ঢাকা ০৯:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আদালতের রায় মানতে বুয়েট বাধ্য: ভিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৪৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আদালত যা আদেশ দিয়েছেন তা মানতে বাধ্য বুয়েট – জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার। বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ বিষয়ক জরুরি বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা স্থগিত করে দেয়া হাইকোর্টের রায়ের পরে গণমাধ্যমের কাছে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। বুয়েটের ভিসি এ সময় মন্তব্য করেন, আবরার হত্যার ভয় কাটাতে না পারার কারণেই ছাত্ররা রাজনীতি চায় না।

উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করা হবে, হাইকোর্টের আদেশ মানতে হবে। তবে আইনজীবীর পরামর্শ অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এর আগে সোমবার বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়। বুয়েট শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ রাব্বি এই রিট করেন।

এরপর বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে বুয়েটের দেওয়া নির্দেশনা স্থগিত ঘোষণা করেন। এর ফলে বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি করতে আর বাধা রইল না।

২০১৯ সালে তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ ঘোষণা করেন। তখন তিনি জানান, নীতিমালা অনুযায়ী বুয়েটে শিক্ষক রাজনীতিরও সুযোগ নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

আদালতের রায় মানতে বুয়েট বাধ্য: ভিসি

আপডেট সময় : ০৩:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

আদালত যা আদেশ দিয়েছেন তা মানতে বাধ্য বুয়েট – জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার। বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ বিষয়ক জরুরি বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা স্থগিত করে দেয়া হাইকোর্টের রায়ের পরে গণমাধ্যমের কাছে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। বুয়েটের ভিসি এ সময় মন্তব্য করেন, আবরার হত্যার ভয় কাটাতে না পারার কারণেই ছাত্ররা রাজনীতি চায় না।

উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করা হবে, হাইকোর্টের আদেশ মানতে হবে। তবে আইনজীবীর পরামর্শ অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এর আগে সোমবার বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়। বুয়েট শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ রাব্বি এই রিট করেন।

এরপর বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে বুয়েটের দেওয়া নির্দেশনা স্থগিত ঘোষণা করেন। এর ফলে বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি করতে আর বাধা রইল না।

২০১৯ সালে তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ ঘোষণা করেন। তখন তিনি জানান, নীতিমালা অনুযায়ী বুয়েটে শিক্ষক রাজনীতিরও সুযোগ নেই।