ঢাকা ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আইপিএলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে মুম্বাইয়ের জয়

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:০৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩
  • / ৪৫৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ক্রীড়া ডেস্ক: আইপিএলের হাজার তম ম্যাচটি ছিলো রোমাঞ্চে ভরপুর। শেষ ওভারে জয়ের জন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দরকার ছিলে ১৭ রান। এদিনে শুরু থেকেই মারমুখী ব্যাটিং করছিলেন টিম ডেভিড। শেষ ওভারে তার সামনে বল হাতে আসেন জেসন হোল্ডার। শেষওভারের প্রথম তিন বল পরপর তিন ছক্কা হাঁকিয়েই দলের জয় নিশ্চিত করেন ডেভিড।

রাজস্থান রয়্যালসকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ১০০০ তম ম্যাচটি নিজের করে নিল মুম্বাই। রাজস্থানের হারে সবচেয়ে বেশি আফসোসে পুড়ছেন সেঞ্চুরি করা যশস্বী জসওয়াল। ২১ বছর বয়সী এই ওপেনার দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে দিয়ে রাখলেন ভবিষ্যতের বার্তা। সঙ্গী হিসেবে যোগ্য কাউকে পাননি তবুও লড়ে গেছেন বুক চিতিয়ে। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২১২ রান সংগ্রহ করে রাজস্থান।
৬২ বলে ১৬ চার ও ৮ ছক্কায় ১২৪ রান করেন জসওয়াল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান আসে অতিরিক্ত থেকে। মুম্বাইয়ের হয়ে তিনটি উইকেট নেন আরশাদ খান।

জবাব দিতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ফিরে যান রোহিত শর্মা। মুম্বাই অধিনায়কের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি ইশান কিষাণও। ২৬ বলে ৪৪ রান করে রানের গতি বাড়িয়ে দেন ক্যামেরন গ্রিন। সেটা টেনে নিয়ে ২৯ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৫৫ রান করেন সূর্যকুমার যাদব। তবুও জয়ের পথটা কঠিন ছিল মুম্বাইয়ের জন্য। কিন্তু টিম ডেভিডের ক্যামিও ইনিংসের পর উল্লাসে মেতে ওঠে তারা। ১৪ বলে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন ডেভিড। রাজস্থানের হয়ে দুটি উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ঘরের মাটিতে এই জয়ের পর ৮ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে সাতে আছে মুম্বাই। এক ম্যাচ বেশি খেলে তিনে থাকা রাজস্থানের সংগ্রহ ১০ পয়েন্ট।

নিউজটি শেয়ার করুন

আইপিএলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে মুম্বাইয়ের জয়

আপডেট সময় : ০৯:০৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

ক্রীড়া ডেস্ক: আইপিএলের হাজার তম ম্যাচটি ছিলো রোমাঞ্চে ভরপুর। শেষ ওভারে জয়ের জন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দরকার ছিলে ১৭ রান। এদিনে শুরু থেকেই মারমুখী ব্যাটিং করছিলেন টিম ডেভিড। শেষ ওভারে তার সামনে বল হাতে আসেন জেসন হোল্ডার। শেষওভারের প্রথম তিন বল পরপর তিন ছক্কা হাঁকিয়েই দলের জয় নিশ্চিত করেন ডেভিড।

রাজস্থান রয়্যালসকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ১০০০ তম ম্যাচটি নিজের করে নিল মুম্বাই। রাজস্থানের হারে সবচেয়ে বেশি আফসোসে পুড়ছেন সেঞ্চুরি করা যশস্বী জসওয়াল। ২১ বছর বয়সী এই ওপেনার দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে দিয়ে রাখলেন ভবিষ্যতের বার্তা। সঙ্গী হিসেবে যোগ্য কাউকে পাননি তবুও লড়ে গেছেন বুক চিতিয়ে। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২১২ রান সংগ্রহ করে রাজস্থান।
৬২ বলে ১৬ চার ও ৮ ছক্কায় ১২৪ রান করেন জসওয়াল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান আসে অতিরিক্ত থেকে। মুম্বাইয়ের হয়ে তিনটি উইকেট নেন আরশাদ খান।

জবাব দিতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ফিরে যান রোহিত শর্মা। মুম্বাই অধিনায়কের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি ইশান কিষাণও। ২৬ বলে ৪৪ রান করে রানের গতি বাড়িয়ে দেন ক্যামেরন গ্রিন। সেটা টেনে নিয়ে ২৯ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৫৫ রান করেন সূর্যকুমার যাদব। তবুও জয়ের পথটা কঠিন ছিল মুম্বাইয়ের জন্য। কিন্তু টিম ডেভিডের ক্যামিও ইনিংসের পর উল্লাসে মেতে ওঠে তারা। ১৪ বলে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন ডেভিড। রাজস্থানের হয়ে দুটি উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ঘরের মাটিতে এই জয়ের পর ৮ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে সাতে আছে মুম্বাই। এক ম্যাচ বেশি খেলে তিনে থাকা রাজস্থানের সংগ্রহ ১০ পয়েন্ট।