ঢাকা ১১:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আগামীতে শতভাগ নারীকে কর্মসংস্থানমুখী করা হবে : ইউপি র্নিবাচন প্রচারণায় প্রার্থীরা

দিনাজপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দিনাজপুরের বিরল উপজেলার পাঁচ নং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আগামী ২৮ এপ্রিল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থী মোঃ মারুফ হোসেন বলেন, আমাদের অর্থনীতিতে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। নারী-পুরুষের বৈষম্য ধীরে ধীরে কমে আসছে যা সম্ভব হয়েছে স্থানীয় সরকার গুলোর সুষ্ঠুভাবে কর্মসূচি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে। এখন আর কেউ গৃহিণী নয় সবাই কর্মজীবী। বিধবা ভাতা বয়স্ক ভাতা প্রতিবন্ধী ভাতা সমাজে বৈষম্য বিলোপে ভূমিকা রেখেছে। এখন মাঠে ঘাটের দিকে তাকালে  নারী কৃষি শ্রমিকের আধিক্যই বেশি চোখে পড়ে। এতে করে নিঃসন্দেহে এটা বলা যায় নারীরা যে ধীরে ধীরে উন্নয়নের মূল স্রোতে সম্পৃক্ত হচ্ছে।আগামীতে শতভাগ নারীকে কর্মসংস্থানমুখী করা হবে।

নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে ১৮ই এপ্রিল ইউনিয়নের ঝাড়পুকুর এলাকায় একটি নারী পথসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় সাবেক এই চেয়ারম্যান আরো বলেন, বর্তমান যুবসমাজকে নিয়ে আমাদের নতুন করে কর্ম পরিকল্পনা হাতে নিতে হবে। যুব সমাজের কর্মসংস্থান না থাকায় অনেকেই বিপথগামী হচ্ছে। এদেরকে ফিরিয়ে আনতে হবে সমাজের সবুজ স্বপ্নের দিকে। আগামীতে এটিই হবে আমার জনগণকে দেওয়া স্বীকারোক্তি।

এদিকে ১৭ এপ্রিল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আতিকুর রহমান গণসংযোগ করেন বালাপুকুর শঙ্করপুর মহেশপুর বাজার এলাকায়। এ সময় তিনি ভোটারদের মাঝে নিজের প্রতিশ্রুতির কথা ব্যক্ত করেন। কথা বলেন নানা বয়সী ভোটারের সাথে।

আগামীতে নির্বাচিত হলে তিনি ইউনিয়ন পরিষদের জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করবেন যা স্বাস্থ্যসেবার মানকে আগামীতে আরো উচ্চকিত করবে বলে মনে করেন তিনি। জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি।

আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ সাদেক আলীকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে গণসংযোগ করতে দেখা গেছে মাধববাটী দুর্গাপুর কাবলি পাড়া পূর্বশাহপাড়া সহ বিভিন্ন এলাকায়।

এ সময় তিনি বলেন, নির্বাচন যদি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় তবে তিনি বিপুল ভোটে ব্যবধানে নির্বাচিত হবেন। এবার পাঁচ নং ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষ আনারস প্রতীকের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে তাকে নির্বাচিত করবেন। ৫ নং ইউনিয়নবাসী বিভিন্ন দিক থেকে দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত এদের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করবেন তিনি। আমাদের যুব সমাজ আজ নেশায় আসক্ত। এদের জীবনে আলো নিয়ে আসতে তিনি কাজ করে যাবেন। আমি সব সময় ভালোকে ভালো বলবো খারাপকে খারাপ বলব। আমি প্রতিনিয়ত জনগণের পাশে থাকার চেষ্টা করব। তবে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা এ নিয়ে সংশয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ কামরুল ইসলাম বলেন, আগামী ২৮ এপ্রিল দিনাজপুরের ৫ নং বিরল, ২ নং ফরাক্কাবাদ ইউনিয়ন, ১ নং আজিমপুর ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এই তিনটি ইউনিয়নে মোট ভোটার ৪৭ হাজার ৬৩২ জন এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৪ হাজার ২২৩ জন নারী ভোটার ২৩ হাজার ৪০০৯ জন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৭ জন সাধারণ সদস্য পদে ৯৪ জন এবং মহিলা সংরক্ষিত সদস্য পদে ২৫ জন। এরমধ্যে এক নং আজিমপুর ইউনিয়নকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে আমরা চিহ্নিত করেছি। সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের জন্য থাকছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রার্থী ও সমর্থকদের কোন প্রকার উস্কানি, নীতিমালা বিরোধী কাজ কোন অবস্থাতেই গ্রহণযোগ্য নয়। এমন কিছু করলে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিপুল সংখ্যক আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। আশা করছি ২৮ এপ্রিল আমরা একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট উপহার দিতে পারব।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

আগামীতে শতভাগ নারীকে কর্মসংস্থানমুখী করা হবে : ইউপি র্নিবাচন প্রচারণায় প্রার্থীরা

আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

দিনাজপুরের বিরল উপজেলার পাঁচ নং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আগামী ২৮ এপ্রিল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থী মোঃ মারুফ হোসেন বলেন, আমাদের অর্থনীতিতে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। নারী-পুরুষের বৈষম্য ধীরে ধীরে কমে আসছে যা সম্ভব হয়েছে স্থানীয় সরকার গুলোর সুষ্ঠুভাবে কর্মসূচি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে। এখন আর কেউ গৃহিণী নয় সবাই কর্মজীবী। বিধবা ভাতা বয়স্ক ভাতা প্রতিবন্ধী ভাতা সমাজে বৈষম্য বিলোপে ভূমিকা রেখেছে। এখন মাঠে ঘাটের দিকে তাকালে  নারী কৃষি শ্রমিকের আধিক্যই বেশি চোখে পড়ে। এতে করে নিঃসন্দেহে এটা বলা যায় নারীরা যে ধীরে ধীরে উন্নয়নের মূল স্রোতে সম্পৃক্ত হচ্ছে।আগামীতে শতভাগ নারীকে কর্মসংস্থানমুখী করা হবে।

নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে ১৮ই এপ্রিল ইউনিয়নের ঝাড়পুকুর এলাকায় একটি নারী পথসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় সাবেক এই চেয়ারম্যান আরো বলেন, বর্তমান যুবসমাজকে নিয়ে আমাদের নতুন করে কর্ম পরিকল্পনা হাতে নিতে হবে। যুব সমাজের কর্মসংস্থান না থাকায় অনেকেই বিপথগামী হচ্ছে। এদেরকে ফিরিয়ে আনতে হবে সমাজের সবুজ স্বপ্নের দিকে। আগামীতে এটিই হবে আমার জনগণকে দেওয়া স্বীকারোক্তি।

এদিকে ১৭ এপ্রিল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আতিকুর রহমান গণসংযোগ করেন বালাপুকুর শঙ্করপুর মহেশপুর বাজার এলাকায়। এ সময় তিনি ভোটারদের মাঝে নিজের প্রতিশ্রুতির কথা ব্যক্ত করেন। কথা বলেন নানা বয়সী ভোটারের সাথে।

আগামীতে নির্বাচিত হলে তিনি ইউনিয়ন পরিষদের জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করবেন যা স্বাস্থ্যসেবার মানকে আগামীতে আরো উচ্চকিত করবে বলে মনে করেন তিনি। জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি।

আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ সাদেক আলীকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে গণসংযোগ করতে দেখা গেছে মাধববাটী দুর্গাপুর কাবলি পাড়া পূর্বশাহপাড়া সহ বিভিন্ন এলাকায়।

এ সময় তিনি বলেন, নির্বাচন যদি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় তবে তিনি বিপুল ভোটে ব্যবধানে নির্বাচিত হবেন। এবার পাঁচ নং ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষ আনারস প্রতীকের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে তাকে নির্বাচিত করবেন। ৫ নং ইউনিয়নবাসী বিভিন্ন দিক থেকে দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত এদের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করবেন তিনি। আমাদের যুব সমাজ আজ নেশায় আসক্ত। এদের জীবনে আলো নিয়ে আসতে তিনি কাজ করে যাবেন। আমি সব সময় ভালোকে ভালো বলবো খারাপকে খারাপ বলব। আমি প্রতিনিয়ত জনগণের পাশে থাকার চেষ্টা করব। তবে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা এ নিয়ে সংশয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ কামরুল ইসলাম বলেন, আগামী ২৮ এপ্রিল দিনাজপুরের ৫ নং বিরল, ২ নং ফরাক্কাবাদ ইউনিয়ন, ১ নং আজিমপুর ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এই তিনটি ইউনিয়নে মোট ভোটার ৪৭ হাজার ৬৩২ জন এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৪ হাজার ২২৩ জন নারী ভোটার ২৩ হাজার ৪০০৯ জন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৭ জন সাধারণ সদস্য পদে ৯৪ জন এবং মহিলা সংরক্ষিত সদস্য পদে ২৫ জন। এরমধ্যে এক নং আজিমপুর ইউনিয়নকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে আমরা চিহ্নিত করেছি। সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের জন্য থাকছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রার্থী ও সমর্থকদের কোন প্রকার উস্কানি, নীতিমালা বিরোধী কাজ কোন অবস্থাতেই গ্রহণযোগ্য নয়। এমন কিছু করলে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিপুল সংখ্যক আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। আশা করছি ২৮ এপ্রিল আমরা একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট উপহার দিতে পারব।

 

বাখ//আর