূর্যকুমার করেছেন ২৯ বলে ৩৯ রান।

এদিন শুরুটা ভালো হয়নি স্বাগতিকদের। ২৪ রানে ২ উইকেট হারিয়ে বসে ভারত। দলীয় ১৪ রানের মাথায় প্রথম উইকেট (যশস্বী জসওয়াল, ৬ বলে ৬) হারায় সূর্যের দল। জসওয়ালকে উইকেটরক্ষক ম্যাথিউ ওয়েডের ক্যাচ বানান বাঁহাতি পেসার বেহরনডার্ফ।

এরপর স্কোরবোর্ডে আরও ১০ রান যোগ করতে চলে যায় দ্বিতীয় উইকেট। এবার কেন রিচার্ডসনের শিকার হন ইশান কিশান (৫ বলে ০)। রানের খাতা খোলার আগেই স্টয়নিসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এই বাঁহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটার।

এরপর দলকে টেনে তোলেন অধিনায়ক সূর্য ও রুতুরাজ। দুর্দান্ত খেলে দলের স্কোরকার্ড দ্রুত পরিবর্তন করতে থাকেন এই দুই ব্যাটার। তবে সেটি বেশিদূর আগায়নি। দলীয় ৮১ রানের মাথায় ২৯ বলে ৩৯ করা সূর্যকে ফেরান অ্যারন হার্ডি।

সূর্য ফিরলেও দলকে বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে নেন রুতুরাজ। ৫২ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান এই বাঁহাতি ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ১৩ চার আর ৭ ছক্কার মারে ১২৩ রানের দুর্দান্ত অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। রুতুরাজের মারকুটে ব্যাটিংয়েই ৩ উইকেট হারিয়ে অসিদের সামনে ২২৩ রানের বড় লক্ষ্য দাঁড় করায় ভারত।

শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ১০৪ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাক্সওয়েল। বিধ্বংসী ইনিংসে তিনি ৮টি করে চার-ছক্কা হাঁকান। ১৬ বলে ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাথু ওয়েড। এছাড়া ওপেনার ট্রাভিস হেড করেন ১৮ বলে ৩৫।

পাঁচ টি-টোয়েন্টির সিরিজে তিনটি ম্যাচ শেষে আপাতত ভারত এগিয়ে ২-১ ব্যবধানে।