ঢাকা ০৪:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আইপিএল শেষে কে কত টাকা পুরস্কার পেলেন

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:০৫:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
  • / ৪৪৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুই মাসের আইপিএল-লড়াই। একপেশে ফাইনালে হায়দরাবাদকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কলকাতা। এটি তাদের তৃতীয় শিরোপা। ট্রফি সংখ্যায় চেন্নাই ও মুম্বাইয়ের পর আইপিএলের সফল দল এখন কলকাতাই।

আইপিএল মানেই যেন অর্থের ঝনঝনানি। ৪ দশমিক ৮ কোটি রুপির চ্যাম্পিয়ন প্রাইজামানিতে শুরু হয়েছিল এই আসর। সেখান থেকে প্রতিবছর বেড়েছে টাকার অঙ্ক। ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমস বলছে, এ বছর আইপিএলে অংশ নেয়া ১০ দলের জন্য মোট অংশগ্রহণ ফি বরাদ্দ ছিল সাড়ে ৪৬ কোটি ভারতীয় রুপি। এই অর্থ দলগুলোকে ভাগ করে দেয়া হয়েছে তাদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে।

বলিডউডের বাদশা খ্যাত শাহরুখ খানের দল শিরোপা জয়ের পাশপাশি পেয়েছে ২০ কোটি রুপি, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৮ কোটি টাকার বেশি। দ্বিতীয়বারের মতো রানার্সআপ হওয়া হায়দরাবাদ এবার পেয়েছে সাড়ে ১২ কোটি রুপি। এছাড়া প্লে-অফে খেলা রাজস্থান রয়্যালস ৭ কোটি (তৃতীয় হওয়ায়) এবং বেঙ্গালুরু সাড়ে ছয় কোটি রুপি পেয়েছে।

সদ্য সমাপ্ত টুর্নামেন্টটিতে সর্বোচ্চ ৭৪১ রান করে অরেঞ্জ ক্যাপ জিতেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আর সর্বোচ্চ ২৪ উইকেট নিয়ে পার্পল ক্যাপ জিতেছেন পাঞ্জাবের হারশাল প্যাটেল। আগামী মৌসুম পর্যন্ত ক্যাপ দুটির মালিক তারা। অরেঞ্জ ও পার্পল ক্যাপ অর্জনের সুবাদে ১০ লাখ রুপি করে পেয়েছেন কোহলি-হারশাল।

এছাড়া ১৭তম আইপিএলের মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার হয়েছেন সুনীল নারাইন। ব্যাটে-বলে দুই বিভাগেই দারুণ খেলে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট পুরস্কার জিতেছেন কলকাতার এই বোলিং অলরাউন্ডার। নারাইন ব্যাট হাতে ৪৮৮ আর বল হাতে ১৭ উইকেট নিয়ে তৃতীয়বারের মতো আইপিএলের মৌসুম সেরা হয়েছেন। নারাইন অর্থ পুরস্কার পেয়েছেন ২০ লাখ রুপি। আর হায়দরাবাদের নিতীশ কুমার রেড্ডি টুর্নামেন্টের উদীয়মান খেলোয়াড় হিসেবে পেয়েছেন ১২ লাখ রুপি অর্থ পুরস্কার।

এছাড়া সবচেয়ে বেশি ডট বলের জন্য হার্ষিত রানা পেয়েছেন ১ লাখ রুপি। ফাইনালে সবচেয়ে বেশি চারের জন্য রহমানউল্লাহ গুরবাজ এবং সবচেয়ে বেশি ছক্কার জন্য ভেঙ্কটেশ আইয়ারও পেয়েছেন ১ লাখ রুপি। আসরের সেরা ক্যাচের জন্য রামানদ্বীপ সিং, বেস্ট স্ট্রাইকরেটের জন্য দিল্লি ক্যাপিটালসের জ্যাক ফ্রেজার ম্যাকগার্কও পেয়েছেন ১০ লাখ রুপির পুরস্কার।

এই মৌসুমে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছিলেন হায়দরাবাদের দুই ওপেনার অভিষেক শর্মা এবং ট্রাভিস হেড। দুজনেই পেয়েছেন দশ লাখ রুপির চেক। ট্রাভিস হেড আসরে সবচেয়ে বেশি চার মেরেছিলেন। আর অভিষেকের ব্যাট থেকে এসেছিল সবচেয়ে বেশি ছয়ের মার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আইপিএল শেষে কে কত টাকা পুরস্কার পেলেন

আপডেট সময় : ০১:০৫:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুই মাসের আইপিএল-লড়াই। একপেশে ফাইনালে হায়দরাবাদকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কলকাতা। এটি তাদের তৃতীয় শিরোপা। ট্রফি সংখ্যায় চেন্নাই ও মুম্বাইয়ের পর আইপিএলের সফল দল এখন কলকাতাই।

আইপিএল মানেই যেন অর্থের ঝনঝনানি। ৪ দশমিক ৮ কোটি রুপির চ্যাম্পিয়ন প্রাইজামানিতে শুরু হয়েছিল এই আসর। সেখান থেকে প্রতিবছর বেড়েছে টাকার অঙ্ক। ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমস বলছে, এ বছর আইপিএলে অংশ নেয়া ১০ দলের জন্য মোট অংশগ্রহণ ফি বরাদ্দ ছিল সাড়ে ৪৬ কোটি ভারতীয় রুপি। এই অর্থ দলগুলোকে ভাগ করে দেয়া হয়েছে তাদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে।

বলিডউডের বাদশা খ্যাত শাহরুখ খানের দল শিরোপা জয়ের পাশপাশি পেয়েছে ২০ কোটি রুপি, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৮ কোটি টাকার বেশি। দ্বিতীয়বারের মতো রানার্সআপ হওয়া হায়দরাবাদ এবার পেয়েছে সাড়ে ১২ কোটি রুপি। এছাড়া প্লে-অফে খেলা রাজস্থান রয়্যালস ৭ কোটি (তৃতীয় হওয়ায়) এবং বেঙ্গালুরু সাড়ে ছয় কোটি রুপি পেয়েছে।

সদ্য সমাপ্ত টুর্নামেন্টটিতে সর্বোচ্চ ৭৪১ রান করে অরেঞ্জ ক্যাপ জিতেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আর সর্বোচ্চ ২৪ উইকেট নিয়ে পার্পল ক্যাপ জিতেছেন পাঞ্জাবের হারশাল প্যাটেল। আগামী মৌসুম পর্যন্ত ক্যাপ দুটির মালিক তারা। অরেঞ্জ ও পার্পল ক্যাপ অর্জনের সুবাদে ১০ লাখ রুপি করে পেয়েছেন কোহলি-হারশাল।

এছাড়া ১৭তম আইপিএলের মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার হয়েছেন সুনীল নারাইন। ব্যাটে-বলে দুই বিভাগেই দারুণ খেলে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট পুরস্কার জিতেছেন কলকাতার এই বোলিং অলরাউন্ডার। নারাইন ব্যাট হাতে ৪৮৮ আর বল হাতে ১৭ উইকেট নিয়ে তৃতীয়বারের মতো আইপিএলের মৌসুম সেরা হয়েছেন। নারাইন অর্থ পুরস্কার পেয়েছেন ২০ লাখ রুপি। আর হায়দরাবাদের নিতীশ কুমার রেড্ডি টুর্নামেন্টের উদীয়মান খেলোয়াড় হিসেবে পেয়েছেন ১২ লাখ রুপি অর্থ পুরস্কার।

এছাড়া সবচেয়ে বেশি ডট বলের জন্য হার্ষিত রানা পেয়েছেন ১ লাখ রুপি। ফাইনালে সবচেয়ে বেশি চারের জন্য রহমানউল্লাহ গুরবাজ এবং সবচেয়ে বেশি ছক্কার জন্য ভেঙ্কটেশ আইয়ারও পেয়েছেন ১ লাখ রুপি। আসরের সেরা ক্যাচের জন্য রামানদ্বীপ সিং, বেস্ট স্ট্রাইকরেটের জন্য দিল্লি ক্যাপিটালসের জ্যাক ফ্রেজার ম্যাকগার্কও পেয়েছেন ১০ লাখ রুপির পুরস্কার।

এই মৌসুমে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছিলেন হায়দরাবাদের দুই ওপেনার অভিষেক শর্মা এবং ট্রাভিস হেড। দুজনেই পেয়েছেন দশ লাখ রুপির চেক। ট্রাভিস হেড আসরে সবচেয়ে বেশি চার মেরেছিলেন। আর অভিষেকের ব্যাট থেকে এসেছিল সবচেয়ে বেশি ছয়ের মার।